kalerkantho


রোনালদোর পঞ্চম

৮ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



রোনালদোর পঞ্চম

২০০৮ থেকে ২০১৭—এক দশক পূর্ণ হলো ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো ও লিওনেল মেসির আধিপত্যের। মেসি ব্যালন ডি’অর জিতেছেন পাঁচবার।

একটি কম ছিল রোনালদোর। কাল প্যারিসে রোনালদোও পঞ্চমবারের মতো জিতলেন ফ্রান্স ফুটবল ম্যাগাজিনের দেওয়া বর্ষসেরা ফুটবলের এই পুরস্কার।

ফিফা বর্ষসেরার পুরস্কার দিচ্ছে ১৯৯১ সাল থেকে। ফ্রান্স ফুটবলের এই পুরস্কার ৬১ বছরের পুরনো। জিতেছেন আলফ্রেদো দি স্তেফানো, ইউসেবিও, ইউহান ক্রুইফ, মিশেল প্লাতিনির মতো খেলোয়াড়রা। ফুটবলের সবচেয়ে মর্যাদার পুরস্কার ধরা হয় এটিকে। কাল আইফেল টাওয়ারের ওপর রোনালদোর হাতে তুলে দেওয়া হলো আইকনিক সেই সোনার বল। টানা দ্বিতীয়বার বর্ষসেরা হলেন পর্তুগিজ যুবরাজ। ইউরো ও চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতেছিলেন গতবার।

এবার লা লিগা ও চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ডাবলে এলো তা। চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ইতিহাসে প্রথম ক্লাব হিসেবে রিয়াল মাদ্রিদের শিরোপা ধরে রাখার রেকর্ডে সর্বোচ্চ ১২ গোল রোনালদোর। জোড়া গোল করেছেন ফাইনালে, সেমিফাইনালে করেছেন হ্যাটট্রিক। চার মৌসুম পর লা লিগা জয়ে তাঁর ২৫ গোল। লক্ষ্যভেদ করেছেন মালাগার বিপক্ষে শিরোপা নির্ধারণী শেষ ম্যাচেও। রোনালদো ব্যালন ডি’অর জয় তাই পারফরম্যান্সেই লেখা ছিল। কাল হলো শুধু আনুষ্ঠানিকতা। বিকেলে মা, বোন, ভাই, বান্ধবী আর ছেলেকে নিয়ে প্যারিসে উড়াল দিয়েছিলেন মাদ্রিদ থেকে। সন্ধ্যায় সুউচ্চ আইফেল টাওয়ারের ওপর দাঁড়িয়ে তুলে ধরলেন নিজের স্বীকৃতি। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে থাকতে ২০০৮ সালে জিতেছিলেন প্রথম ব্যালন ডি’অর। এরপর ২০১৩, ২০১৪ ও ২০১৬-তে। এবার নিয়ে পঞ্চমবার জিতে মেসির সঙ্গে সমতা আনলেন ৫-৫-এ। দুজন ইউরোপিয়ান গোল্ডেন স্যুও জিতেছেন চারবার করে, সমান চারটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগও। আগামী বছরটা তাই অন্যকে ছাড়িয়ে যাওয়ার। এএফপি


মন্তব্য