kalerkantho


মালান-বেয়ারস্টোয় ইংল্যান্ডের দিন

১৫ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



‘মালান ক্রিজে অনেক সময় কাটায়, কিন্তু তাঁকে ঠিক ভীতিকর বলে মনে হয় না’, ওয়াকায় অ্যাশেজের তৃতীয় টেস্ট মাঠে গড়ানোর আগে ডেভিড মালান সম্পর্কে এ কথাটাই বলেছিলেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক রিকি পন্টিং। কাল সেই মালানই সবচেয়ে বেশি বিপদে ফেলেছেন পন্টিংয়ের উত্তরসূরিদের। নিজের টেস্ট ক্যারিয়ারের প্রথম শতরানের পর ১১০ রানে অপরাজিত থেকে প্রথম দিন শেষ করেছেন মালান, সঙ্গী জনি বেয়ারস্টো অপরাজিত ৭৫ রানে।

টস জিতে জো রুট নিয়েছিলেন ব্যাটিং। কিন্তু প্রথম সেশনেই মনে হচ্ছিল, ভুল করে ফেলেছেন রুট। কুক আউট পঞ্চম ওভারে, মাত্র ৭ রান করে। জেমস ভিন্সও উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়েছেন হ্যাজেলউডের বলে। রুটেরও একই ভাগ্য, বোলার ছিলেন প্যাট কামিন্স। চা-বিরতিতে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৭৫ রান তোলা ইংল্যান্ডের শেষ সেশনটা যে এতটা ভালো যাবে, সেটা বোধ হয় রুটও ভাবেননি!

ব্যাটিং অর্ডারে ছয়ে উঠে আসা বেয়ারস্টোর সঙ্গে মালানের জুটিটা প্রথম দিন শেষে অবিচ্ছিন্ন ১৭৪ রানের। ক্যারিয়ারের প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরিতে মালান অপরাজিত ১১০ রানে। অবশ্য মালান-বেয়ারস্টোর জুটি বাড়তে দেওয়ায় দায় আছে অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটারদেরও।  জীবন পেয়েছেন দুজনই। তাতে প্রথম দিন শেষেই বড় সংগ্রহের আভাস ইংরেজদের। ক্রিকইনফো

সংক্ষিপ্ত স্কোর : ইংল্যান্ড প্রথম দিন শেষে ৮৯ ওভারে ৩০৫/৪ (স্টোনম্যান ৫৬, ভিনস ২৫, রুট ২০, মালান ব্যাটিং ১১০, বেয়ারস্টো ব্যাটিং ৭৫; স্টার্ক ২/৭৯, হ্যাজেলউড ১/৬২, কামিন্স ১/৬০)।



মন্তব্য