kalerkantho


২১ বছর আগের বিশ্বরেকর্ড ভাঙলেন ১৭ বছরের কিউই অল-রাউন্ডার

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ জুন, ২০১৮ ১৭:৪১



২১ বছর আগের বিশ্বরেকর্ড ভাঙলেন ১৭ বছরের কিউই অল-রাউন্ডার

বিশ্বরেকর্ডের মালিক অ্যামেলিয়া কের। ছবি : এবিসি নিউজ

কদিন আগেই ওয়ানডে ইতিহাসের সর্বোচ্চ দলীয় রানের রেকর্ড গড়েছে নিউজিল্যন্ড। এরপর থেকেই যেন রেকর্ড গড়ার নেশা পেয়ে বসেছে তাদের। ২১ বছর পর মেয়েদের ওয়ানডে ক্রিকেটে দ্বিতীয় ডাবল সেঞ্চুরি এল কিউই ক্রিকেটারের হাত ধরেই। রেকর্ড গড়ার এই নায়িকার নাম অ্যামেলিয়া কের। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের তৃতীয় একদিনের ম্যাচে ওপেন করতে নেমে একাই করেন অপরাজিত ২৩২ রান। ভেঙে দেন ২১ বছর আগে গড়া বেলিন্দা ক্লার্কের বিশ্বরেকর্ড।

প্রায় দুই বছরের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে ১৯টি ওয়ানডে ও ৯টি আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন অ্যামেলিয়া। এতদিন ঝুলিতে ছিল একটি মাত্র হাফ-সেঞ্চুরি। ২০ নম্বর ওয়ানডে ম্যাচে ব্যাট হাতে মাঠে নেমেই আগুন ঝরালেন তিনি। আগের ১৯টি ম্যাচে মাত্র ৯ বার ব্যাট করার সুযোগ পেয়েছিলেন। তাতে কিউই অল-রাউন্ডারের সংগ্রহ ছিল মোট ১৭৪ রান! দশম ইনিংসে টপকে গেলেন নিজের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের মিলিত সংগ্রহকে। 

১৯৯৭ সালে ডেনমার্কের বিপক্ষে অজি ক্লার্ক ২২টি বাউন্ডারির সাহায্যে ১৫৫ বলে অপরাজিত ২২৯ রানের ঝকঝকে ইনিংস খেলেছিলেন। ছেলে ও মেয়েদের মিলিয়ে একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সেটিই ছিল প্রথম ডাবল সেঞ্চুরির রেকর্ড। স্বাভাবিকভাবেই মেয়েদের ওয়ানডে ম্যাচে এতদিন সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত ইনিংসের রেকর্ড ছিল বেলিন্দা ক্লার্কের ঝুলিতেই। দুই দশক পর সেই রেকর্ড নিজের দখলে নিলেন অ্যামেলিয়া। ডাবলিনে কিউই অল-রাউন্ডার ১৪৫ বলের ইনিংসে ৩১টি চার ও ২টি ছক্কা মারেন।

আরও একটি মজার ব্যাপার হলো, বেলিন্দা ক্লার্ক যখন ডাবল সেঞ্চুরি করেন, তখন অ্যামেলিয়ার জন্মই হয়নি! অর্থাৎ ডাবলিনে অ্যামেলিয়া এমন একটি বিশ্বরেকর্ড ভাঙেন, যা গড়া হয়েছিল তার জন্মেরও আগে। মুকুটে এমন রঙিন পালক যোগ করার দিনে অ্যামেলিয়ার বয়স ১৭ বছর ২৪৩ দিন। সব থেকে কম বয়সে ওয়ানডে সেঞ্চুরি করা ক্রিকেটারদের তালিকায় জায়গা করে নিয়েছেন ৪ নম্বরে। ভারতের মিতালি রাজ ১৬ বছর ২০৫ দিনে প্রথম ওয়ানডে সেঞ্চুরি করেছিলেন।

অ্যামেলিয়ার দুর্দান্তডাবল সেঞ্চুরির সুবাদে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথমে ব্যাট করে নিউজিল্যান্ড ৩ উইকেটে ৪৪০ রান তোলে। ১১৩ রান করেন ক্যাসপারেক। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৪৪ ওভারে ১৩৫ রানে অলআউট হয়ে যায় আইরিশ মেয়েরা। ৩০৫ রানের বিশাল ব্যবধানে তৃতীয় ওয়ানডে ম্যাচ জিতে নেয় নিউজিল্যান্ড। কিউইরা ৩-০ ব্যবধানে সিরিজ জেতে। ম্যাচ এবং সিরিজ সেরা হন অ্যামেলিয়া।


মন্তব্য