kalerkantho


চাপ মাথায় নিয়েই অজিদের বিপক্ষে মাঠে নামবে পাকিস্তান

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ অক্টোবর, ২০১৮ ২০:২০



চাপ মাথায় নিয়েই অজিদের বিপক্ষে মাঠে নামবে পাকিস্তান

ছবি : এএফপি

দুবাইতে সিরিজের প্রথম টেস্টে অনেকটাই প্রাধান্য বিস্তার করে খেলে পাকিস্তান। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার শেষ ২ উইকেট ফেলতে ব্যর্থ হলে ৮ উইকেটে ৩৬২ রানে ম্যাচ অবিশ্বাস্যভাবে ড্র করে অস্ট্রেলিয়া। মঙ্গলবার আবুধাবিতে স্মিথ-ওয়ার্নারবিহীন ভাঙাচোরা অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে শুরু হতে চলা দ্বিতীয় টেস্টে পাকিস্তানের ওপর প্রত্যাশার চাপ থাকবে- স্বীকার করলেন দলটির সিনিয়র ব্যাটসম্যান আজহার আলী।

আজহার বলেন, 'পাকিস্তান নাকি অস্ট্রেলিয়া, কোন দলের ওপর বেশি চাপ থাকবে আমি বলতে পারি না। তবে স্বাগতিক দল এবং জনগণ অবশ্যই আমাদের জয় প্রত্যাশা করবে। সুতরাং একটা চাপ থাকবে। যাই হোক যেটা সব সময়ই বলা হয়ে থাকে এখানকার কন্ডিশন আমাদের পক্ষে এবং আমাদেরকে তা কাজে লাগাতে হবে।'

তিনি আরো বলেন, 'প্রত্যেক ম্যাচেই ভিন্নধর্মী চাপ থাকে এবং এটা সিরিজ নির্ধারণী হওয়ায় এ ম্যাচে অবশ্যই চাপ থাকবে। স্বাগতিক হওয়ায় অবশ্যই এ ম্যাচটি আমাদের জিততে হবে এবং এটা চিন্তা করেই আমরা মাঠে নামব। আমরা ইতিবাচক ক্রিকেট খেলার চেষ্টা করব এবং আশা করছি ফল আমাদের পক্ষে থাকবে।'

প্রথম টেস্টে ফিল্ডিং করার সময় চোট পেয়ে দ্বিতীয় ম্যাচ থেকে নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছেন নিয়মিত ওপেনার ইমাম-উল-হক। সুতরাং ওপেনিং জুটিতে পরিবর্তন আনতে বাধ্য পাকিস্তান। সে ক্ষেত্রে বিকল্প হিসেবে ওপেনিং ব্যাটসম্যানের ভূমিকায় দেখা যেতে পারে আজহারকে। ৩৩ বছর বয়সী এই ব্যাটসম্যান সর্বশেষ ওপেন করেছিলেন ২০১৬ সালের আগস্টে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওভাল টেস্টে। ওই বছরেই তিনি দুইবাইয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ট্রিপল সেঞ্চুরি এবং মেলবোর্নে ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকান।

এরপর গত বছর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই টেস্টে দলের হয়ে তিন নম্বরে ব্যাটিং করেছেন তিনি। গত সপ্তাহে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথম টেস্টেও একই পজিশনে ব্যাটিং করেছেন আজহার। সীমিত ওভারের বিশষেজ্ঞ ফকর জামানকেও ডেকে আনতে পারে পাকিস্তান। সুযোগ দিতে পারে প্রথম টেস্ট খেলার। যদিও সর্বশেষ এশিয়া কাপে তার পারফর্মেন্স ছিল দুর্বল। আসরের ৫ ম্যাচে অংশ নিয়ে দুটিতেই কোন রান পাননি তিনি। সর্বমোট রান করেছেন মাত্র ৫৬।

আজহার বলেন, 'পাকিস্তান দলের হয়ে খেলার সময় একজনকে যে কোনো কিছুর জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। আমি সব সময় এই কথাটি বিশ্বাস করি। টিম ম্যানেজমেন্ট বা অধিনায়ক যখন কোন সিদ্ধান্ত নেবেন সেটি পালন করার জন্য আমি সব সময় প্রস্তত আছি। '

প্রথম টেস্টে জয়লাভ করতে না পেরে পাকিস্তান দলের খেলোয়াড়রা হতাশ হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, 'আমরা মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়িনি, তবে হতাশ হয়েছি। কারণ গোটা ম্যাচে আমরা প্রভাব বিস্তার করে খেলেছি। তারপরও জিততে ব্যর্থ হয়েছি। আমার মনে হয়, শেষ পর্যন্ত লড়াই চালিয়ে যাওয়ার মানসিকতার কারণে অষ্ট্রেলিয়াকেও সাধুবাদ জানানো উচিত।'

সেরা ফর্মে না থাকার পরও নিজের ব্যাটিংয়ের প্রতি মনোযোগী আছেন উল্লেখ করেছেন আজহার। সর্বশেষ চার টেস্ট থেকে মাত্র ৯৫ রান করা এই ব্যাটসম্যান বলেন, 'একজন ব্যাটসম্যান সব সময় রান করার চেষ্টা করেন। তবে সে যখন রান পান না তখন সেটিকে অবশ্যই ভাল মনে করতে পারেন না। তবে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে নিজের ব্যাটিংয়ের প্রতি মনোযোগ দেয়া। সেই সঙ্গে মনে রাখতে হবে, একবার ভালোভাবে শুরু করতে পারলে পরিস্থিতি পাল্টে যাবে এবং ফের এগিয়ে যাবার পথ সুগম হবে।'



মন্তব্য