kalerkantho


সাকিব-রাসেলের ব্যাটে উড়ে গেল সিলেট সিক্সার্স

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ জানুয়ারি, ২০১৯ ১৭:৩৭



সাকিব-রাসেলের ব্যাটে উড়ে গেল সিলেট সিক্সার্স

দুর্দান্ত জয়ে আবারও শীর্ষস্থান আরও সংহত করে ফেলল ঢাকা ডায়নামাইটস। সিলেট সিক্সার্সের বিপক্ষে আজ ৬ উইকেটের দাপুটে জয় পেয়েছে তারকাবহুল দলটি। এই জয়ে ব্যাট হতে অপরাজিত হাফ সেঞ্চুরি করে বড় অবদান রেখেছেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। শেষদিকে ব্যাটে ঝড় তোলা আন্দ্রে রাসেলের অবদানও কম নয়। সাকিবের এই ঝড়ো ইনিংসে শেষ পর্যন্ত ম্লান হয়ে গেল ইনজুরি আক্রন্ত ডেভিড ওয়ার্নারের অপরাজিত হাফ সেঞ্চুরি।

১৫৯ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে সিলেটের বোলিং তোপের মুখে পড়ে ঢাকার ব্যাটসম্যানরা। দলীয় ২৩ রানে মিজানুর রহমানকে (১) বোল্ড করে শুরুটা করেন মোহাম্মদ ইরফান। সেই ২৩ রানেই তাসকিনের বলে সাব্বিরের তালুবন্দি হন সুনিল নারাইন (২০)। ঢাকার দূর্গে তৃতীয় আঘাত নেপালি স্পিনার সন্দ্বীপ লামিচানের। বোল্ড হয়ে ফিরেন রনি তালুকদার (১৩)। এরপরেই অধিনায়ক সাকিব আর রাসুলির ব্যাটে ঘুরে দাঁড়ায় ঢাকা। ৩০ বলে হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন সাকিব। ১৫ বলে ১৯ করা রাসুলি ইরফানের শিকার হলে ভাঙে ৭৫ রানের চতুর্থ উইকেট জুটি।

সাকিব আল হাসানের সঙ্গী হন ক্যারিবীয় হার্ডহিটার আন্দ্রে রাসেল। পঞ্চম উইকেটে এই জুটিতেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় ঢাকা। সিলেটের দেওয়া ১৫৯ রানের টার্গেটে পৌঁছতে ঢাকা ডায়নামাইটসের লাগে মাত্র ১৭ ওভার। জয় আসে ৬ উইকেটের। ৪১ বলে ৮ চার ২ ছক্কায় ৬১* রানে অপরাজিত থাকেন সাকিব। আর রাসেল অপরাজিত থাকেন ২১ব লে ২বাউন্ডারি এবং ৪ ওভার বাউন্ডারিতে করা ৪০* রানে।

এর আগে টসে জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে ২০ ওভারে ৮ উইকেটে ১৫৮ রান তুলে সিলেট সিক্সার্স। আগের ম্যাচের মতোই বিধ্বংসী সূচনা করেছিলেন লিটন দাস। তবে ইনিংস বড় হয়নি। ১৪ বলে ৪ বাউন্ডারি আর ১ ওভার বাউন্ডারিতে ২৭ রান করে এই তরুণ হার্ডহিটার সাকিব আল হাসানের বলে এলবিডাব্লিউ হন। তার সঙ্গী সাব্বির নিজেকে এখনও খুঁজে পাননি। আন্দ্রে রাসেলের শিকার হওয়ার আগে করেন ১৬ বলে ১১ রান। তবে অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার এবং আফিফ হোসেনের দারুন ব্যাটিংয়ে এই বিপদ দ্রুত কাটিয়ে ওঠে সিক্সার্সরা।

তৃতীয় উইকেটে ৪০ রানের জুটি গড়েন ওয়ার্নার-আফিফ। ১৭ বলে ১৯ করে আফিফ আউট হলে ভাঙে এই জুটি। তবে একপ্রান্তে অবিচল ওয়ার্নার ব্যাটিং তাণ্ডব চালিয়ে যান। সাকিব আল হাসানের বলে নাইমের তালুবন্দি হওয়ার আগে তার সংগ্রহ ৪৩ বলে ৮ চার ১ ছক্কায় ৬৩ রান। অল-রাউন্ডার অলক কাপালি আজ রুবেল হোসেনের বলে 'ডাক' মারেন। শেষদিকে জাকের আলী ১৮ বলে ২৫ রানের ক্যামিও খেলেন। নির্ধারিত ২০ ওভারে সিলেটর সংগ্রহ দাঁড়ায় ৮ উইকেটে ১৫৮ রান । ২টি করে উইকেট নেন সাকিব এবং অ্যান্ড্রু ব্রিচ।

দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে সন্ধ্যা ৭টায় সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হবে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স এবং খুলনা টাইটান্স।



মন্তব্য