kalerkantho


শেষ দল পেরু

১৭ নভেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



শেষ দল পেরু

সরাসরিই বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পেয়ে যেত পেরু। শেষ দিনে এসে খানিকটা গোলমেলে হয়ে গেল পেরুর ভাগ্য।

নিজের মাঠে কলম্বিয়ার বিপক্ষে জিতলেই তারা সরাসরি পায় রাশিয়ার টিকিট, সেই ম্যাচটা করে বসল ১-১ ড্র। অগত্যা প্লে-অফের জটিল পথ। তাতে ওয়েলিংটনে প্রথম ম্যাচটায় পেরুভিয়ানরা করে এসেছিল গোলশূন্য ড্র। তবে অবশ্য তাতে খুব একটা ভড়কায়নি রিকার্দো গারেকার শিষ্যরা। কারণ তারা জানে, একবার সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে পাঁচ হাজার ফুট ওপরে; লিমার স্তাদিও ন্যাসিওনালে নিউজিল্যান্ডের ১১ জনকে সামনে পেলে গোল আপনাতেই হয়ে যাবে! হয়েছেও তা-ই। ম্যাচের ২৮ মিনিটে জেফারসন ফারফান আর ৬৫ মিনিটে ক্রিস্তিয়ান রামোসের গোল পেরুকে নিয়ে গেছে বিশ্বকাপে। ৩২ নম্বর অর্থাৎ সবশেষ দল হিসেবে বিশ্বকাপের টিকিট পেল পেরু, ৩৬ বছর পর আবার তারা খেলবে বিশ্বকাপে। সবশেষ ১৯৮২ সালের স্পেন বিশ্বকাপে অংশ নিয়ে তিন ম্যাচের দুটিতে ড্র করে গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নিয়েছিল ‘ইনকা’রা। তবে সেই স্বল্প উপস্থিতিতেও তারা ১-১ গোলে ড্র করেছিল দিনো জফ, পাওলো রসিদের ইতালি দলের সঙ্গে, যে দলটা পরবর্তী সময়ে শিরোপাই জিতেছিল সেই বিশ্বকাপের।

পেরুর সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতাদের তালিকায় জেফারসন ফারফানের নামটা ছিল চারে। সবার উপরে থাকা গেরেরো থেকেও নেই, ডোপ টেস্টে পজিটিভ হওয়ার দায়ে নিষিদ্ধ ৩০ দিনের জন্য। গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে গোল করার গুরুভারটা তাই ফারফানেরই, হতাশ করেননি এই ফরোয়ার্ড। বাঁ প্রান্ত থেকে পাস পেয়ে বক্সের মাঝামাঝি জায়গা থেকে জোরালো শটে ম্যাচের প্রথম গোলটা করেন ফারফান। গোল করে অবশ্য ফারফান ভোলেননি গেরেরোকে, উল্লাস করেন সতীর্থের ৯ নম্বর জার্সি মুখে চেপে ধরে। দ্বিতীয় গোলটার উৎস কর্নার কিক। কর্নারে গোলমুখে জটলা থেকে গোল করে পেরুর বিশ্বকাপ নিশ্চিত করেন ক্রিস্তিয়ান রামোস।

পেরু জাতীয় দলের কারোরই নেই নিজের দেশকে বিশ্বকাপে খেলতে দেখার স্মৃতি । ৩৬ বছর পর বিশ্বকাপে দলকে তুলতে পারায় আবেগ বাঁধ মানেনি কারোরই। মিডফিল্ডার ক্রিস্তিয়ান কুয়েভা জানালেন, ‘এটা আমার ছোটবেলার স্বপ্ন ছিল। এই আবেগ ভাষায় প্রকাশ করার নয়, ইতিহাস গড়ার চেয়েও বেশি কিছু। ’

পেরুর বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জনে খুশি হয়ে টুইট করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট পেদ্রো পাবলো কুচজিনস্কি, ‘৩৫ বছরেরও বেশি সময় ধরে আমরা বিশ্বকাপে খেলার জন্য অপেক্ষা করেছি। সেই আনন্দে আমাদের ভাসানোর জন্য তোমাদের ধন্যবাদ প্রিয় সৈনিকরা। ’ শুধু তা-ই নয়, পেরুর জয়ে ঘোষণা করেছেন রাষ্ট্রীয় ছুটি । ৩৬ বছরের অপেক্ষা বলে কথা! বিবিসি, ফিফা


মন্তব্য