kalerkantho


প্রমাণ করেছি আমাদের ক্রিকেট খেলার ধৈর্য্য আছে : পোর্টারফিল্ড

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ মে, ২০১৮ ২১:৪১



প্রমাণ করেছি আমাদের ক্রিকেট খেলার ধৈর্য্য আছে : পোর্টারফিল্ড

অভিষেক টেস্ট হেরে গেলেও নিজেদের সামর্থের প্রমাণ রেখেছে আয়ারল্যান্ড। ছবি : এএফপি

টেস্ট মর্যাদা দলের প্রাপ্য ছিল তাতে কোন সন্দেহ নেই আয়ারল্যান্ড অধিনায়ক উইলিয়াম পোর্টারফিল্ডের। অভিষেক টেস্টে পাকিস্তানের বিপক্ষে ৫ উইকেটে পরাজিত হওয়া ম্যাচে দলের শিহরণ জাগানো পারফরমেন্সের পর এমন মন্তব্য করেন আইরিশ অধিনায়ক। তিনি মনে করনে অভিষেক ম্যাচেই তার দল টেস্ট মর্যাদা লাভের সত্যতা প্রমান করেছেন। প্রথম ইনিংসে ব্যর্থ হলেও ম্যাচের দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট-বল হাতে দুর্দান্ত লড়াই প্রদর্শন করে আয়ারল্যান্ড। তারপরও ৫ উইকেটে নিজেদের অভিষেক টেস্ট হারতে হয় আইরিশদের। 

ম্যাচ হারলেও দ্বিতীয় ইনিংসে লড়াইকে বড় করে দেখছেন পোর্টারফিল্ড, 'সবচেয়ে বড় ব্যাপার হল আমরা দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট হাতে লড়াই করেছি। যা আমাদের চরিত্রে ছিল। বিশ্বকাপের মতো বড় বড় আসরে এ বিষয়ে কথা হয়। সেটা সব সময়ই জানা থাকে। কিন্তু এ কারণেই বলা হয় টেস্ট ক্রিকেট টেস্ট ক্রিকেটই। এখানে আপনার পরীক্ষা মিলবে এবং প্রথম ইনিংসের পর আমরা সেটা করেছি। ৩৫০ এর কাছাকাছি রান করে প্রমাণ করেছি যে, আমরা পারি এবং ক্রিকেট খেলার ধৈর্য্য আমাদের আছে।'

প্রথম ইনিংসে পাকিস্তানের ৩১০ রানের জবাবে ১৩০ রানেই গুটিয়ে ফল-অনে পড়ে আয়ারল্যান্ড। তবে দ্বিতীয় ইনিংসে কেভিন ও'ব্রায়ানের সেঞ্চুরিতে ৩৩৯ রানের বড় সংগ্রহ পায় আইরিশরা। এতে পাকিস্তানের সামনে ১৬০ রানের জয়ের লক্ষ্য দিতে সক্ষম হয় আয়ারল্যান্ড।  সেই লক্ষ্যে ১৪ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে বসে পাকিস্তান। এমন অবস্থায় নিজেদের অভিষেক টেস্টে অবিস্মরনীয় ফল করার স্বপ্ন দেখতে শুরু করে আয়ারল্যান্ড। কিন্তু শেষ পর্যন্ত স্বপ্ন বাস্তবে রুপ নেয়নি।

দুই তরুণ ব্যাটসম্যান ইমাম উল হকের অপরাজিত ৭৪ ও বাবর আজমের ৫৯ রানের সুবাদে অভিষেক টেস্ট খেলা আয়ারল্যান্ডকে হারাতে সক্ষম হয় পাকিস্তান। বিশ্বকাপের মতো বড় আসরে পাকিস্তান, ইংল্যান্ড এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে বিশ্ব পর্যায়ে খ্যাতি অর্জন করা আয়ারল্যান্ড টেস্ট আঙ্গিানায় প্রবেশ করায় গর্বিত পোর্টারফিল্ড।

তবে ১১তম টেস্ট দল হিসেবে অভিষেক ম্যাচে ফল-অনে পড়েও নিজেদের দক্ষতার প্রমাণ দিয়েছে আয়ারল্যান্ড। তবে ১৪১ বছরের পুরনো রেকর্ড ভাঙ্গতে পারেনি তারা। অস্ট্রেলিয়া বাদে কোনো দলই ক্রিকেট ইতিহাসে নিজেদের অভিষেক টেস্ট জিততে পারেনি। ১৮৭৭ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে নিজেদের অভিষেক টেস্টে জয়ের স্বাদ পেয়েছিল অসিরা। এছাড়া চতুর্থ দল হিসেবে ফল-অনের পর ম্যাচ জয়ের রেকর্ডও হাতছাড়া করল আয়ারল্যান্ড।

আয়ারল্যান্ডের অভিষেক টেস্টে সেঞ্চুরি করে রেকর্ড বুকে নাম লিখিয়েছেন ও'ব্রায়েন। ২১৭ বলে ১১৮ রান করে বিশ্বের চতুর্থ খেলোয়াড় হিসেবে নিজ দেশের অভিষেক টেস্টের সেঞ্চুরি করা ক্রিকেটার তিনি। ও'ব্রায়েনের এমন রেকর্ড সেঞ্চুরিতে দেশের তরুণ প্রজন্ম উৎসাহী বলে মনে করেন আয়ারল্যান্ডের অধিনায়ক পোর্টারফিল্ড। তিনি বলেন, 'আমি নিশ্চিত, কেভিন ও'ব্রায়েনের সেঞ্চুরিতে ক্রিকেটে উৎসাহী হবে শিশুরা। আমি নিশ্চিতভাবে বলতে পারি, পরবর্তী প্রজন্মের জন্য এই ম্যাচটি উদাহরণ হয়ে থাকবে।'



মন্তব্য