kalerkantho


‘অকল্পনীয়’ সাফল্যের ফিরিস্তি নাজমুলের

১৮ অক্টোবর, ২০১৭ ০০:০০



‘অকল্পনীয়’ সাফল্যের ফিরিস্তি নাজমুলের

ক্রীড়া প্রতিবেদক : সব শেষ নির্বাচনে নির্বাচিত বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালনা পর্ষদের মেয়াদ শেষ হলো গতকাল। তবে মেয়াদ শেষ হলেও ৩১ অক্টোবরের আসন্ন নির্বাচন পর্যন্ত নাজমুল হাসানের নেতৃত্বাধীন বোর্ডই দায়িত্বে থাকল। যদিও এই সময়ের মধ্যে বড় কোনো সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন না বলেও জানিয়ে রাখলেন পরের মেয়াদেও একরকম বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নিজের পারিষদসহ নির্বাচিত হতে যাওয়া নাজমুল, ‘আমরাই থাকছি তবে বড় কোনো সিদ্ধান্ত নিচ্ছি না।’ আবার আসছেনই যেহেতু, তাই ভবিষ্যৎ লক্ষ্যের কথাও শোনা গেল। সেই সঙ্গে গত চার বছরে ‘অকল্পনীয়’ সাফল্যের ফিরিস্তিও। কাল বিকেলের সংবাদ সম্মেলনে নাজমুল বলছিলেন, ‘দল ভালো খেলেছে, এটা তো অস্বীকার করার কোনো পথ নেই। আবার খারাপও খেলেছে। তবে ওয়ানডেতে আমরা খুব ভালো খেলেছি। (ওয়ানডে) বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনাল খেললাম। যে চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে আমরা কোয়ালিফাই করি না, সেখানে সরাসরি গিয়েই সেমিফাইনাল খেলা তো মাইলফলক। দেশের মাটিতে পাকিস্তান, ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে প্রথমবারের মতো সিরিজ জিতেছি। এসব তো অকল্পনীয় ছিল আগে।’ দেশের পাশাপাশি বাইরেও অল্পবিস্তর সাফল্য মিলেছে টেস্টে। আবার দক্ষিণ আফ্রিকায় হয়েছে ভরাডুবিও। সব মিলিয়েই নাজমুল বললেন, ‘আমরা ভালো খেলি, তবে সব জায়গায় নয়। এই ধরুন দক্ষিণ আফ্রিকার কন্ডিশনে আমরা অনেক পিছিয়ে আছি। এখানে উন্নতির অনেক জায়গা আছে। যা নিয়ে আমরা নিজেরা যেমন আলোচনা করেছি, তেমনি দল ফিরলে আরো আলোচনা হবে। দেশে ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার পাশাপাশি শ্রীলঙ্কায় গিয়েও টেস্ট সিরিজ ড্র করেছি। কিন্তু এখনো অনেক দূর যাওয়া বাকি।’

অবশ্য ক্রিকেট কূটনীতিতে অনেক দূর যেতে পেরেছেন বলেও দাবি নাজমুলের, ‘আমরা অন্তত একটি টেস্ট হলেও প্রথমবারের মতো ভারতে গিয়ে খেলে এসেছি। আমি দায়িত্ব নেওয়ার পর এটি একটি বড় ইস্যু ছিল, যেটি আমরা সমাধান করতে পেরেছি। এর ফলে ২০১৯ সাল থেকে কার্যকর হতে যাওয়া নতুন এফটিপিতে (ফিউচার ট্যুরস প্রগ্রাম) কিন্তু ভারতে বাংলাদেশের পূর্ণাঙ্গ সিরিজ আছে। যেখানে আমাদের খেলতেই ডাকত না, সেখানে আমরা পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে যাব।’



মন্তব্য