kalerkantho


টাইগারদের ঐতিহাসিক জয় নিয়ে সন্দেহ : পাকিস্তানের বিরুদ্ধে নিন্দার ঝড়

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১৭:২৫



টাইগারদের ঐতিহাসিক জয় নিয়ে সন্দেহ : পাকিস্তানের বিরুদ্ধে নিন্দার ঝড়

১৯৯৯ সালের ৩১ মে তারিখটি বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসে স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে যুগের পর যুগ। ওই দিন বিশ্বকাপ ম্যাচে ওয়াসিম আকরাম, সাঈদ আনোয়ার, ওয়াকার ইউনিস, ইনজামাম, মঈন খান, সাকলাইন মুশতাক, শোয়েব আখতারদের নিয়ে গড়া ভয়ংকর পাকিস্তানকে হারিয়ে দিয়েছিল। ৬২ রানের সেই ঐতিহাসিক জয়ে এবার কালিমা লেপন করার অপ প্রয়াসে নেমেছে পাকিস্তান! দেশটির সাবেক বোর্ড প্রধান টাইগারদের এই জয়কে 'সন্দেহজনক' বলেছেন!

৯৯ বিশ্বকাপে ফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার কাছে ধরাশায়ী হয়েছিল পাকিস্তান। এই পরাজের জেরে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড সভাপতির পদ খোয়ান খালিদ মেহমুদ। তবে দেড় যুগ পর নিজের ক্যারিয়ার নিয়ে আলোচনা করতে গিয়ে ফাইনালের চেয়ে বাংলাদেশ ম্যাচটাই বেশি গুরুত্ব পেল তার কাছে। বিশ্বকাপের সবচেয়ে বড় অঘটন বলে এখনো আলোচিত সেই ম্যাচ নিয়ে পাকিস্তানের টিভি চ্যানেল জিও নিউজের অনুষ্ঠান 'স্কোরে' মেহমুদ আপত্তিকর এই মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, সে বছর ১২ এপ্রিল ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচে পাকিস্তানের হারে খেলোয়াড়দের 'সন্দেহজনক' আচরণ দেখেই নাকি বিশ্বকাপের ঠিক আগ মুহূর্তে মিয়াঁদাদ পদত্যাগ করেছিলেন। তারও একই সন্দেহ জেগেছিল। ওয়াসিম আকরামের অধীনে বাংলাদেশের কাছে পাকিস্তানের হারও অমন 'সন্দেহজনক'। তার ধারণা, পাকিস্তান দলের যে স্কোয়াড তাতে এমন হার প্রশ্ন তুলবেই। এই অঘটন তাকে চিন্তিত ও রাগান্বিত করেছিল। এত এত তারকা থাকার পরও পাকিস্তানের অমন হারের সঠিক তদন্ত হওয়া উচিত ছিল বলেই মনে করেন মেহমুদ।

ওই বিশ্বকাপে বাংলাদেশের অধিনায়ক ছিলেন আমিনুল ইসলাম বুলবুল। ঐতিহাসিক ম্যাচটিতে বাংলাদেশের করা ২২৩/৯ রানের জবাবে মাত্র ১৬১ রানে অল-আউট হয়ে গিয়েছিল পাকিস্তান। ২৭ রান এবং ৩ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা হয়েছিলেন খালেদ মাহমুদ সুজন। এমন ম্যাচ নিয়ে পাকিস্তানিদের উস্কানিমূলক মন্তব্যে নিন্দার ঝড় উঠেছে সোশ্যাল সাইটে। বাংলাদেশের ক্রিকটপ্রেমীরা বলছেন, যে দেশের প্রায় প্রতিটি ক্রিকেটার ম্যাচ পাতানো, মাদক গ্রহণ এবং নারী বিষয়ক কেলেঙ্কারিতে জড়িত; সেই দেশ অন্যদের অর্জনকে কীভাবে সন্দেহ করে? ও ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন।



মন্তব্য