kalerkantho


ম্যান সিটির শিরোপা জয়ে আর্সেনাল বাধা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ১৮:২২



ম্যান সিটির শিরোপা জয়ে আর্সেনাল বাধা

ইংলিশ লিগ কাপের ফাইনালে রবিবার আর্সেনালের মুখোমুখি হতে যাচ্ছে পেপ গার্দিওলার ম্যানচেস্টার সিটি। দারুণ ফর্মে থাকার পরও ম্যাচটি নিয়ে জল্পনানার শেষ নেই সিটিজেন শিবিরে। কারণ কোচ গার্দিওলার তত্বাবধানে জয় পেলে এটিই হবে তাদের প্রথম শিরোপা। 

বার্সেলোনা ও বায়ার্ন মিউনিখের এই সাবেক কোচ ইতোমধ্যে প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা অনেকটাই নিশ্চিত করে ফেলেছেন। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনালেও এক পা দিয়ে রেখেছে সিটিজেনরা। তবে এই মুহুর্তে ওয়েম্বলির ফাইনাল ম্যাচটিই তাদের উদগ্রীব করে রেখেছে। এই মৌসুমে সিটিজেনরা নিজেদের অপ্রতিদ্ব›দ্বী করে তুললেও একটি ট্রফি অন্তত পক্ষে হাতে পেতে চায়। আর ওই পথে এখন তাদের প্রতিবন্ধকতার নাম আর্সেনাল। যদিও মৌসুমের সুচনা থেকে এটি তাদের বিবেচনায় অগ্রাধিকারের ক্ষেত্রে চতুর্থ গুরুত্বপুর্ন শিরোপা।

রবিবারের ম্যাচে সুস্পস্ট ভাবে ম্যানচেস্টার সিটি ফেভারিটের তালিকায় থাকলেও সাম্প্রতিক বছর গুলোতে ক্লাব শিরোপা জয় করাটা অভ্যাসে পরিণত হয়ে গেছে আর্সেন ওয়েঙ্গারের নেতৃত্বাধীন আর্সেনালের কাছে। সর্বশেষ চারটি আসর থেকে তিনবার এই শিরোপাটি ঘরে তুলেছে গানাররা।

গার্দিওলা বলেন,'বার্সেলোনায় প্রথম কাপ জয়ের সময়ও কি আমরা আশা করেছিলাম যে চার বছরে ১৪টি শিরোপা জিতব।' তবে প্রত্যাশার কথা বলে খেলোয়াড়দের কোন রকম চাপে রাখতে চাননা উল্লেখ করে কাতালান এই কোচ বলেন,' আমি অনেক বেশি বাস্তবাদী। মৌসুমের শুরুতে যখন মানুষ আমাদের জিজ্ঞেস করে চারটি শিরোপা জয় করতে পারব কিনা- জবাবে সব সময়ই বলে আসছি আমরা চেস্টা করব। বড় দল হলেই এটি সম্ভব হবে, তা নয়। এখানে লিভারপুল,ইউনাইটে, আর্সেনাল এবং চেলসি সবই বড় দল।'

সিটি যদি পরাজিত হয় তাহলে এর নেতিবাচক প্রভাব পড়বে ইত্তেহাদ স্টেডিয়াম জুড়ে। কারণ ইতোমধ্যে পুচকে দল উইগান অ্যাথলেটিকের কাছে হেরে এফএ কাপ থেকে ছিটকে পড়েছে সিটিজেনরা। যে কারণে অন্তত এই মৌসুমে তাদের চার শিরোপা জয়ের আশা ত্যাগ করতেই হচ্ছে।

এদিকে হাঁটুর ইনজুরির কারণে বিশ্রামে যাওয়া স্ট্রাইকার গ্যাব্রিয়েল জেসুসের ওয়েম্বলিতে ফিরে আসার সম্ভাবনা রয়েছে। গত ডিসেম্বর থেকেই তিনি মাঠের বাইরে রয়েছেন। তবে রাহিম স্টারলিংয়ের ফিটনেস সমস্যা আছে। কালকের ম্যাচে বিকল্প গোল রক্ষক ক্লাদিও ব্রাভোকে মুল একাদশভুক্ত করা হবে বলে নিশ্চিত করছেন গার্দিওলা নিজে। মিডফিল্ডার ফ্যাবিয়ান ডেলফ উইগানের বিপক্ষে ম্যাচে লাল কার্ড দেখার কারণে নিষিদ্ধ রয়েছেন।

এদিকে কিছুদিন আগে লিগ কাপের গুরুত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন ম্যানচেস্টার সিটির কোচ। এটিকে 'শক্তি ক্ষয় করা ছাড়া আর কিছু নয়' বলে মন্তব্য করলেও এটি যে ভবিষ্যৎ পথ চলার পাথেয় হয়ে থাকবে সেটি বলার আর অপেক্ষা রাখেনা। অতীতে হোসে মরিনহোও এমন মন্তব্য করেছিলেন।

ওয়েঙ্গার প্রধান কোচের দায়িত্বে আসার পর এ পর্যন্ত রেকর্ড সংখ্যক সাত বার এফ এ কাপের শিরোপা জয় করেছে আর্সেনাল। দুইবার ফাইনালে গিয়ে পরাজিত হয়েছে। একবার চেলসির কাছে ২০০৭ সালে এবং আরেকবার বার্মিংহ্যাম সিটির কাছে ২০১১ সালে।

ম্যাচ পুর্ব সংবাদ সম্মেলনে আর্সেনালের ফরাসি কোচকে জিজ্ঞেস করা হয়েছিল সিটিকে হারানোর জন্য তাদের প্রধান অস্ত্র কি? জবাবে ওয়েঙ্গার বলেন,' প্রথম কথা হচ্ছে আমরা যে এই ম্যাচে সফল হব সেটি মনে প্রানে বিশ্বাস করি। এজন্য আমরা পুরোপুরি প্রস্তুত,আক্রমনাত্মক ম্যাচ খেলার জন্য সম্ভাব্য সব ধরনের সুযোগগুলো খতিয়ে দেখা হয়েছে।'

ওয়েঙ্গারের মতে তাদের জন্য বড় হুমকি হতে পারেন সার্জিও এগুইরো এবং কেভিন ডি ব্রুইয়ান। ব্যক্তিগতভাবে তাদের আটকানোটা কঠিন বলে মনে করেন আর্সেনাল কোচ। বলেন,' সিটির সেরা শক্তির একটি হচ্ছে ডি ব্রুইয়ান। কারণ তিনি একজন পরিপুর্ন খেলোয়াড়। আমার দৃস্টিতে তিনি একজন আধুনিক মিডফিল্ডার। তিনি কঠিন পরিশ্রম করেন, ডা ও বাঁ পা সমানে চলে, লড়াকু মেজাজের। সবকিছু মিলিয়ে শেষ পর্যন্ত তিনিই বড় হুমকি হতে পারেন। তিনি যদি কিছু একটা ঘটিয়ে ফেলেন তাহলে আমি বিস্মিত হবনা।'

ওয়েঙ্গার বলেন, 'আমরা যদি শুধু (প্রতিপক্ষকে) থামানোর চিন্তা করি তাহলে বলব সেটি সম্ভব নয়। কারণ তাদের (সিটি) প্রচুর খেলোয়াড় রয়েছে। তাই ব্যক্তিগত ভাবে কোন খেলোয়াড়কে না ভেবে দলগতভাবে আমরা তাদের প্রতিহত করার পরিকল্পনা করছি।'



মন্তব্য