kalerkantho


বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্ট খেলতে ভয় পায় অস্ট্রেলিয়া?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১০ মে, ২০১৮ ১৮:৩৭



বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্ট খেলতে ভয় পায় অস্ট্রেলিয়া?

শিরোনাম দেখেই যারা হা হা রব করে উঠবেন, তাদের উদ্দেশ্যে বলের রাখি বাংলাদেশ এবং অস্ট্রেলিয়ার শক্তিমত্তার মাঝে এখনও বিস্তর পার্থক্য বিদ্যমান। তবে এই মুহুর্তে বেশ বেকায়দায় আছে অস্ট্রেলিয়া। নিষিদ্ধ হয়েছেন দলের দুই ব্যাটিং স্তম্ভ স্টিভেন স্মিথ এবং ডেভিড ওয়ার্নার। টিম পেইনের নেতৃত্বে নতুন করে শুরু করতে যাচ্ছে টালমাটাল অজিরা। এসব কারণেই কি বাংলাদেশের বিপক্ষে এই মুহূর্তে টেস্ট কিংবা ওয়ানডে খেলতে চায় না ক্রিকেট বিশ্বের কুলীন শক্তি?

স্মিথ-ওয়ার্নারকে ছাড়া দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের শেষ টেস্ট লজ্জাজনকভাবে হেরেছে অজিরা। এদিকে গত বছর বাংলাদেশ সফরে এসেও টেস্ট হারের দুঃসহ স্মৃতি আছে স্মিথ-ওয়ার্নারদের। সেটা ছিল পূর্ণশক্তির অস্ট্রেলিয়া। এবার অনেকটা নড়বড়ে অস্ট্রেলিয়াকে বাংলাদেশ আরেকটা ধাক্কা দিয়ে দেয় সেটা ক্রিকেট মোড়লদের সম্মানে লাগবে বলেই মন্তব্য করছেন ক্রিকেট সংশ্লিষ্ট অনেকেই।

পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে বাংলাদেশ একবারই অস্ট্রেলিয়ায় গিয়েছে, সেই ২০০৩ সালে। এরপর ২০০৮ সালে বাংলাদেশকে শুধু ওয়ানডে খেলতে ডেকেছিল অস্ট্রেলিয়া। এবার পূর্ণাঙ্গ সিরিজে ২টি টেস্ট এবং ৩টি একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচ হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু এখন নাকি বাংলাদেশকে স্বান্ত্বনা হিসেবে টি-টোয়েন্টি সিরিজে আহ্বান জানিয়েছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। সেটাও আবার আগামী বছর এবং ত্রিদেশীয় সিরিজ।

গত চার বছরে ওয়ানডে এবং টেস্ট ফরম্যাটে অভূতপূর্ব উন্নতি করেছে বাংলাদেশ। বিশেষ করে ওয়ানডেতে টাইগাররা এখন বিশ্বের যে কোনো দলকে চ্যালেঞ্জ জানাতে প্রস্তুত। কিন্তু ক্রিকেটের ক্ষুদ্র ফরম্যাট টি-টোয়েন্টিতে টাইগারদের সামর্থ্যের প্রমাণ এখনও ধারাবাহিক হতে পারেনি। তাছাড়া হার্ডহিটারের সংকটও আছে। অন্যদিকে বেশ কয়েকজন হার্ডহিটারের সৌজন্যে অজিরা এই ফরম্যাটে এগিয়ে। এ কারণেই কি টেস্ট-ওয়ানডে বাদ দিয়ে টি-টোয়েন্টি খেলার আহ্বান জানানো হলো টাইগারদের?


মন্তব্য