kalerkantho



ফুটবল টুর্নামেন্ট করবে এবার ক্রীড়া মন্ত্রণালয়

৩ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



ক্রীড়া প্রতিবেদক : প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্ট সাড়া ফেলেছে সারা দেশে। কেমন হয় সরকার থেকে যদি এমনই আরেকটি টুর্নামেন্ট হয় মাধ্যমিক পর্যায়ে। তাহলে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গামাতা টুর্নামেন্ট খেলে শিক্ষার্থীরা শৈশবেই যে ফুটবলপ্রেমে মাতে, সেই সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে বাফুফের অগোছালো ফুটবলসূচির ওপর আর নির্ভর করতে হয় না। আদতে উঠতি ফুটবলারদের নিয়ে বাফুফের কোনো কার্যক্রমই নেই। যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় এবার সেই উদ্যোগ নিতে যাচ্ছে।

অনূর্ধ্ব-১৭ পর্যায়ে দেশব্যাপী একটি ফুটবল টুর্নামেন্ট করতে চাইছে তারা। জাতীয় বাজেটেই যার জন্য অর্থ বরাদ্দ থাকার সম্ভাবনার কথা জানিয়েছেন যুব ও ক্রীড়া সচিব আশাদুল ইসলাম। মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, টুর্নামেন্ট আয়োজনের জন্য এরই মধ্যে ১৬ কোটি টাকার প্রাথমিক বাজেট হয়েছিল। যা থেকে উপজেলা পর্যায়ের দলগুলোকে অংশগ্রহণ ফি দেওয়ার পরিকল্পনাও হয়েছে। তবে এ ক্ষেত্রে হাই স্কুলগুলোকে অন্তর্ভুক্ত করা হবে কি না, নাকি উপজেলার বয়সভিত্তিক দলগুলোকে নেওয়া হবে, সেটি এখনো চূড়ান্ত নয়। স্কুল থেকে ঝরে পড়া তরুণরাও যাতে এ ফুটবল আয়োজনের বাইরে না থাকে, এমনটিও বিবেচনায় নেওয়া হচ্ছে। গত বছর জেলার ডেপুটি কমিশনারদের সম্মেলনে প্রাথমিক বিদ্যালয়-পরবর্তী পর্যায়ে এমন একটি টুর্নামেন্ট আয়োজনের বিষয়ে প্রথম আলোচনা হয়। উপজেলায় প্রস্তাবিত মিনি স্টেডিয়ামগুলোকে এই টুর্নামেন্টের কেন্দ্রে পরিণত করার পরিকল্পনা।

বঙ্গমাতা ফুটবল টুর্নামেন্ট দিয়ে প্রত্যক্ষভাবে উপকৃত হয়েছে দেশের মেয়েদের ফুটবল। এ মুহূর্তে ছেলেদের ফুটবলেও যে বয়সভিত্তিক পর্যায়ে আশার সঞ্চার হয়েছে, তারও আঁতুড়ঘর প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্ট। তবে এই ফুটবলারদের শীর্ষ পর্যায়ে পৌঁছানোর মাঝখানে একটা বড় শূন্যতা। ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের এ টুর্নামেন্ট সেই পাইপলাইন তৈরিতে রাখতে পারে বড় ভূমিকা। মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, বাজেটে বিভিন্ন ফেডারেশনের সারা বছরের খেলাধুলার জন্যও নির্দিষ্ট অর্থ বরাদ্দের চিন্তা করছে, এত দিন যা মূলত অবকাঠামো খাতেই রাখা হতো।



মন্তব্য