kalerkantho


এটাই ক্রিকেট; এখানেই ক্রিকেটের সৌন্দর্য

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২১ মার্চ, ২০১৮ ১৩:৫৮



এটাই ক্রিকেট; এখানেই ক্রিকেটের সৌন্দর্য

ছবি: টুইটার

ছবিটি দেখুন। কে বলবে কয়দিন আগে কী ভয়ানক তোলপাড় হয়ে গিয়েছিল ক্রিকেট বিশ্বে। নিদাহাস ট্রফির মঞ্চে মাহমুদ উল্লাহ রিয়াদ, থিসারার পেরেরারা একে অপরের দিকে তেড়ে গেছেন। থিসারাকে আঙুল উঁচিয়ে শাসিয়েছেন তার হাঁটুর বয়সী সোহান। থিসারাও তাকে গালি দিয়েছেন। কিন্তু ছবিটিতে এসবের কোনো ছাপই নেই!

বাংলাদেশের এবারকার শ্রীলঙ্কা সফর আলাদা মাত্রা পেয়েছিল। শুরুটা করেছিল বাংলাদেশই। নির্দিষ্ট করে বললে মুশফিকুর রহিম। প্রথম ম্যাচে লঙ্কাকে হারিয়ে নাগিন নাচ নেচেছিলেন মুশফিক। এরপর সেই নাচ সারাবিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে। শুরু হয় রেশারেশির। ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে বাংলাদেশ যখন প্রায় হেরে যাচ্ছিল, লঙ্কান ক্রিকেটার এবং সমর্থকেরা তখন নাগিন নেচে বিদ্রুপ করেছিল। এরপর ঘটনাবহুল শেষ ওভারে ম্যাচ জিতে পাল্টা নাগিন নাচ দেয় বাংলাদেশ।

এ কারণেই ফাইনালে শ্রীলঙ্কার সকল সমর্থকেরাই ভারতকে সমর্থন দিয়েছে। শেষ বলে দিনেশ কার্তিকের অলৌকিক ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশের মর্মান্তিক পরাজয়ের পর ভারতীয় ক্রিকেটাররা বিশ্বকাপ জয়ের আনন্দ করেছে। তাদের ল্যাপ অব অনারে শ্রীলঙ্কার পতাকাও দেখা গেছে। কিন্তু এসবই মাঠের বিষয়। ক্রিকেটাররা সবসময় বলেন, মাঠের ঘটনা মাঠেই ফেলে আসেন তারা। মাহমুদ উল্লাহ রিয়াদ এবং থিসারা পেরেরা এই ছবিটি তার উজ্জ্বল প্রমাণ।

চলতি পাকিস্তান সুপার লিগে (পিএসএল) কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটর্সের হয়ে খেলছেন থিসারা এবং মাহমুদ উল্লাহ। জাতীয় দলের হয়ে খেলতে দুজনেই পিএসএলে বিরতি দিয়েছিলেন। নিদাহাস ট্রফি শেষে দুজনেই ফিরে গেছেন সংযুক্ত আরব আমিরাতে। কুয়েটা গ্ল্যাডিয়েটর্সের ভেরিফায়েড টুইটার পেইজ থেকে ছবিটি প্রকাশ করা হয়েছে। মাঠের ঘটনা যাই হোক, ক্রিকেটারদের সম্পর্ক কখনো নষ্ট হয় না। সমর্থকদেরও এমন হওয়া উচিত না। এখানেই ক্রিকেটের সৌন্দর্য।


মন্তব্য