kalerkantho


অবশেষে স্পেনের মাটিতে ইংল্যান্ডের জয়

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ অক্টোবর, ২০১৮ ১৫:০২



অবশেষে স্পেনের মাটিতে ইংল্যান্ডের জয়

ছবি : এএফপি

রাহিম স্টার্লিংয়ের জোড়া গোলে শেষ পর্যন্ত স্পেনের মাটিতে দীর্ঘ ৩১ বছর পরে জয় পেল ইংল্যান্ড। সোমবার নেশন্স লিগে স্বাগতিক স্পেনের বিপক্ষে ইংল্যান্ডের ৩-২ গোলের জয়কে তাই বর্তমান সময়ে ইংল্যান্ডের সবচেয়ে মর্যাদাকর জয় হিসেবে দেখা হচ্ছে। এই নেশন্স লিগেই প্রথম ম্যাচে স্পেনের কাছে ২-১ গোলে পরাজিত হয়েছিল ইংল্যান্ড।

স্পেনের মাটিতে নতুন কোচ লুইস এনরিকের অধীনে উজ্জীবিত স্বাগতিকদের হারানোটা মোটেই সহজ ছিলনা। কিন্তু গ্যারেথ সাউথগেটের নেতৃত্বে স্পেনের বিপক্ষে দুর্দান্ত এই জয়টিকে ২০০১ সালে মিউনিখে জার্মানীকে ৫-১ গোলে হারানোর পর ইংল্যান্ডের সবচেয়ে সেরা জয় হিসেবে ইতোমধ্যেই বিবেচনা করা হচ্ছে।

মিডফিল্ডার সাওল নিগুয়েজের পরিবর্তে মাঠে নামার এক মিনিট পর, ৫৮ মিনিটে পাকো আলকাসার গোল করে স্পেনকে ম্যাচে টিকিয়ে রাখার স্বপ্ন দেখান। ৯৮ মিনিটে সার্জিও রামোস দ্বিতীয় গোল পরিশোধ করলেও তা স্প্যানিশদের পরাজয় আটকানোর জন্য যথেষ্ঠ ছিলনা।

সোমবারের রাতটা ছিল দুই দলের জন্য মর্যাদা রক্ষার রাত। বিশেষ করে দুই দলের দুই কোচের সামনে ছিল ভিন্ন ভিন্ন চ্যালেঞ্জ। ইংল্যান্ডের হয়ে ১১০২ দিন পর গোল পেয়েছেন স্টার্লিং, ১৬ মিনিটে দলকে এগিয়ে দেয়া থেকেও যা ছিল বিশেষ এক অনুভূতি। ২২ মিনিট পর স্টার্লিং নিজের দ্বিতীয় গোল পেলে তা নিজের অনুভূতিকে অন্য এক উচ্চতায় নিয়ে যায়। সাউথগেট বলেছেন, একটি বিষয় এখানে আমি বলতে চাই যে ম্যাচে প্রথম গোল করার পর তার মধ্যে আরো গোলের আকাঙ্খা থাকে। আজ সে কাজটা দ্রুতই করতে পেরেছে।

সর্বশেষ ১৯৮৭ সালে স্পেনের বিপক্ষে অ্যাওয়ে ম্যাচে জিতেছিল ইংল্যান্ড। যে কারনে কালকের জয়টা অনেকটা প্রতিশোধের মিশনও ছিল। গড় বয়স মাত্র ২৩ নিয়ে ইংল্যান্ডের যে তরুণ দলটি বিশ্বকাপের জন্য বেছে নেয়া হয়েছিল, সাউথগেট তাদের নিয়েই দীর্ঘ ৩১ বছর পর সফল হলো। এটাই সাউথগেটকে বেশী উজ্জীবিত করে তুলেছে।

এই জয়ে উয়েফা নেশন্স লিগের গ্রুপ-৪ এ এখনো শীর্ষে থাকার আশা টিকিয়ে রাখলো ইংল্যান্ড। তিন ম্যাচ পর ৬ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপের শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে স্পেন। দুই পয়েন্ট কম নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ইংল্যান্ড। দুই ম্যাচে অপর দল ক্রোয়েশিয়ার সংগ্রহ মাত্র ১ পয়েন্ট।

স্টার্লিংয়ের দুই গোলের মাঝখানে অপর গোলটি করেছেন মার্কোস রাশফোর্ড। প্রথমার্ধের ৪৫ মিনিটের মধ্যেই তিন গোল হজম করে স্পেন অনেকটাই বিচলিত হয়ে পড়ে, যার থেকে পুরো ম্যাচে আর বেরিয়ে আসতে পারেনি। নিজেদের মাঠে প্রথমার্ধেই তিন গোল খাবার ইতিহাস এটাই স্পেনের জন্য প্রথম। ম্যাচ শেষে সাউথগেট বলেছেন, ‘আমরা আজ যেভাবে খেলেছি এটা ভবিষ্যতে আমাদের যেকোন দলের জন্য রেফারেন্স হয়ে থাকবে'



মন্তব্য