kalerkantho


আজই সিরিজ নিশ্চিত করতে চায় ভারত

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



আজই সিরিজ নিশ্চিত করতে চায় ভারত

চাপে সব সময় ভেঙে পড়ে দক্ষিণ আফ্রিকা। একই রোগ এখন অস্ট্রেলিয়ারও।

বিখ্যাত ‘হলুদ সভ্যতার’ সেই অদম্য ক্রিকেটের ছিটেফোঁটাও খেলতে পারছে না স্টিভেন স্মিথের দল। ভারতে টানা দুই ওয়ানডে হেরে স্মিথ স্বীকারই করে নিয়েছেন, ‘চাপ সামলাতে পারছি না আমরা। ’ টানা আট ওয়ানডে জিততে না পারা দলের অধিনায়কের এই অসহায়ত্ব কি দূর হবে আজ ইন্দোরে? নইলে দুই ম্যাচ বাকি থাকতে হারতে হবে সিরিজ। ভারতীয় ওপেনার আজিঙ্কা রাহানে কোনোভাবে চান না সিরিজে রোমাঞ্চ রাখতে। আজ তৃতীয় ওয়ানডে জিতে পাঁচ ম্যাচের সিরিজ ৩-০ ব্যবধানে নিশ্চিত করতে চান তিনি, ‘আমরা জয়ের ধারায় আছি। সবাই দারুণ ছন্দে। ইন্দোরে এই ছন্দটা ধরে রাখতে চাই। ’

শ্রীলঙ্কা সফরে টেস্ট, ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টি মিলিয়ে টানা ৯ ম্যাচ জিতেছে ভারত। এরপর প্রথম দুই ওয়ানডেতে হারিয়েছে অস্ট্রেলিয়াকে।

দুই রিস্ট স্পিনার যুজবেন্দর চাহাল ও কুলদীপ যাদবকে সামলাতেই পারছে না স্টিভেন স্মিথের দল। প্রথম দুই ম্যাচ মিলিয়ে এই দুই স্পিনার নিয়েছেন ১০ উইকেট। চেন্নাইয়ের প্রথম ওয়ানডেতে অস্ট্রেলিয়ার আট ব্যাটসম্যান স্পর্শ করতে পারেননি দুই অঙ্কের রানের কোটা। ইডেনের পরের ম্যাচে ফিফটি ছিল স্টিভেন স্মিথ ও মার্কাস স্টোইনিসের। তবে সব মিলিয়ে মাত্র চারজন করেছিলেন ১০ রানের বেশি। ব্যাটসম্যানদের তাই দায়িত্ব নিয়ে খেলার তাগিদ সহ-অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নারের, ‘আমাদের বেশির ভাগ ব্যাটসম্যান স্পিনারদের বল বুঝতে পারছে। তবে স্পিনারদের বিপক্ষে পরিকল্পনা নিয়ে নামতে হবে। অপর প্রান্তে উইকেট পড়তে থাকলে দায়িত্ব নিয়ে খেলতে হবে কাউকে না কাউকে। আইপিএলের সুবাদে ভারতের উইকেট পরিচিত আমাদের সিনিয়র ব্যাটসম্যানদের। এখন কাজে লাগাতে হবে সেই অভিজ্ঞতা। ’

ইন্দোরের উইকেট অবশ্য অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যানদের কাজটা কঠিন করে তুলবে আরো। কিউরেটর সমন্দর সিংয়ের কথায় ভয় পেতেই পারেন স্মিথরা, ‘আমরা ব্ল্যাক কটন সয়েল দিয়ে উইকেট বানিয়েছি। এটা ব্যাটসম্যানদের জন্য ভালো, তেমনই ভালো রিস্ট স্পিনারদের জন্যও। ’ প্রথম ম্যাচে ৯০ রানের আগে ৫ উইকেট হারিয়েও হার্দিক পাণ্ডে ও মহেন্দ্র সিং ধোনির বীরত্বে জিতেছিল ভারত। দ্বিতীয় ম্যাচে বিরাট কোহলি ৯২ করলেও ভারত থামে ২৫২ রানে। রানের পাহাড় গড়া হচ্ছে না টপ অর্ডার রোহিত শর্মা, কেদার যাদব ও মনিশ পাণ্ডের ব্যর্থতায়। ব্যাটিংয়ের চার ও পাঁচ নম্বরে বড় পরীক্ষা তাই কেদার ও মনিশের। তাঁরা আজ ব্যর্থ হলে শেষ দুই ওয়ানডেতে দরজা খুলতে পারে অন্য কারো। পিটিআই


মন্তব্য