kalerkantho



পাপন ভাই বললেন, চলে এসো: সাকিব

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ মার্চ, ২০১৮ ২০:৫২



পাপন ভাই বললেন, চলে এসো: সাকিব

ছবি: এএফপি

একটি ক্রিকেট ম্যাচে নামতে হলে ক্রিকেটারের যে পরিমাণ ফিটনেসের দরকার হয়; বিশ্রামের দরকার হয় তার শতভাগ হয়তো ছিল সাকিবের। কিন্তু গত কয়েকদিন ধরেই তিনি আকাশে উড়ে বেড়াচ্ছেন। একবার থাইল্যান্ড, সেখান থেকে বাংলাদেশ। আবার দেশ থেকে শ্রীলঙ্কা। শ্রীলঙ্কা থেকে অস্ট্রেলিয়া। সেখান থেকে চিকিত্সা নিয়ে আবার দেশে ফিরলেন। শুরু করলেন অনুশীলন। হঠাৎ করেই তাকে দেখা গেল শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে শুক্রবারের ম্যাচের একাদশে। কীভাবে হলো এতসব?

ইনজুরি আক্রান্ত বাংলাদেশ অধিনায়কের শ্রীলঙ্কা আগমন ছিল যেন 'এলাম, খেললাম, জয় করলাম' এর মত ব্যাপার। ভারতের বিপক্ষে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে হারের পর গতকালের ম্যাচটি বাংলাদেশের জন্য অঘোষিত সেমিফাইনাল ছিল। স্বাগতিক শ্রীলঙ্কার জন্যও তাই। ম্যাচের আগের দিন হুট করেই জানা গেল, সাকিব আবারও শ্রীলঙ্কায় যাচ্ছেন। এই সংবাদ শুনে চিন্তায় পড়ে গেলেন লঙ্কান কোচ হাথুরুসিংহে। অন্যদিকে উল্লাসিত হলো বাংলাদেশ শিবির। সাকিব এসে দলকে নেতৃত্ব দিলেন, পারফর্ম করলেন; দল উঠে গেল ফাইনালে।

আচমকা এসব ঘটনার পেছনের কারণ সাংবাদিকদের কাছে বলেছেন বিশ্বসেরা অল-রাউন্ডার। তার ভাষায়, 'পুরো ব্যাপারটাকে রোলার কোস্টার বলতে পারেন। থাইল্যান্ডে গেলাম, শ্রীলঙ্কায় এলাম, অস্ট্রেলিয়া গেলাম, দেশে ফিরে আবার শ্রীলঙ্কা। আকাশপথে অনেক ভ্রমণ হয়েছে। পাপন ভাই ফোন করেছিলেন। বললেন, তুমি চলে এসো। শুধু বোলিংটাও যদি করে দিতে পারো, অনেক ভালো হবে।'

যেহেতু আঙুলে কোনো ব্যথা অনুভব হচ্ছে না, তাই বিসিবি প্রধানের আহ্বানে সাকিব রাজী হয়ে গেলেন। তাছাড়া দেশকে নেতৃত্ব দেওয়ার একটা আবেগও ছিল। সেটাও তার কথায় ফুটে উঠল, ' হ্যাঁ, আমি সেফ সাইডে থাকতে পারতাম। বলতে পারতাম, ম্যাচ ফিট না, আরও সময় লাগবে। দিন শেষে জেতা দলের অধিনায়ক হওয়াও তো গৌরবের বিষয়।'

সব ঠিক হলেও সমস্যা হয়ে গেল অন্য জায়গায়। আইপিএল খেলার জন্য এরই মধ্যে ভিসার আবেদন করেছেন সাকিব। তার পাসপোর্ট পড়ে আছে ভারতীয় হাইকমিশনে। সেখান থেকে পাসপোর্ট নিয়ে আসার ব্যবস্থাও হয়ে গেল। এবার কলম্বোর টিকিট কাটার পালা। ব্যাগ গোছানোই ছিল। টিকিট হাতে পেয়েই বিমানে উঠে পড়লেন বাংলাদেশের ক্রিকেটের 'পোস্টার বয়'। বৃহস্পতিবার বিকালে শ্রীলঙ্কায় এসে কোনোরকম অনুশীলন ছাড়া শুক্রবার সন্ধ্যায় নেমে পড়লেন মাঠে। বাকীট ইতিহাস...।



মন্তব্য