kalerkantho


'বাঘের মাসী' এবার রাশিয়া বিশ্বকাপের জ্যোতিষী!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ মার্চ, ২০১৮ ২২:৩২



'বাঘের মাসী' এবার রাশিয়া বিশ্বকাপের জ্যোতিষী!

হাব-ভাব চাল-চলন এমনকী চেহারাতেও বাঘের মত হলেও তার প্রধান কাজ ইঁদুর ধরে ধরে খাওয়া। ছলে বলে কৌশলে মালিকের বিছানায় গিয়ে শান্তিতে ঘুমানো। এবার রাশিয়া বিশ্বকাপেও দেখা যাবে বাঘের মাসীকে। হ্যাঁ আসন্ন বিশ্বকাপে 'অফিসিয়াল জ্যোতিষি'র দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে এক বিড়ালকে! এই বিড়াল ফুটবল প্রেমীদের অপরিচিত নয়। গত বছর অনুষ্ঠিত ফিফা কনফেডারেশনস কাপে জোত্যিষগিরি করা বিড়াল একিলিসই এবার রাশিয়া বিশ্বকাপে ভবিষ্যদ্বাণী করবে।

একিলিসের কিন্তু অন্য একটা চাকরিও আছে। সে রীতিমত সেন্ট পিটার্সবার্গের ঐতিহাসিক শীত প্রাসাদে অবস্থিত হেরমিতেজ জাদুঘরে চাকরি করে। একিলিসের জন্ম শীত প্রাসাদেরই হেরমিতেজ জাদুঘরে। তার পূর্বপুরুষ এবং বংশধরেরা এই প্রাসাদেই দিনানিপাত করছে এবং করেছে। এত দিন জাদুঘরের ইঁদুর ধরাই তার চাকরির মূল দায়িত্ব ছিল। তবে এ চাকরির পাশাপাশি এবার তাকে বাড়িত দায়িত্ব হিসেবে জ্যোতিষগিরির দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

হেরমিতেজ জাদুঘরের প্রেস সচিব মারিয়া হালতুনেন বলেছেন, '৪.৭ কেজি ওজনের শক্তিশালী এবং কর্মতৎপর একিলিসকে বেছে নেওয়ার কারণ তার পছন্দ এবং বিশ্লেষণের অসাধারণ ক্ষমতা। এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়েছে এবং কাগজপত্রও সই করা শেষ।'

ফিফা কনফেডারেশনস কাপে একিলিসের পারফরম্যান্স নজর কেড়েছিল ফুটবলবিশ্বের। অবিশ্বাস্যভাবে চার ম্যাচের তিনটিতেই আগেভাগে ঠিক ঠিক ফল বলে দিয়েছিল সে! আয়োজকেরা তাই বিশ্বকাপ ফুটবলেও একিলিসের ওপর আস্থা রেখেছেন। তাকে দ্রুতই আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে পরিচয় করিয়ে দে্য়া হবে। সেই অনুষ্ঠানে তার গলায় পরিয়ে দেওয়া হবে আইডি কার্ড। এই আইডি কার্ড নিয়ে আর দশজন ভক্তের মতোই স্টেডিয়ামে ঢুকতে পারবে একিলিস। 



মন্তব্য