kalerkantho


৪-১ গোলে রেডিয়্যান্টের বিরুদ্ধে বসুন্ধরা কিংসের অনবদ্য জয়

নীলফামারী প্রতিনিধি    

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২১:৫৫



৪-১ গোলে রেডিয়্যান্টের বিরুদ্ধে বসুন্ধরা কিংসের অনবদ্য জয়

জয় দিয়েই অভিষেক হলো বসুন্ধরা কিংসের। প্রিমিয়াম লিগের প্রস্তুতিতে ৪-১ গোলে পরাজিত করেছে প্রমিয়াম লিগে চার বারের চ্যাম্পিয়ন মালদ্বীপের রেডিয়্যান্ট ক্লাবকে।

নীলফামারীর শেখ কামাল স্টেডিয়ামে আজ শুক্রবার (২১ সেপ্টেম্বর) বিকেলে অনুষ্ঠিত এই প্রীতি ফুটবল ম্যাচটির পুরো সময়টাই মাঠজুড়ে ছিল দু'পক্ষের টান টান উত্তেজনা। সে উত্তেজনার বেশিরভাগ সুযোগ গ্রহণ করেছে বসুন্ধরা কিংস।

নিউ রেডিয়্যান্ট ক্লাব বার বার আক্রমণে গেলেও সুযোগ করে নিতে পারেনি কিংস ডিফেন্সের কাছে। এমনকি একটি পেলান্টির সুযোগও কাজে লাগাতে পারেনি তারা। এভাবে একে একে অনেক সুযোগ হারিয়েছে প্রিমিয়াম লিগের চ্যম্পিয়ন ওই দলটি। তবে গোলের সুযোগ হারালে রেডিয়্যান্টের গোলরক্ষক হাসান আবুল হাকিম কিংসের একাধিক দুর্দান্ত আক্রমণ ঠেকিয়েছেন কৌশলী ভূমিকায়।

পুরো গ্যালারিতে দর্শক ঢলের মধ্য দিয়ে ৯০ মিনিটের খেলাটি উদ্বোধন করেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক নাজিয়া শিরিন, পুলিশ সুপার মুহাম্মদ আশরাফ হোসেন, পৌর মেয়র দেওয়ান কামাল আহমেদ, বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের নির্বাহী সদস্য ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক আরিফ হোসেন মুন, বসুন্ধরা কিংস সভাপতি ইমরুল হাসান, সাধারণ সম্পাদক মিনহাজুল ইসলাম মিনহাজ প্রমুখ।

খেলা শুরু হয় বিকেল ৪টা ৫ মিনিটে। শুরুতেই দুই দলের নৈপুণ্যতা নজর কাড়ে দর্শকদের। ২০ মিনিটের মাথায় পায়ে পায়ে বলের জাদুতে কিংসের পক্ষে প্রথম গোলটি করেন বিল ফোর্ড। তিনি হাইতির ন্যাশনাল দলের থেকে এসেছেন কিংসে। প্রথম গোলের চার মিনিটের মাথায় আরেকটি (দ্বিতীয়) গোল করেন কিংসের ক্যাপ্টেন তৌহিদুল আলম সবুজ।

দ্বিতীয়ার্ধের খেলা শুরু হয় ৫টা ১১ মিনিটে। শুরুর ছয় মিনিটের মাথায় আরো একটি গোল করেন বসুন্ধরা কিংসের ৩১ নম্বর জার্সির ওসমান জ্যালো। তিনি গাম্বিয়া থেকে এসেছেন কিংসের দলে। এর ১০ মিনিটের মাথায় আরো একটি গোল করেন ছয় নম্বর জার্সির মাহমুদ ইমন।

চার গোলের বোঝা নিয়ে সমতায় ফেরার চেষ্টায় মরিয়া হয়ে ওঠে নিউ রেডিয়্যান্ট। প্রথমার্ধে একটি পেনাল্টির সুযোগ পেয়েও লক্ষ্যভ্রষ্ট কিক ছোড়েন দলের ক্যাপ্টেন আলি ফাসির। এভাবে প্রথমার্ধ ও দ্বিতীয়ার্ধে একাধিক সুযোগ হারিয়ে দ্বিতীয়ার্ধের ১৯ মিনিটের মাথায় ৯ নম্বর জার্সির কিপসন অথুরি একটি গোল করেন। শেষাবধি দলটির সমতায় ফেরার আপ্রাণ চেষ্টা চলেও ঠেকিয়ে দেয় কিংস'র ডিফেন্স।

খেলা শেষে নিউ রেডিয়্যান্ট ক্লাবের দলনেতা সাবাব মোহাম্মদ সংবাদ সম্মেলনে বলেন, 'এটি একটি ফ্রেন্ডলি ম্যাচ। দলের ইয়াং সদস্যদের নিয়ে আমরা লড়েছি মাঠে। ম্যাচটিতে জয়ের আশা নিয়েই আমরা খেলেছিলাম।'

বসুন্ধরা কিংসের কোচ অস্কার ব্রুজোন বলেন, 'ফ্রেন্ডলি ম্যাচের মধ্য দিয়ে আমরা নিজেদেরকে প্রস্তুত করছি। দীর্ঘ বিরতির পর মাঠে নেমে মালদ্বীপের নিউ রেডিয়্যান্টের বিপক্ষে খেলে জয় এসেছে। দুই দলেই স্ব-স্ব দেশের জাতীয় ও বিদেশি নামকরা খেলোয়াড়  রয়েছেন, তাঁরা সবাই অভিজ্ঞ। এর আগে আমি যেসব ক্লাবের কোচ ছিলাম সেসব ক্লাব প্রতিটি খেলায় জয় লাভ করেছে। এবারের প্রীতি ম্যাচে তেমনটিই ঘটেছে।'

