kalerkantho


শচীনের কথা শুনে কেঁদে ফেলেন শ্রীশান্ত

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ অক্টোবর, ২০১৮ ১১:৩০



শচীনের কথা শুনে কেঁদে ফেলেন শ্রীশান্ত

ভারতীয় ক্রিকেটে এক কলঙ্কজনক অধ্যায় রচনা করেছিলেন শান্তাকুমারণ শ্রীশান্ত। একইসঙ্গে বড় তারকা হওয়ার সকল সম্ভাবনা তার মাঝে ছিল। কিন্তু ২০১৩ সালে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) স্পট ফিক্সিং jকেলেঙ্কারি করে শ্রীশান্তের ক্রিকেট ক্যারিয়ার শেষ হয়ে যায়। সেই শ্রীশান্ত সম্প্রতি রিয়েলিটি শো 'বিগ বস' এ এসে সেই সময়ের পুরনো একটি গল্প শেয়ার করেছেন ভজন সম্রাট খ্যাত অনুপ জালোটার সঙ্গে। 

অনেক লড়াই করেও আর ক্রিকেটে ফেরার অনুমতি পাননি শ্রীশান্ত। ফিল্ম দুনিয়ায় ক্যারিয়ার গড়ার দৌঁড়ে আছেন। শ্রীশান্ত ২০০৭ সালের টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্য। ২০১১ সালের বিশ্বকাপেও শ্রীশান্ত ছিলেন ভারতীয় দলে। সেবার বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হয়েছিল ঘরের মাঠে। ১৯৮৩ সালের পরে সেবার বিশ্বকাপ এসেছিল ভারতের ঘরেই। অধিনায়ক ছিলেন 'ক্যাপ্টেন কুল' মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। কিন্তু কী সেই ঘটনা?

শ্রীশান্ত বলেছেন, 'শচীন টেন্ডুলকারকে নিয়ে একটি ঘটনা আমি শেয়ার করতে চাই। ২০১১ সালে বিশ্বকাপ জয়ের ১/২ বছর পরের ঘটনা। একটা ইন্টারভিউ চলছিল। যিনি সঞ্চালনা করছিলেন, তিনি সবার কথা জিজ্ঞাসা করছিলেন। সবার নাম উচ্চারণ করছিলেন। কিন্তু আমার নাম নেননি। সাক্ষাৎকার যখন একেবারে শেষের পথে, তখন শচীন টেন্ডুলকার আমার নাম উচ্চারণ করে বলে ওঠেন, শ্রীশান্ত বড় ভূমিকা নিয়েছিল বিশ্বকাপে। আমি শচীনের কথা শুনে কেঁদে ফেলেছিলাম।'

এতেই বোঝা যায়, বিশ্ব ক্রিকেটের কিংবদন্তি হলেও সতীর্থদের প্রতি সমান নজর ছিল টেন্ডুলকারের। তার ক্রিকেট ঈশ্বর হয়ে ওঠার পেছনে এটাও অন্যতম কারণ।



মন্তব্য