kalerkantho

বিশ্বকাপের আগেই সুস্থ হয়ে উঠছেন তাসকিন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৩ মার্চ, ২০১৯ ১৯:৩২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিশ্বকাপের আগেই সুস্থ হয়ে উঠছেন তাসকিন

মন্দভাগ্য কাকে বলে সেটা তাসকিন আহমেদ খুব ভালো করেই বুঝেছেন। একের পর এক চোটে আক্রান্ত হয়ে ২০১৮ সালটাই তার ক্যারিয়ার থেকে হারিয়ে গেছে। জাতীয় দলের বাইরে ছিলেন প্রায় ৯ মাস। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগকে (বিপিএল) বেছে নিয়েছিলেন ফেরার মঞ্চ হিসেবে। দুর্দান্ত পারফর্মেন্স দেখিয়ে আবারও চোটে পড়েন। অনেকদিন পর হাসি ফিরেছে তাসকিনের মুখে। লম্বা পুনর্বাসনপ্রক্রিয়া শেষে আজ তিনি রানিং শুরু করেছেন।

গত বিপিএলের ৬ষ্ঠ আসরে বল হাতে আগুন ঝরিয়েছেন তাসকিন। তুলে নিয়েছেন ২২ উইকেট; যা টুর্নামেন্টে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। সিলেট সিক্সার্স প্লে অফ খেলতে পারলে তাসকিনই হয়তো সেরা উইকেট শিকারী হতেন। এমন দুর্দান্ত পারফর্মেন্স দেখে ডাক পড়ে জাতীয় দলে। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট এবং ওয়ানডে সিরিজে খেলার স্বপ্নে যখন তাসকিন বিভোর; তখনই আবার চোটের হানা! নিউজিল্যান্ড সফরের পাঁচ দিন আগে পাওয়া চোটে সব যেন এলোমেলো হয়ে যায়!

প্রায় দেড় মাসের পুনর্বাসন শেষে আজ থেকে হালকা অনুশীলন শুরু করা তাসকিন এখন স্বপ্ন দেখছেন বিশ্বকাপের। মিরপুর স্টেডিয়ামে আজ একগাল হাসি নিয়ে তিনি বলেন, 'কোনো সমস্যা ছাড়াই আধঘণ্টা দৌড়ালাম। শঙ্কা ছিল, একটু ব্যথা লাগতে পারে। লাগেনি। প্রায় দেড় মাস পর রানিং করেছি বলে একটু কষ্ট হয়েছে। মনটা এখন ভালো লাগছে, সমস্যা ছাড়া রানিং সেশন শেষ হয়েছে। এখন ব্যাটিং করব। ভালো অগ্রগতি হচ্ছে। এভাবে চলতে থাকলে এ মাসেই বোলিং শুরু করব ইনশাল্লাহ।'

২০১৫ বিশ্বকাপে দেশের হয়ে সর্বোচ্চ ৯ উইকেট নেওয়া তাসকিন নিজের বিশ্বকাপ স্বপ্ন নিয়ে আরও বলেন, 'বিশ্বকাপ খেলা আমার স্বপ্ন। জানি না কাল সকালে ঘুম থেকে উঠে কী হবে। এত বেশি চিন্তা করছি না। এখন একটাই ভাবনা, শতভাগ ফিট হয়ে বিশ্বকাপ দলে সুযোগ পাওয়া। ২০১৫ বিশ্বকাপ খেলেছি। বিশ্বকাপে খেলার শান্তিটাই অন্য রকম। বিশ্বকাপের স্মৃতিগুলো মনে পড়লে খুবই ভালো লাগে। দোয়া চাই, যেন শতভাগ ফিট থেকে বিশ্বকাপে খেলতে ও ভালো করতে পারি। বিশ্বকাপে বাংলাদেশ ভালো করলে সেটার অনুভূতি অন্য রকম হবে।'

মন্তব্য