kalerkantho


সব দোষ কালো জার্সির!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ জুন, ২০১৮ ২০:৪৪



সব দোষ কালো জার্সির!

ছবি : এএফপি

শনিবার রাতেই বিশ্বকাপ মিশন শুরু করেছে আর্জেন্টিনা। নবাগত দল আইসল্যান্ডের বিপক্ষে প্রত্যাশার ধারেকাছেও যেতে পারেনি লিওনেল মেসির দল। মেসির পেনাল্টি মিস আর আইসল্যান্ডের দুর্দান্ত রক্ষণে ১-১ গোলের ড্র নিয়ে মাঠ ছেড়েছে আকাশী-নীল জার্সিধারীরা। না, ভুল বলা হলো। মেসিরা গতকাল আকাশী-নীল জার্সি পরেননি। পরেছিলেন কালো রঙের জার্সি। যেটা ইতিমধ্যেই চক্ষুশূল হয়ে গেছে ভক্তদের!

রাশিয়া বিশ্বকাপে মেসিদের হোম জার্সি ছিল আগের মতোই আকাশী নীল। অন্যদিকে অ্যাওয়ে জার্সি এবার হয়ে গেল কালো রঙের। জার্সির উপর দিকে রয়েছে নীল রঙের ডোরাকাটা ডিজাইন। গতবার ব্রাজিল বিশ্বকাপে গাঢ় নীল রঙের জার্সি পড়ে ফাইনাল খেলেছিল মেসিরা। সেই জার্সি রাশিয়া বিশ্বকাপে বাতিল করেছে আর্জেন্টাইন ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন। বরং আইসল্যান্ডের জার্সিতেও দেখা গেল নীল-সাদার ছোঁয়া।

ভক্তদের ক্ষেত্রে সব সময়ই জার্সি একটা বড় বিষয়। দেশের পরিচিতিই হয়ে যায় জার্সি দিয়ে। কিন্তু নিজেদের পরিচিত জার্সি বাদ দিয়ে আইসল্যান্ডের বিপক্ষে খেলতে নালতে হল মেসি-মাসচেরানোদের। দেখে মনে হয়নি আর্জেন্টিনা খেলছে। বরং আইসল্যান্ডকেই আর্জেন্টিনা বলে ভুল হয়ে যাচ্ছে। প্রথম ম্যাচেই সেই আইসল্যান্ডের বিপক্ষে ১-১ গোলে থেমে গেল আর্জেন্টিনা। ভক্তরা তাই এই জার্সিকে 'আনলাকি' হিসেবে অভিহিত করেছে।

ক্লাব ফুটবলে হোম এবং অ্যাওয়ে জার্সি বেশি ব্যবহার দেখা যায়। কিন্তু আন্তর্জাতিক ম্যাচে হোম ও অ্যাওয়ে জার্সি থাকলেও তুলনামূলক ব্যবহার কম। যদি বিপক্ষের জার্সির রঙ প্রায় এক হয়ে যায় তখন পরিবর্তন করা হয়। যেমন ব্রাজিলকে একবার নীল জার্সি ও সাদা প্যান্ট পরে খেলতে দেখা গিয়েছিল। ২০০২ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে এই জার্সিতে মাঠে নেমেছিল ৫ বারের বিশ্বজয়ীরা। এছাড়া জার্মানির পরিচিত সাদা-কালো জার্সি ছাড়াও রয়েছে কালো এবং সবুজ রঙের জার্সি।



মন্তব্য