kalerkantho


লিস্টারের বিপক্ষে সবগুলো গোলই আর্সেনালের

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৩ অক্টোবর, ২০১৮ ১৫:১৩



লিস্টারের বিপক্ষে সবগুলো গোলই আর্সেনালের

ছবি : এএফপি

পিয়েরে-এমেরিক অবামেয়াংয়ের দুই গোলের সাথে মেসুত ওজিলের এক গোলে সোমবার রাতে লিস্টার সিটির বিপক্ষে প্রিমিয়ার লিগে ৩-১ গোলের দারুণ জয় পেয়েছে আর্সেনাল। এই জয়ে সব মিলিয়ে ১০ ম্যাচে টানা জয়ের ধারা অব্যাহত রাখলো গানার্সরা।

অথট এমিরেটস স্টেডিয়ামে হেক্টর বেলেরিনের আত্মঘাতি গোলে উনাই এমেরির দল প্রথমার্ধে পিছিয়ে পড়েছিল। কিন্তু ইনজুরি কাটিয়ে দলে ফিরেই সামনে থেকে নেতৃত্ব দেয়া জার্মান তারকা ওজিল প্রথমার্ধের শেষ মিনিটে দলের পক্ষে সমতা ফেরান। এরপর অবামেয়াংয়ের দ্বিতীয়ার্ধে দ্রুত দুই গোলের সুবাদে জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে স্বাগতিকরা। অবামেয়াংয়ের দ্বিতীয় গোলেও এসিস্ট করেছেন ওজিল। বদলি বেঞ্চ থেকে ৬১ মিনিটে উঠে আসা গ্যাবন স্ট্রাইকার অবামেয়াং ৬৩ ও ৬৬ মিনিটে পরপর দুই গোল করে ২০০৭ সালের পর প্রথমবারের মত সব ধরনের প্রতিযোগিতায় আর্সেনালকে টানা ১০ম জয় উপহার দিয়েছেন।

এ পর্যন্ত এবারের মৌসুমে গানার্সরা ৩০ গোল করেছে। এই জয়ে টেবিলের শীর্ষে থাকা ম্যানচেস্টার সিটির থেকে মাত্র দুই পয়েন্ট পিছিয়ে ৯ ম্যাচে ২১ পয়েন্ট নিয়ে আর্সেনাল চতুর্থ স্থানে উঠে এসেছে। একইসাথে এই জয়ের মাধ্যমে এমেরির পূর্বসুরী আর্সেন ওয়েঙ্গারের অধীনে আর্সেনালের স্বর্ণালী সময়ের স্মৃতিও যেন সকলের মনে ভেসে উঠেছে।

লিস্টার বস ক্লডে পুয়েল প্রথমার্ধে রব হোল্ডিংয়ের বিপক্ষে একটি হ্যান্ডবলের কারনে পেনাল্টি থেকে বঞ্চিত হবার বিষয়টি কোনভাবেই মানতে পারছেন না। রেফারির ওই সিদ্ধান্তের বিপক্ষে দারুণ হতাশা ব্যক্ত করেছেন পুয়েল। জেমি ভার্দির ফ্লিকের বল ডি বক্সের ভিতর হোল্ডিং লাফ দিলেও স্পষ্টভাবেই তার হাতে লাগে। কিন্তু রেফারি ক্রিস্টোফার কাভানাগ খেলা চালিয়ে যাবার নির্দেশ দেন। ৩১ মিনিটে উইলফ্রিড এডিডির পাস থেকে বেন চিলওয়েলের লো শট বেলেরিনের পায়ে লেগে জালে জড়ালে আত্মঘাতি গোলের লজ্জায় পড়ে আর্সেনাল। এই গোলে হতবাক আর্সেনালকে পরমুহূর্তেই গ্রানিট জাকার ফ্রি-কিক থেকে সমতায় ফিরতে পারতো। কিন্তু লিস্টার গোলরক্ষক কাসপার শিমিচেল কর্ণারের মাধ্যমে তা রক্ষা করেন। ৪৫ মিনিটে ডান দিক থেকে বেলেরিনের ক্রস থেকে ওজিল দারুণ গোলে সমতা ফেরান।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে জেমস ম্যাডিসনের কর্ণার থেকে এনডিডি শক্তিশালি হেড লিস্টারকে এগিয়ে দিতে পারেনি। কিন্তু ৬১ মিনিটে অবামেয়াংকে বদলি বেঞ্চ থেকে উঠিয়ে নিয়ে এসে এমেরি দারুণ এক চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেন, যার প্রতিদান দারুণভাবে দিয়েছেন এই গ্যাবন তারকা। ৬৩ মিনিটে স্প্যানিশ বেলেরিনের লো ক্রস থেকে প্রথমে আর্সেনালকে এগিয়ে দেন অবামেয়াং। এর দুই মিনিট পর ওজিলের দারুণ এক পাস থেকে অবামেয়াং মৌসুমের অষ্টম গোল করেন।

ব্যস্ত সপ্তাহের শুরুটাও এই জয় দিয়ে দারুণভাবে করলো আর্সেনাল। স্পোর্টিং লিসবনের বিপক্ষে ইউরোপা লিগের ম্যাচ খেলতে মঙ্গলবার পর্তুগালে যাবে গানার্সরা। এরপর রোববার ক্রিস্টাল প্যালেসের সাথে লিগ ম্যাচে অংশ নিবে। ম্যাচ শেষে এমেরি বলেছেন, ‘আমরা খুবই খুশী, কারন আমরা ধীরে ধীরে এগিয়ে যাচ্ছি। আমাদের এই ধারা বজায় রাখতে হবে। নিজেদের সংঘবদ্ধ রেখে হৃদয় দিয়ে খেলতে হবে। আজকের পারফরমেন্স দুর্দান্ত ছিল, একইসাথে মেসুতও দারুণ খেলেছে।'

মৌসুমের শুরুতে ওয়েঙ্গারের স্থানে আর্সেনালে যোগ দেবার পর থেকে এমেরির অধীনে দল দারুণভাবে এগিয়ে যাচ্ছে। বিশেষ করে লিগের শুরুতে পরপর দুই ম্যাচে পরাজিত গানার্সরা যেভাবে পরের সাত ম্যাচে নিজেদের ফিরিয়ে এনেছে তাতে করে এমেরির ওপর সমর্থকদের আস্থাও ফিরে এসেছে। যদিও এমেরি এখনই এসব বিষয়ে কিছুই বলতে রাজী নন। তার মতে, এখন গুরুত্বপূর্ণ হলো সকলকে শান্ত থাকা ও একসাথে এগিয়ে যাওয়া। জয়ের ধারাবাহিকতা বজায় রাখা কঠিন। যখন কোন দল এগিয়ে যায় তখন তাদের উপর প্রত্যাশার দারুণ চাপ থাকে। সব মিলিয়ে নিজেদের ধরে রাখাটাও জরুরী।

 



মন্তব্য