kalerkantho


আশরাফুলকে নিয়ে যা বললেন প্রধান নির্বাচক নান্নু

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১২ আগস্ট, ২০১৮ ২১:২৫



আশরাফুলকে নিয়ে যা বললেন প্রধান নির্বাচক নান্নু

ক্রিকেট অপারেশন্সের প্রধান আকরাম খান বলেছিলেন, আশরাফুলের জন্য জাতীয় দলের দরজা খোলা আছে। তবে ঘরোয়া ক্রিকেটে আগে নিজের সামর্থ্য প্রমাণ করতে হবে লিটল মাস্টারকে। নিষেধাজ্ঞা থেকে আগামীকাল সোমবার মুক্তির অপেক্ষায় থাকা এই ক্রিকেটারকে নিয়ে আকরাম খানের সুরেই বললেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু। তবে, এই মুহূর্তে জাতীয় দলে অ্যাশের জন্য কোনো জায়গা নেই বলেও জানিয়ে দিয়েছেন তিনি।

তিন বছরের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ২০১৬ সালের অগাস্টে ঘরোয়া ফেরার সুযোগ পান এই ব্যাটসম্যান। আজ রবিবার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সংবাদমাধ্যমের প্রশ্নের তালিকার প্রধান বিষয় ছিল আশরাফুল। সোমবার থেকেই ফ্র্যাঞ্চাইজি ও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের দরজা খুলে যাচ্ছে অ্যাশের সামনে। বাংলাদেশের সামনেও টানা সিরিজ আছে। তাহলে জাতীয় দলের নির্বাচকেরা কতটুকু ভাবছেন এই তারকাকে নিয়ে?

প্রধান নির্বাচক বললেন, 'সে অনেক ধরেই আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নেই। সুতরাং ঘরোয়া ক্রিকেটে সব ফরম্যাটে তাকে খেলতে হবে। ওর ফিটনেস আন্তর্জাতিক পর্যায়ের জন্য ঠিক আছে কিনা, সেটা দেখতে হবে। সাসপেসশন যাওয়ার পর সব ফরম্যাটে খেলুক, তারপর এক বছর যাওয়ার পর বুঝতে পারব তার ফিটনেস কোন লেভেলে আছে।'

তিনি আরও বলেন, 'এই মুহূর্তে যদি বলতে হয়, তাহলে বলব এই মুহূর্তে দলে কোনো জায়গা নেই। আমাদের যে ফিটনেস লেভেল আছে, এইচপি থেকে শুরু করে 'এ' দল ও জাতীয় দলের ফিটনেসের সাথে সে অ্যাটাচড না। এই জায়গায় আসতে হলে তাকে কিছু সময় দিতে হবে। এই লেভেলটা যদি থাকে, তাহলে চিন্তা করা যাবে। সুতরাং এই মুহূর্তে আমরা চিন্তা ভাবনা করছি না।'

তবে আশরাফুলের জন্য একটি আশার কথাও শুনিয়েছেন একসময়ের তারকা এই ক্রিকেটার, 'বয়স কোনো বিষয় না। যদি ফিটনেস আন্তর্জাতিক মানের হয়, তাহলে যে কোন ক্রিকেটারই আসতে পারে। ফিটনেস জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের পর্যায়ে আনতে হবে। আর পারফরমেন্স অন্যদের তুলনায় অনেক ভালো হতে হবে। কারণ সে যে জায়গায় ব্যাট করে, সে জায়গায় অনেক ক্রিকেটার স্থায়ী হয়ে গেছে। জাতীয় দলের জন্য কোনো ক্রিকেটারকে যদি দেখা হয়, তাকে বিশেষ পারফরম্যান্স করেই আসতে হবে।'

উল্লেখ্য, ২০১৩ বিপিএলে ফিক্সিংয়ে জড়িত থাকায় ২০১৪ সালে তিন বছরের স্থগিত নিষেধাজ্ঞাসহ মোট ৮ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়েছিল আশরাফুলকে। তার আপিলের পর সেই শাস্তি কমিয়ে ২ বছরের স্থগিতসহ ৫ বছরের নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়।



মন্তব্য