kalerkantho



রোমাকে হারিয়ে ফাইনালের লড়াইয়ে টিকে থাকল শাখতার

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ১৭:৪৪



রোমাকে হারিয়ে ফাইনালের লড়াইয়ে টিকে থাকল শাখতার

ছবি: এএফপি

পিছিয়ে পড়েও দুর্দান্ত লড়াইয়ের মাধ্যমে ইতালিয় জায়ান্ট রোমাকে হারিয়েছে ইউক্রেনের চ্যাম্পিয়ন শাখতার দোনেৎস্ক। বুধবার অনুষ্ঠিত চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলর ১ম লেগের লড়াইয়ে স্বাগতিক শাকতার ২-১ গোলে রোমাকে হারিয়ে ইউরো চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কায়ার্টার ফাইনালের পথে সুবিধাজনক অবস্থান নিশ্চিত করেছে। 

ম্যাচে রোমার হয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে অভিষেক পাওয়া তরুণ তারকা তুরস্কেও চেনগিজ আন্ডার ৪১তম মিনিটে গোল করে দলকে এগিয়ে দেন। তবে দ্বিতীয়ার্ধে ফাকুন্ড ফেরেইরা ও ফ্রেডের গোলে স্বস্তির জয় নিশ্চিত করে শাখতার। তিন সপ্তাহ পর স্তাদিও অলিম্পিয়কোয় ফিরতি লেগের ম্যাচের পর নিশ্চিত হবে দল দুটির কোয়ার্টার ফাইনালের ভবিষ্যত।

দীর্ঘ ১০ বছর পর চ্যাম্পিয়ন্স প্রথমবারের মত লিগের শেষ আটে জায়গা খুঁজতে শুরু থেকেই দারুণ খেলা উপহার দেয় রোমা। অপরদিকে শীতকালিন বিরতি থেকে ফের প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচে ফেরা শাখতার এ সময় মধ্য মাঠে কোন সুবিধাই আদায় করতে পারেনি।

এই সুযোগে ম্যাচের ৬ষ্ঠ মিনিটেই গোলের একটি দারুণ সুযোগ পেয়েছিল ইতালিয় জায়ান্টরা। পোস্ট লক্ষ্য করে এডিন ডেকোর নেয়া শটের বলটি দারুণ দক্ষতায় প্রতিহত করেন স্বাগতিক গোল কিপার আন্দ্রি পেতভ। ম্যাচের ২১তম মিনিটে প্রতিআক্রমণ থেকে দ্রুততায় বল নিয়ে ডেকো ফের একটি নিচু শট নেন, যেটি ঝাঁপিয়ে পড়ে প্রতিহত করেন শাখতারের গোলকিপার।

তবে বিরতিতে যাবার ৪ মিনিট আগে আন্ডারের আক্রমণটি আর ঠেকাতে পারেননি ওই গোল কিপার। সতীর্থ বসনিয়ান স্ট্রাইকার ডেকোর থ্রো থেকে বল পেয়ে দারুণ দক্ষতায় জালে জড়িয়ে দেন ২০ বছর বয়সি আন্ডার (০-১)। লিড পেয়ে যায় রোমা।

সম্প্রতি রোমার হয়ে দারুণ পারফর্মেন্স প্রদর্শন করে চলেছেন আন্ডার। ক্লাবের হয়ে সর্বশেষ চার ম্যাচে অংশ নিয়ে এই তার্কিশ গোল করেছেন ৫টি। বিরতির পর অবশ্য রুদ্র মূর্তি ধারণ করে পিছিয়ে পড়া শাখতার। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে দুই দলের চার ম্যাচের মধ্যে তিনটিতেই জয় পাওয়া ক্লাবটি খুব দ্রুতই এর ফসল ঘরে তুলে। ম্যাচের ৫২তম মিনিটে ফুল ব্যাক রাকিটিসকির থেকে বল পেয়ে দারুণ দক্ষতায় সফরকারী ব্রাজিলিয় গোল কিপার এলিসন বেকারকে পরাস্ত করেন ফেরেইরা (১-১)।

সমতা ফিরে পেয়ে উজ্জীবিত স্বাগতিক দল তাদের আক্রমণের ধার আরো বাড়িয়ে দেয়। তবে দারুণ ফর্মে থাকা এলিসন বার বার দেয়াল হয়ে দাঁড়ায় স্বাগতিকদের সামনে। শেষ বাঁশি বাজার ১৯ মিনিট আগে ফ্রেড ঠিকই গোল করে স্বাগতিক শিবিরকে উল্লাসে ভাসান। ফ্রি কিক থেকে দারুণ এক গোল উপহার দেন তিনি (২-১)। আনুমানিক ২০ গজ দূর থেকে তার বাঁ-পায়ের শটের বলটি ক্রসবার ঘেষে জালে আশ্রয় নেয়। এটি ছিল চ্যাম্পিয়ন্স লিগে তার ক্যারিয়ারের প্রথম গোল। 



মন্তব্য