kalerkantho


নিষেধাজ্ঞা থেকে মুক্ত জিম্বাবুয়ে পেসার ভিটরি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২১ জানুয়ারি, ২০১৮ ১৩:১৩



নিষেধাজ্ঞা থেকে মুক্ত জিম্বাবুয়ে পেসার ভিটরি

বোলারদের জন্য আতঙ্কের নাম 'সন্দেহজনক বোলিং'। ক্রিকেট খেলুড়ে প্রায় সব দেশের একাধিক ক্রিকেটার এই সন্দেহের শিকার হয়েছেন। কারও ক্যারিয়ার থমকে গেছে, কেউ হারিয়েছেন ছন্দ। জিম্বাবুয়ের পেসার ব্রায়ান ভিটরির সঙ্গেও এমনটা হতে যাচ্ছিল। চলতি ত্রিদেশীয় সিরিজে বাংলাদেশে আসতে পারেননি। অবশেষে তিনি ছাড়পত্র পেলেন বোলিংয়ের।

আরও পড়ুন: 'রিয়ালে রোনালদোর সঙ্গে চমৎকার বন্ধুত্ব হবে নেইমারের'

২০১১ সালে দেশের মাটিতে বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজ দিয়েই ভিটরির সাড়া জাগনো অভিষেক। টেস্ট অভিষেকে বাংলাদেশের বিপক্ষে নিয়েছিলেন ৫ উইকেট। এরপর প্রথম দুই ওয়ানডেতেই ৫টি করে উইকেট। ২০১৬ সালের জানুয়ারিতে বাংলাদেশ সফরে টি-টোয়েন্টিতে প্রশ্নবিদ্ধ হয় তার অ্যাকশন। পরের মাসেই বোলিং অ্যাকশনের পরীক্ষা দিয়ে পাস করতে না পারায় নিষিদ্ধ হন।

আরও পড়ুন: দুর্দান্ত হ্যাটট্রিক করে সিটিকে জেতালেন আগুয়েরো

তবে হাল ছেড়ে দেননি ভিটরি। অ্যাকশন শোধরানোর মিশনে নামেন তিনি। পরীক্ষায় পাস করে ২০১৬ সালেই বোলিংয়ের অনুমতি পান। কিন্তু দুর্ভাগ্য, ওই বছর নভেম্বরেই আবারও নিষিদ্ধ হন তিনি। একই বছরে দুইবার এমন ঘটনা ঘটায় এবার এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ হতে হয় তাকে। গত বছরের ডিসেম্বরে নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষে আবারও চলতি বছরের শুরুতে বোলিংয়ের অনুমতি পেলেন তিনি।

আরও পড়ুন: আইপিএলের নিলাম অনুষ্ঠানে সাকিবসহ ৫৭৮ ক্রিকেটার

সব ঠিকঠাক থাকলে এখন তিনি থাকতে পারতেন বাংলাদেশে। নেতৃত্ব দিতে পারতেন জিম্বাবুয়ের পেস আক্রমণের। কিন্তু পথ হারিয়ে ব্রায়ান ভিটরি এখন অন্য গলিতে। তবে জিম্বাবুয়ে দল বাংলাদেশে থাকার সময়ই পেলেন একটি সুখবর। অ্যাকশন শুধরে আবার বোলিংয়ের অনুমতি পেয়েছেন জিম্বাবুয়ের বাঁহাতি এই পেসার।

আরও পড়ুন: হাথুরুসিংহেকে নিয়ে কথা বলাই বোকামি: সুজন

২৭ বছর বয়সী এই পেসার তার সাড়ে ৬ বছরের ক্যারিয়ারে ওয়ানডে খেলেছেন মাত্র ২০টি। উইকেট নিয়েছেন ২৯টি। জিম্বাবুয়ের জার্সিতে টেস্টও খেলেছেন ৪টি। তবে তাকে ছাড়াই ত্রিদেশীয় সিরিজে দারুণ করছে জিম্বাবুয়ে। ভিটরিকে পেলে আরও খুশি হতে পারতেন প্রধান কোচ হিথ স্ট্রিক।

আরও পড়ুন: আইপিএলে এবার লুঙ্গিকে নিয়ে টানাটানি!



মন্তব্য