kalerkantho


গোলশূন্য ড্র করে ফিরল ম্যানইউ

২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



গোলশূন্য ড্র করে ফিরল ম্যানইউ

মঙ্গলবারেই স্প্যানিশ লিগের দল বার্সেলোনা লন্ডনে এসে ১ পয়েন্টের সঙ্গে মহামূল্যবান অ্যাওয়ে গোলও আদায় করে নিয়ে গেছে চেলসির কাছ থেকে। কিন্তু ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের আরেক দল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের স্পেন সফর এতটা সফল হয়নি। সেভিয়ার মাঠে গোলশূন্য ড্র করেছে ম্যানইউ। ১৪ মার্চ ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ফিরতি লেগেই হবে চূড়ান্ত ফয়সালা।

হোসে মরিনহোর অবশ্য চূড়ান্ত অখুশি হওয়ার কথা নয় এই ফলে। প্রতিপক্ষের মাঠে গোল করতে না পারার ব্যর্থতাকে আড়াল করতে প্রতিপক্ষের মাঠে গোল হজম না করার কৃতিত্বকেই তিনি সামনে আনবেন। সংবাদ সম্মেলনে এসে যা যা বলেছেন স্বঘোষিত ‘স্পেশাল ওয়ান’, যেসব জন্ম দিয়েছে বিতর্ক ও হাস্যরসেরও। একাদশে ছিলেন না পল পগবা। ১৭তম মিনিটে তাঁকেই নামিয়েছেন আন্দের এরেরার বদলি হিসেবে। ম্যাচ শেষে মরিনহো যেসব কথাবার্তা বলেছেন, সেসবকে ফুটবলের জন্যই অপমান দেখছেন সাবেক জার্মান ফুটবলার ও বর্তমানে সেন্ট পলি ক্লাবের টেকনিক্যাল ডিরেক্টর ইওয়াল্ড লিয়েনেন, ‘অন্য কোনো কোচকে এ রকম ভুলভাল বলতে শুনলে আমি বের হয়ে যেতাম। যারা ফুটবল ভালোবাসে, তাদের কাছে মরিনহোর ব্যাখ্যা অপমানজনক। তার যদি অনেক টাকা থাকে এবং কেউ যদি তাকে ছুঁতে না পারে, তার উচিত সরে দাঁড়ানো।’

মরিনহো বলছেন, ‘খেলায় দুই দলেরই প্রাধান্য ছিল। পরিসংখ্যান অনেক সময় ভুল দেখায়। ১৫টি শটের মধ্যে আমি বলব ১৩টি শটই পরিসংখ্যানের শট। আমি বিশ্বাস করি, খেলার ফলেই বোঝা যাচ্ছে অবস্থা কেমন ছিল।’ আরো বলেছেন, ‘এখন আমাদের আর একটি মাত্র ম্যাচ বাকি, ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে। সেখানেই সব কিছুর মীমাংসা হবে। ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে চ্যাম্পিয়নস লিগে মনে রাখার মতো একটা রাত দরকার শুধু, সেখানে তেমনটাই হতে যাচ্ছে।’ নিজ মাঠে গোলশূন্য ড্র করে খানিকটা এগিয়ে রইল সেভিয়াই। ম্যানইউর মাঠে এসে গোল করতে পারলেই ম্যানইউকে জিততে হলে করতে হবে ২ গোল। ব্যাপারটা মেনে নিয়েই মরিনহো বলেছেন, ‘দ্বিতীয় লেগে গোলে যদি ড্র করি, তাহলে আমরা বাদ পড়ব। তবে আমরা যদি জিততে পারি, তাহলে পরের রাউন্ডে আমরাই খেলব। তবে আমার বিশ্বাস, ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে অনেক দিন ইউরোপের বড় ম্যাচ হয় না। ইউরোপায় অবশ্য আমরা সেমিফাইনালও খেলেছি সেখানে, তবে সেটা অন্য হিসাব।’

ওদিকে নিজ মাঠে পিছিয়ে পড়েও রোমার বিপক্ষে ২-১ গোলে জিতেছে শাখতার দোনেত্স্ক। চ্যাম্পিয়নস লিগ অভিষেকেই গোল করেছেন চেঙ্গিজ উন্দের। তুর্কি এই উইঙ্গার গত বছর এসেছেন রোমায়। ম্যাচের ৪১ মিনিটে তাঁর গোলেই এগিয়ে থেকে বিরতিতে গিয়েছিল রোমা। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে ফেরেইরা ও ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার ফ্রেদের দুর্দান্ত ফ্রিকিকে করা গোলে ২-১ গোলে লিড নেয় শাখতার। এভাবেই শেষ হয় প্রথম লেগের ৯০ মিনিট। পিছিয়ে থাকলেও একেবারে খারাপ অবস্থায় নেই রোমা, ফিরতি লেগে নিজেদের মাঠে ১-০তে জিতলেই তারা পেয়ে যাবে শেষ আটের টিকিট। উয়েফা, বিবিসি



মন্তব্য