kalerkantho


সব হিসাব উল্টে বিশ্বজয়ে প্রস্তুত ক্রোয়েশিয়া-ফ্রান্স

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ জুলাই, ২০১৮ ২০:০৯



সব হিসাব উল্টে বিশ্বজয়ে প্রস্তুত ক্রোয়েশিয়া-ফ্রান্স

ছবি : এএফপি

রাশিয়া বিশ্বকাপ উল্টে দিয়েছে সব হিসাব। গত এক মাস ধরে চলা এই আসরে 'ফেবারিট' বলে কোনো শব্দই যেন ছিল না। প্রায় প্রতিটি ম্যাচ হয়েছে উত্তেজনায় ঠাসা। এখানে যে ভালো খেলবে সেই জিতবে; কোনো ফেবারিটের বালাই নেই। বিদায় নিয়েছে ব্রাজিল, জার্মানি, ইংল্যান্ড, বেলজিয়াম, আর্জেন্টিনার মতো দলগুলো। শিরোপা লড়াইয়ের শেষ দিন আজ। বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায় মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামে বিশ্বজয়ের লক্ষ্যে মুখোমুখি হবে সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স এবং প্রথমবার ফাইনাল খেলা ক্রোয়েশিয়া।

এবারের বিশ্বকাপে সবচেয়ে ফেবারিট ভাবা হয়েছিল ব্রাজিলকে। তিতের এই দলটি ছিল ভয়ংকর। বাছাইপর্বে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়ে সবার আগে বিশ্বকাপ নিশ্চিত করেছে। একটা মিথ হয়ে গিয়েছিল, তিতের ব্রাজিল কোনোদিন হারে না! কিন্তু সেই ব্রাজিলকেই কোয়ার্টার ফাইনালে বিদায় করে দিল তৃতীয় স্থান অর্জন করা বেলজিয়াম। যাদেরকেও এবারের সম্ভাব্য চ্যাম্পিয়ন ভাবা হয়েছিল।

সবচেয়ে চমক জাগানো বিষয় ছিল প্রথম রাউন্ড থেকেই বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়ন জার্মানির বিদায়। এশিয়ার দল দক্ষিণ কোরিয়ার কাছে হেরে গ্রুপ পর্বেই বিদায় নেয় জোয়াকিম লোর দল। ধুঁকতে ধুঁকতে বিশ্বকাপের মূলপর্বে ওঠা আর্জেন্টিনাকে মোটেও ফেবারিট বলা হচ্ছিল না। যথারীতি শেষ ষোলো থেকেই বিদায় নেয় লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনা। তার চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো নিজ দেশ পর্তুগালকেও বেশিদূর নিয়ে যেতে পারেননি।

গ্রুপ পর্ব থেকেই দুর্দান্ত খেলে আসছে ফ্রান্স। তবে 'ফেবারিট'দের আলোয় অনেকটা ঢাকা পড়ে গিয়েছিল দিদিয়ের দেশ্যমের দল। আজ তারা ফাইনাল খেলছে। ঠিক ২০ বছর আগে বিশ্বকাপ জয়ের ইতিহাস ডাকছে তাদের। ১৯৯৮ বিশ্বকাপের ফ্রান্স দলের অধিনায়ক এবং বর্তমান কোচ দিদিয়ের দেশ্যম বলেছেন, 'যতটা পেরেছি আমরা দলকে সেরাভাবে প্রস্তুত করেছি। আমরা অবশ্যই শান্ত, আত্মবিশ্বাসী এবং মনোযোগী থাকব-ফাইনালের জন্য ছেলেদের তৈরি করতে আমরা এই তিনটি শব্দে দৃষ্টি দিয়েছি।'

অন্যদিকে প্রথমবারের মতো ফাইনাল খেলছে ক্রোয়েশিয়া। এবারের বিশ্বকাপে ফ্রান্সকে সম্ভাব্য শিরোপাজয়ী হিসেবে যতটা মূল্যায়ন করা হয়েছিল, তার সিকিভাগও করা হয়নি ক্রোয়েটদের। তবু তারা ফাইনালে এসে ইতিহাস গড়তে প্রস্তুত। কোচ জ্লাটকো দলিচ বলেছেন, 'জয়-পরাজয় যাই হোক, ক্রোয়েশিয়ায় ফাইনাল খেলা অনেক বড় একটা ঘটনা।  এটা আমাদের শক্তি ও প্রেরণা জোগাবে। খেলোয়াড়দের কাছে আশা করব, ম্যাচে যদি তারা তাদের সর্বোচ্চটা দিতে না পারে তাহলে তারা যেন আমাকে বলে।'



মন্তব্য