kalerkantho


কলম্বিয়াকে চমকে দিতে চায় জাপান

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ জুন, ২০১৮ ১৫:৪৭



কলম্বিয়াকে চমকে দিতে চায় জাপান

দলের তারকা মিডফিল্ডার হামেস রদ্রিগুয়েজের ইনজুরি নিয়ে দু:শ্চিন্তায় রয়েছে কলম্বিয়া। আর সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে এশিয়ান পরাশক্তি জাপান প্রথম ম্যাচেই নিজেদের প্রমাণ করতে চায়। আগামীকাল গ্রুপ-এইচ’র ম্যাচে সারানাস্কে এই দুই দল তাদের বিশ্বকাপ মিশন শুরু করতে যাচ্ছে।

বিশ্বকাপ শুরুর মাত্র ৭১ দিন আগে কোচ ভাহিদ হালিহোজিকের বরখাস্ত করা সত্বেও সমলোচকদের সন্দেহকে উড়িয়ে দিয়ে জাপান এই ম্যাচে কলম্বিয়ার থেকে পূর্ণ তিন পয়েন্ট আদায় করতে বদ্ধ পরিকর।

গত ফেব্রুয়ারিতে বাম পায়ের কাফ ইনজুরিতে আক্রান্ত হয়েছিলেন ২০১৪ ব্রাজিল বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ গোলদাতা হামেস। আর সেই সমস্যা থেকে এখনো পুরোপুরি সুস্থ হয়ে না ওঠায় কালকের ম্যাচে তার খেলা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে।

চার বছর আগে ব্রাজিল বিশ্বকাপে বায়ার্ন মিউনিখের এই এ্যাটাকিং মিডফিল্ডারের হাত ধরেই কলম্বিয়া কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করেছিল। ২৬ বছর বয়সী হামেস রাশিয়া বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে ৬টি গোল করেছেন ও চারটিতে এ্যাসিস্ট করেছেন। এদিকে দলের আরেক মিডফিল্ডার উইলমার বারিয়সও ইনজুরির সাথে লড়ছেন। ২০০২ সালের বিশ্বকাপে কাজ করা জাপানের সাবেক কোচ ফিলিপ ট্রোসিয়ার মনে করেন বিশ্বসেরা কোচ হোসে মরিনহোর অধীনে খেললেও জাপান গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় এড়াতে পারবে না।

বার্তা সংস্থা এএফপি’র সাথে সাক্ষাতকারে ট্রোসিয়ার বলেছেন, এপ্রিলে ভাহিদ হালিহোজিকের বরখাস্তের পরে জাপানের নক আউট পর্বে যাবার কোনো সম্ভাবনাই নেই। এমনকি তারা যদি মরিনহো কিংবা আর্সেন ওয়েঙ্গারের অধীনেও খেলতে নামে তাহলেও তাদের সামনে এগিয়ে যাওয়া কঠিন হবে।

ভাহিদ হালিহোজিকের বরখাস্তের পরে তার স্থানে জাপানিজ এফএ টেকনিক্যাল পরিচালক আকিরা নিশিনোকে বিশ্বকাপ দলের দায়িত্ব দেয়। ৬৩ বছর বয়সী নিশিনোর জে-লিগের সমৃদ্ধ অভিজ্ঞতা রয়েছে। কিন্তু জাতীয় পর্যায়ে তিনি অনুর্ধ্ব-২০ ও অনুর্ধ্ব-২৩ দলের সাথে কাজ করেছেন। গ্রুপের অপর দুটি দল হলো রবার্ট লিওয়ানোদোস্কির পোল্যান্ড ও সেনেগাল। যে কারনে নক আউট পর্বে যেতে হলে জাপানের শুরুটা অবশ্যই ভাল হতে হবে।

চার বছর আগে গ্রুপ পর্বে কলম্বিয়ার কাছে ৪-১ গোলে বিধ্বস্ত হয়েছিল জাপান। ম্যাচটিতে কলম্বিয়ান ফরোয়ার্ড জ্যাকসন মার্টিনেজ দুই গোল করেছিলেন। সেই তিক্ত অভিজ্ঞতাকে পিছনে ফেলে অন্তত ভাল কিছু করার প্রত্যয়ে মাঠে নামবে এশিয়ান জায়ান্টরা। ঐ ম্যাচে জয়ী হয়ে কলম্বিয়া শেষ ১৬ নিশ্চিত করেছিল। অন্যদিকে একটি ম্যাচেও জয় না পাওয়া জাপানের বিদায় নিশ্চিত হয়েছিল।

জাপানীজ অধিনায়ক মাকোতো হাসেবে বলেছেন, ঐ ম্যাচের স্মৃতি আমরা মনে করতে চাই না। এরপর দীর্ঘ সময় অতিবাহিত হয়েছে। আমাদের গ্রুপে তিনটি প্রতিপক্ষই কঠিন। কিন্তু তারা কেউই বর্তমান চ্যাম্পিয়ন নয়। সে কারনেই আমাদেরও সুযোগ রয়েছে।

বিশ্বকাপের আগে প্রীতি ম্যাচে সুইজারল্যান্ড, ঘানা ও ইউক্রেনের কাছে পরাজিত হবার পরে জাপান প্যারাগুয়েকে ৪-২ গোলে পরাজিত করেছিল। ম্যাচটিতে মিডফিল্ডার তাকাশি ইনুয়ি দুই গোল করেন। অন্যদিকে মার্চে ফ্রান্সকে ৩-২ গোলে পরাজিত করার আগে মিশর ও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে গোলশুন্য ড্র করেছে কলম্বিয়া।



মন্তব্য