kalerkantho



আবাহনী-মেরিনার্স ফাইনালে

২২ এপ্রিল, ২০১৮ ০০:০০



আবাহনী-মেরিনার্স ফাইনালে

ক্রীড়া প্রতিবেদক : ঊষা, মোহামেডানের মতো দলগুলো নেই ক্লাব কাপ হকিতে। ঘরোয়া হকিতে প্রথমবার ফ্লাডলাইটের আলোয় হওয়া এই টুর্নামেন্টের সবচেয়ে বড় দুটি নাম আবাহনী ও মেরিনার্স। প্রত্যাশামতোই আলো ঝলমলে পারফরম্যান্স তাদের। সেমিফাইনাল পর্যন্ত বাধাহীন এসেছিল দুই দল। গতকাল শেষ চারের ম্যাচেও দাপট তাদের। আবাহনী ১১-১ গোলে বিধ্বস্ত করেছে ভিক্টোরিয়াকে। আর দিনের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে সোনালী ব্যাংককে ৩-০ গোলে হারিয়েছে মেরিনার্স। শিরোপাপ্রত্যাশী আবাহনী আর মেরিনার্সই তাই ফাইনালে।

ভিক্টোরিয়ার জালে ৪ গোল আবাহনীর মালয়েশিয়ান খেলোয়াড় ইজুয়ান ফেরদৌসের। আর ৩ গোল মোহাম্মদ মহসিনের। এ ছাড়া আশরাফুল ইসলাম ২টি আর ১টি করে গোল আজওয়ার বিন রহমান ও সোহানুর রহমানের। ভিক্টোরিয়ার পক্ষে সান্ত্বনার একমাত্র গোলটি রকিবের। ম্যাচের শুরু থেকেই ভিক্টোরিয়ার ওপর চড়াও হয় আবাহনী। প্রথম গোলটাও আদায় করে নেয় দ্বিতীয় মিনিটেই। পেনাল্টি কর্নার থেকে লক্ষ্য ভেদ করেন আশরাফুল ইসলাম। চতুর্থ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে আবাহনী। দারুণ একটি ফিল্ড আক্রমণ থেকে গোল করেন মালয়েশিয়ান ইজুয়ান ফেরদৌস। ম্যাচের গতি-প্রকৃতি ঠিক হয়ে যায় এই চার মিনিটেই। অসহায় ভিক্টোরিয়া ২৪ মিনিটের মধ্যে পিছিয়ে পড়ে ৬-০ গোলে। দশম মিনিটে ইজুয়ানের লক্ষ্যভেদে আবাহনী এগিয়ে যায় ৩-০তে। ২০ ও ২৩ মিনিটে পর পর দুই গোল মোহাম্মদ মহসিনের। ২৪ মিনিটে আবাহনীকে ৬-০ ব্যবধানে এগিয়ে দেন মালয়েশিয়ার আরেক খেলোয়াড় আজওয়ার বিন রহমান।

২৪ মিনিটে ৬ গোল করে আক্রমণের ধার কিছুটা কমিয়ে দেয় আবাহনী। সপ্তম গোলটা আসে তাই ৪৭ মিনিটে। পেনাল্টি কর্নার থেকে এবার লক্ষ্যভেদ সোহানুর রহমানের। ৪৯ ও ৫৩ মিনিটে পর পর দুই গোল  ইজুয়ান ফেরদৌসের। ৬২ মিনিটে এক গোল ফেরান ভিক্টোরিয়ার রকিব। ৬৪ মিনিটে পেনাল্টি কর্নার থেকে আবারও গোল আবাহনীর আশরাফুল ইসলামের। ৬৬ মিনিটে মোহাম্মদ মহসিনের লক্ষ্যভেদে ১১-১ ব্যবধানের জয়ে মাঠ ছাড়ে আবাহনী। 

দ্বিতীয় সেমিফাইনালে বিরতির আগে কিছুটা প্রতিরোধ গড়েছিল সোনালী ব্যাংক। পিছিয়ে ছিল ১-০ গোলে। অষ্টম মিনিটে মেরিনার্সের হয়ে সেই গোলটি হাসান যুবায়ের নিলয়ের। শেষ পর্যন্ত ৩-০ গোলের স্বস্তির জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে মেরিনার্স। ৪৯ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন হাসান যুবায়ের নিলয়। আর ৫৫ মিনিটে শেষ গোলটি মাহবুব হোসেনের।



মন্তব্য