kalerkantho

ধোনির মতো আমিও একই কাণ্ড করেছিলাম : সাকিব

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ এপ্রিল, ২০১৯ ২০:৫৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ধোনির মতো আমিও একই কাণ্ড করেছিলাম : সাকিব

অধিনায়ক হিসেবে সাকিব যেমন আক্রমণাত্বক তেমনই মাঠে দলের সঙ্গে কোনো অন্যায় হলে মেজাজটাও আক্রমণাত্বক হয়ে যায় বিশ্বসেরা অল-রাউন্ডারের। গত বছর নিদাহাস ট্রফিতে 'রাগী' সাকিবকে দেখেছে বাংলাদেশ। এদিকে চলতি আইপিএলে আম্পায়ারের সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে শাস্তি পেয়েছেন চেন্নাই সুপার কিংস অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। 'ক্যাপ্টেন কুল' এর সঙ্গে সাকিবের মিল হলো, দুজনেই 'নো বল' ইস্যুতে মেজাজ হারিয়েছেন।

গত বৃহস্পতিবার রাজস্থান রয়্যালসের বিপক্ষে ম্যাচের শেষে ঠাণ্ডা মাথার ক্রিকেটার হিসেবে সমাদৃত ধোনি মেজাজ হারান। ম্যাচের শেষ ওভারে একটি নো-বলকে কেন্দ্র করে মাঠে ঢুকে আম্পায়ারের সাথে বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন তিনি। যা আইপিএলের 'লেভেল-২' অপরাধ হিসেবে বিবেচনা করা হয়েছে। ধোনির এই মেজাজ হারানোকে অনেকে সঠিক বলছেন; আবার অনেকে বলছেন এটা তরুণদের জন্য বাজে উদাহরণ হয়ে থাকবে। আর সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে খেলা সাকিব আল হাসান ধোনির ঘটনার সঙ্গে নিজের মিল খুঁজে পাচ্ছেন।

নিদাহাস ট্রফিতে বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কার অলিখিত সেমিফাইনালের কথা নিশ্চয়ই ক্রিকেটপ্রেমীদের মনে আছে। ওই ম্যাচে একটি নো বল আম্পায়ার দেখেও না দেখার ভান করেছেন। যে কারণে সাকিব ভীষণ ক্ষুব্ধ হয়ে ড্রেসিংরুম থেকে ডাগ আউটে এসে দুই ব্যাটসম্যানকে মাঠ ছাড়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন। উত্তপ্ত পরিস্থিতিতে দুই দলের খেলোয়াদের মাঝেও তীব্র উত্তেজনা এমনকী ঝগড়া শুরু হয়ে যায়। শেষ পর্যন্ত বোর্ড কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয় এবং মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ম্যাজিকে বাংলাদেশ ম্যাচ জিতে নেয়।

তাই ধোনির ওই মেজাজ হারানো নিয়ে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসা সাকিব বলেন, 'এটা নিয়ে আমার মন্তব্য করা ঠিক না। কারণ, আমিও একই কাণ্ড করেছিলাম নিদাহাস ট্রফিতে। এটা আসলে ম্যাচ পরিস্থিতি আর উত্তেজনার বশে আকস্মিক ভাবে ঘটে যায়। এটা থেকে পরিস্কার হয়, ক্রিকেটার হিসেবে আপনি কতটা আবেগ দিয়ে খেলেন। দলের জন্য কতটা জিততে চান।'

মন্তব্য