kalerkantho


১৬ রানেই দুই উইকেট হারিয়ে বিপাকে টাইগাররা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৮:১০



১৬ রানেই দুই উইকেট হারিয়ে বিপাকে টাইগাররা

এক ওপেনার লিটন দাসের বিদায়ের চার বল পরেই ষষ্ঠ ওভারের প্রথম বলেই বুমরাহ-র বলে স্লিপে থাকা শিখর ধাওয়ানের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে বিদায় নিলেন বাংলাদেশের আরেক ওপেনার নাজমুল হাসান শান্ত।

এর আগে ভারতীয় পেসার ভুবনেশ্বর কুমারের বাউন্সারে মারতে গিয়ে ক্যাচ তুলে দিয়ে বিদায় নেন বাংলাদেশের ওপেনিং ব্যাটসম্যান লিটন দাস। মারার বলই দিয়েছিলেন ভুবনেশ্বর কুমার। ফাঁদে পা দিয়ে হাঁকাতে গিয়েই ক্যাচ তুলেছিলেন লিটন। ডিপ ব্যাকওয়ার্ডে থাকা ফিল্ডার কেদার যাদব দৌড়ে এসে দারুণ এক ক্যাচ নিলে প্রথম উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের সুপার ফোরের প্রথম ম্যাচটি বাংলাদেশ সময় বিকাল সাড়ে ৫টায় মাঠে গড়িয়েছে। একাধিক পরিবর্তন নিয়ে মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে পাজরের ব্যথা নিয়ে খেললেও আফগানিস্তানের বিপক্ষে বিশ্রামে ছিলেন মুশফিকুর রহিম। এছাড়া মোস্তাফিজুর রহমানকেও রাখা হয় বিশ্রামে। দুজনই ফিরছেন ভারতের বিপক্ষে ম্যাচে। 

থাকছেন না মুমিনুল হক। ওপেনিংয়ে লিটন দাসের সঙ্গী আফগানিস্তান ম্যাচের মতোই তরুণ নাজমুল হাসান শান্ত থাকবেন। নিজের অভিষেক ম্যাচে দারুণ পারফরম্যান্স করলেও মোস্তাফিজের ফেরার ফলে বাদ পড়েছেন আবু হায়দার রনি।
 
পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচে বোলিংয়ের সময় হঠাৎ করেই ইনজুরির কবলে পড়েন ভারতের অলরাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়া। পিছনের দিকে পেশিতে টান লেগে এশিয়া কাপ শেষ এই অলরাউন্ডারের। 

একই দিনে পরিবর্তিত ফিল্ডার হিসেবে মাঠে নামা আরেক অলরাউন্ডার অক্ষর প্যাটেল বাম হাতের আঙুলে চোট পান। সে সঙ্গে চোট পেয়েছেন পেসার শার্দুল ঠাকুরও। এ দুজনও আর খেলবেন না এশিয়া কাপের বাকি ম্যাচগুলো।

এশিয়া কাপের বাকি ম্যাচগুলোর জন্য হার্দিক পান্ডিয়া, শার্দুল ঠাকুর এবং অক্ষর প্যাটেলের পরিবর্তে তিন ক্রিকেটারের জায়গায় দলে ফিরেছেন দীপক চাহার, বাঁ-হাতি স্পিনার রবীন্দ্র জাদেজা ও সিদ্ধার্থ কাউল।

বাংলাদেশের একাদশ: লিটন কুমার দাস, নাজমুল হোসেন শান্ত, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মদ মিঠুন, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মেহেদি হাসান মিরাজ, মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক), রুবেল হোসেন ও মোস্তাফিজুর রহমান।

ভারতের একাদশ: রোহিত শর্মা (অধিনায়ক), শিখর ধাওয়ান, আম্বাতি রাইডু, দিনেশ কার্তিক, মহেন্দ্র সিং ধোনি (উইকেটরক্ষক), কেদার যাদব, রবীন্দ্র জাদেজা, কুলদ্বীপ যাদব, যুজবেন্দ্র চাহাল, ভুবনেশ্বর কুমার ও জসপ্রীত বুমরাহ।



মন্তব্য