kalerkantho


দারুণ লড়াইয়ে জয় খুলনা টাইটান্সের

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৩ জানুয়ারি, ২০১৯ ২২:২৪



দারুণ লড়াইয়ে জয় খুলনা টাইটান্সের

পয়েন্ট তালিকার তলানির দুই দলের লড়াই ছিল আজ। জয়-পরাজয় টুর্নামেন্টে তাদের অবস্থানের খুব একটা পরিবর্তন ঘটাতে পারবে না। তবে যেহেতু এটা প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেট; মাঠে খেলা গড়াতেই হবে। আজ শুধু খেলা গড়ালই না; বড় স্কোর হলো; ম্যাচে দেখা দিল উত্তেজনা। সব উত্তেজনার শেষে ২১ রানে ম্যাচ জিতে নিল মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল খুলনা টাইটান্স।

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে ১৭১ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নেমে ইনিংসের প্রথম বলেই লিটন দাসকে বোল্ড করে দেন শুভাশিস রায়। আউট হওয়ার ধরণে হতবাক হয়ে যান ইনফর্ম লিটনও। এরপর সাব্বির আর আফিফ ই্নিংস মেরামতে নামেন। কিন্তু ১ চার ১ ছক্কায় ১২ বলে ১৩ করে সাব্বির রহমান তাইজুলের বলে ধরা পড়েন ওয়াইজের হাতে। ১৬ বলে ১১ রানের মন্থর ইনিংস খেলা অলক কাপালি তাইজুলের বলে ইয়াসিরের তালুবন্দি হন। এই ঘূর্ণি তারকার তৃতীয় শিকার ২৩ বলে ২৯ রান করা আফিফ হোসেন ধ্রুব। এরপর মোহাম্মদ নওয়াজ আর নিকোলাস পুরানের ব্যাটে ঘুরে দাঁড়ায় সিলেট সিক্সার্স।

২০ বলে ৩ চার ১ ছক্কায় পুরানকে বদলি ফিল্ডার শরিফুলের তালুবন্দি করে ৮১ রানের জুটি ভাঙেন ওয়াইজ। তাইজুল ক্যাচ ছাড়ায় একই ওভারে জীবন পান সিলেট অধিনায়ক তানভীর। ৩৪ বলে ৫৪ রান করা মোহাম্মদ নওয়াজকে ফিরিয়ে ম্যাচে মোড় ঘুরিয়ে দেন জুনায়েদ খান। অসাধারণ দক্ষতায় ক্যাচটি তালুবন্দি করেন শান্ত। শেষ ওভারে সিলেটের দরকার ছিল ২৬ রান। ইয়াসির শাহর বলে ক্যাচ দিয়ে ফিরেন সোহেল তানভীর (৫)। নির্ধারিত ২০ ওভারে সিলেট সিক্সার্স ৭ উইকেটে ১৪৯ রান তুলতে সক্ষম হয়। ২১ রানে ম্যাচ জিতে নেয় খুলনা টাইটান্স।

এর আগে দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ১৭০ রান তোলে খুলনা টাইটান্স। ব্যাট হাতে দলকে দুর্দান্ত সূচনা এনে দেন ব্রেন্ডন টেইলর এবং জুনায়েদ সিদ্দিকী। দুজনে গড়েন ৭৩ রানের উদ্বোধনী জুটি। শেষ পর্যন্ত ২৩ বলে ৩৩ করা জুনায়েদকে কট অ্যান্ড বোল্ড করে জুটি ভাঙেন অল-রাউন্ডার অলক কাপালি। আল-আমিন ২ রান করে নওয়াজের বলে লিটন দাসের কল্যাণে স্টাম্পড হয়ে যান। নাজমুল হোসেন শান্ত (১৭) দ্বিতীয় শিকার হন নওয়াজের। একপ্রান্ত আগলে দারুণ খেলছিলেন টেইলর। তার ৩১ বলে ৪ বাউন্ডারি ২ ওভার বাউন্ডারিতে ৪৮ রানের ইনিংস থামে অলক কাপালির বলে জাকেরের তালুবন্দি হয়ে।

বল হাতে সিলেট সিক্সার্সের অল-রাউন্ডার অলক আরও বিধ্বংসী হয়ে ওঠেন। তার করা ১৩তম ওভারের প্রথম বলে বোল্ড করে দেন আরিফুল হককে (০)। দুই বল পরেই স্টাম্পড হয়ে যান খুলনা অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ (৩)। ৪ ওভারে ২২ রানে ৪ উইকেট নিয়েছেন এই লেগ স্পিনার। তাসকিন আহমেদের বলে ৭ বলে ৮ রান করা ইয়াসির শাহ সাব্বিরের তালুবন্দি হন। এই তরুণ পেসারের দ্বিতীয় শিকার ২৫ বলে ৩৮ করা ডেভিড ওয়াইজ। ইনিংসের শেষ বলে রান-আউট হন জুনায়েদ খান। নির্ধারিত ২০ ওভারে খুলনার সংগ্রহ দাঁড়ায় ৯ উইকেটে ১৭০ রান।

এর আগে দিনের প্রথম ম্যাচে মেহেদী মিরাজের রাজশাহী কিংসকে ৬ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থান দখল করেছে মুশফিকুর রহিমের চিটাগং ভাইকিংস।



মন্তব্য