বসুন্ধরা কিংসের সাধারণ সম্পাদক মিনহাজুল ইসলাম মিনহাজ বলেন, 'ম্যাচটি উপভোগ্য হয়েছে সবার কাছে। প্রিমিয়াম লীগের আগে বসুন্ধরা কিংস'র হোম ভেনু শেখ কামাল স্টেডিয়ামে জয়ের মধ্য দিয়েই অভিষেক হলো কিংসের দলের।' তিনি বলেন, মালদ্বীপের নিউ রেডিয়্যান্ট ক্লাবটিও বাংলাদেশের ফুটবল দর্শকদের কাছে পরিচিত নাম। গত মৌসুমে এএফপি কাপে ঢাকায় খেলে গেছে দলটি। সে সময়  বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে আবাহনীকে ১-০ গোলে হারায় তারা। পরে নিজেদের মাঠে আকাশি দলের হয়ে নীল দলকে হারায় ৫-১ গোলে।

জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক আরিফ হোসেন মুন বলেন, 'শেখ কামাল স্টেডিয়ামে গত ২৯ আগস্ট একটি আন্তর্জাতিক ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছিল। সেবার  মাঠে দর্শকের ঢলে আমরা সফল হয়েছিলাম। ওই অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে আমরা এবারো সফল হয়েছি।'

এর আগে বসুন্ধরা কিংস'র ওই হোম ভেনুতে দুই দিনের অনুশীলন করেছিল কিংসের দল। অপরদিকে মালদ্বীপের নিউ রেডিয়্যান্ট ক্লাবটি রংপুর সেনানিবাসের একটি মাঠে অনুশীলন করেছে।

ম্যাচটি খেলতে গত মঙ্গলবার বেলা ২টা ৪০ মিনিটে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে জেলার সৈয়দপুর বিমানবন্দরে পৌঁছায় বসুন্ধরা কিংস'র ২৪ সদস্যের দলটি।

গত বুধবার বেলা ৫টা ৪৬ মিনিটে নভো এয়ারের একটি বিমানে সৈয়দপুর বিমান বন্দরে পৌঁছে ২৫ সদস্যের মালদ্বীপের নিউ রেডিয়্যান্ট ক্লাবের ফুটবল দল। উভয় দল রংপুরের নর্থ ভিউ হোটেলে অবস্থান নেয়।

বসুন্ধরা কিংসের সমম্বয়কারী সালেক উর রহমান সুমন জানান, প্রীতি ওই ম্যাচে দলের হয়ে খেলেছেন দেশের বাইরের চারজন সফল খেলোয়াড়। রাশিয়া বিশ্বকাপে অংশ নেওয়া কোস্টারিকার ফরোয়ার্ড ড্যানিয়েল কলিনড্রেসের সঙ্গে ছিলেন গাম্বিয়ান স্ট্রাইকার উসমান জ্যালো। গাম্বিয়া চ্যাম্পিয়ন লীগের খেলোয়াড় তিনি।

এ ছাড়া ছিলেন হাইতি ন্যাশনাল টিমের খেলোয়াড় বিল ফোর্ড। আফগানিস্থানের মার্সিও ছিলেন দলে। মালদ্বীপের শক্তিশালী নিউ রেডিয়্যান্ট ক্লাবে দলের কোচ হিসেবে ছিলেন আহমেদ রশীদ। ওই দেশের জাতীয় দলের শক্তিশালী ছয়জন খেলোয়াড় ছিলেন দলটিতে। প্রিমিয়াম লীগের র‌্যাংকিংয়ে এগিয়ে থাকা দলটিতে তাদের দেশের বাইরের খেলোয়াড়ও ছিলেন।

তিনি বলেন, প্রিমিয়াম লীগের ২৪টি খেলার মধ্যে ১২টি অনুষ্ঠিত হবে বসুন্ধরা কিংস'র হোম ভেনু নীলফামারীর শেখ কামাল স্টেডিয়ামে। প্রিমিয়াম লীগে প্রথমবারের মতো অংশ নেয় বসুন্ধরা কিংস।

ম্যাচের আয়োজন করেছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন ও জেলা ক্রীড়া সংস্থা। একই আয়োজনে গত ২৯ আগস্ট নীলফামারীর ওই শেখ কামাল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়েছিল আরেকটি আন্তর্জাতিক  ফুটবল ম্যাচ। সে সময় বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল খেলেছিল শ্রীলঙ্কার জাতীয় ফুটবল দলের বিপক্ষে।

আন্তর্জাতিক ওই প্রীতি ম্যাচের মধ্যদিয়ে অভিষেক হয়েছিল শেখ কামাল স্টেডিয়ামের। ২১ হাজার ৬৫০ ধারণ ক্ষমতার স্টেডিয়ামে দর্শকের ঢল নেমেছিল সেদিন। শুক্রবারও স্টেডয়ামের গ্যালারি ছিল কানায় কানায় পূর্ণ।



মন্তব্য