kalerkantho


আবারও আসামীর কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হচ্ছে শামিকে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ জুলাই, ২০১৮ ১৬:০৭



আবারও আসামীর কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হচ্ছে শামিকে

স্ত্রী নির্যাতন ইস্যুতে একের পর এক ঘটনায় ফেঁসে যাচ্ছেন ভারতীয় পেসার মোহাম্মদ শামি। বুধবারই ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম তিনটি টেস্টে ভারতীয় দলে ডাক পেয়েছেন তিনি। এই সুখবরের সঙ্গে এল আরেকটি দুঃসংবাদও। কারণ সেদিনই শামির স্ত্রী হাসিন জাহানের অভিযোগের ভিত্তিতে তাকে শমন পাঠিয়েছে আলিপুর আদালত।

গত মে মাসে ভারতীয় দলের সঙ্গে দক্ষিণ আফ্রিকা যাওয়ার আগে দুটি চেক স্ত্রী হাসিনের হাতে দিয়ে গিয়েছিলেন শামি। বলেছিলেন, নিজের গাড়ির কিস্তির টাকা মেটানো ও সংসার চালানোর খরচ এই চেক ভাঙিয়েই তুলতে পারবেন হাসিন। তার কথা অনুসারেই প্রথম চেক ভাঙিয়ে শামির বিএমডব্লু গাড়ির কিস্তির টাকা মিটিয়েছিলেন হাসিন। বাকি ছিল সংসার খরচের জন্য আরও একটি এক লক্ষ টাকার চেক। কিন্তু ব্যাংকে সেটি বাউন্স করে।

ব্যাংক সূত্রে জানা গেছে, সেই চেক ভাঙানোর কয়েকদিন আগেই ভারতীয় পেসার 'স্টপ পেমেন্ট' করে দিয়েছিলেন। এরপরই এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ জানান হাসিন। সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই শামিকে তলব করে আলিপুর আদালত। আগামী ২০ সেপ্টেম্বর তাকে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তাকে এই সংক্রান্ত নোটিশও পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে খবর।

এর আগে গত ৮ মার্চ যাদবপুর থানায় শামির বিরুদ্ধে বিরুদ্ধে বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্ক, শারীরিক অত্যাচার এমনকী বড় ভাইকে দিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ তুলেছিলেন হাসিন। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে ভারতীয় পেসারকে তলব করা হয়েছিল। গত ১৮ এপ্রিল তিন ঘণ্টা তাকে জেরা করা হয় লালবাজারে। তবে হাসিনের আনা সমস্ত অভিযোগই অস্বীকার করেন ভারতীয় পেসার। পালটা অভিযোগ তোলেন, ষড়যন্ত্র করে তাকে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।

চেক বাউন্স করার অভিযোগে আবারও কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হচ্ছে শামিকে। অর্থাৎ, তাদের এই পারিবারিক অশান্তি যে সহজে মিটবে না, সেটা বেশ স্পষ্ট। শামি প্রথমে নিজেদের মধ্যে বিষয়টি মিটিয়ে নিতে চাইলেও রাজি হননি হাসিন। ফলে ঘটনা গড়িয়েছে অনেক দূর।এদিকে স্বামীর সঙ্গে দূরত্ব বাড়ার পরই ফের মডেলিংয়ে ফেরার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন হাসিন। জানা গেছে,  মুম্বাইতে একটি সংস্থার মডেল হিসেবে কাজ করবেন তিনি।



মন্তব্য