kalerkantho


হার দিয়ে অজি ক্রিকেটের নতুন যুগের শুরু

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ জুন, ২০১৮ ১৭:১১



হার দিয়ে অজি ক্রিকেটের নতুন যুগের শুরু

ছবি : এএফপি

একটি বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারি যেন বহু সময় পিছিয়ে দিয়েছে ক্রিকেটের অন্যতম শক্তি অস্ট্রেলিয়াকে। স্টিভেন স্মিথ আর ডেভিড ওয়ার্নার ছাড়া মুখ থুবড়ে পড়েছে তারা। তবুও দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স দেখানো ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ) নিজেদের সিদ্ধান্তে অনড়। নতুন ভাবে গড়া এই অজি দলের নবযুগের সূচনা হলো ইংল্যান্ডের বিপক্ষে হার দিয়ে। জাস্টিন ল্যাঙ্গারের অনভিজ্ঞ দলটি ৩ উইকেটে হেরে শুরু করেছে ওয়ানডে সিরিজ।

ওভালে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন নতুন অজি দলনায়ক টিম পেইন। যদিও শুরুটা ভালো হয়নি অজিদের। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই ওপেনরা ট্রেভিস হেড (৫) আউট হয়ে বসেন। অ্যারন ফিঞ্চ (১৯), শন মার্শ (২৪), মার্কাস স্টইনিস (২২) সেট হয়ে উইকেট ছুঁড়ে দিয়ে আসেন।

অধিনায়ক টিম পেইন ১২ রানের বেশি সংগ্রহ করতে পারেননি। অ্যাস্টন এগরকে সঙ্গে নিয়ে ইনিংসের হাল ধরেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। ষষ্ঠ উইকেটের জুটিতে দুজনে মিলে ৮৪ রান যোগ করেন। শেষে ৬৪ বলে ৬২ রান করে সাজঘরে ফেরেন ম্যাক্সওয়েল। তিনি ৪টি চার ও ২টি ছক্কা মারেন।

এগর ৬২ বলে ৪০ রানের সতর্ক ইনিংস খেলে ড্রেসিংরুমের পথ ধরেন। তিনি চারটি বাউন্ডারি মারেন। অভিষেককারী মাইকেল নেসের ৬ রান করে আউট হন। শেষ বেলায় অ্যান্ড্রু তাই দলের ইনিংসে ১৯ রানের যোগদান রাখেন। কেন রিচার্ডসন আউট হন ১ রান করে। ৪৭ ওভারে স্মিথ-ওয়ার্নারহীন অনভিজ্ঞ অস্ট্রেলিয়া ব্যাটিং লাইনআপ ধসে পড়ে ২১৪ রানে। ইংল্যান্ডের মঈন আলি ও লিয়াম প্লাঙ্কেট ৩টি করে উইকেট নেন। দুটি উইকেট নেন আদিল রশিদ। একটি করে উইকেট মার্ক উড ও ডেভিড উইলির।

পাল্টা ব্যাট করতে নেমে ইংল্যান্ডও মাত্র ৩৮ রানের মধ্যে জেসন রয় (০), অ্যালক্স হেলস (৫) ও জনি বেয়ারস্টোর (২৮) উইকেট হারিয়ে বসে। চতুর্থ উইকেটের জুটিতে জো রুট ও ইয়ন মর্গ্যান ১১৫ রান যোগ করেন। রুট ৫০, ও মর্গ্যান ৬৯ রান করে আউট হতেই পুনরায় চাপে পড়ে যায় ইংল্যান্ড। দ্রুত আউট হন জোস বাটলারও (৯)।

১৬৩ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে কোণঠাসা ইংল্যান্ডকে অক্সিজেন সরবরাহ করেন মঈন আলি ও ডেভিড উইলি। মঈন ১৭ ও উইলি অপরাজিত ৩৫ রানের সংক্ষিপ্ত ইনিংস খেলে ইংল্যান্ডের জয় সুনিশ্চিত করেন। প্লাঙ্কেট নটআউট থেকে যান ৩ রান করে। ইংল্যান্ড ৪৪ ওভারে ৭ উইকেটের বিনিময়ে ২১৮ রান তুলে ম্যাচ জিতে যায়। ম্যাচের সেরা হন মঈন আলি।



মন্তব্য