kalerkantho


যেভাবে পুরনো রূপে ফিরলেন ম্যাজিক্যাল মুস্তাফিজ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ জানুয়ারি, ২০১৮ ১২:২৪



যেভাবে পুরনো রূপে ফিরলেন ম্যাজিক্যাল মুস্তাফিজ

ছবি: এএফপি

বলা হয়ে থাকে, মুস্তাফিজুর রহমান একটি ম্যাচে কয় উইকেট পেলেন তার চেয়েও গুরুত্বপূর্ণ হল; তার বলের সামনে ব্যাটসম্যানদের প্রতিক্রিয়া। সাতক্ষীরার এই তরুণের বোলিংয়ের সামনে প্রতিপক্ষ ব্যাটসম্যানরা যেভাবে বোকা বনে যায়, এর চেয়ে আনন্দময় দৃশ্য আর হতে পারে না। এই জাদু দেখিয়েই খেতাব পেয়েছেন 'কাটার মাস্টার'। প্রায় দেড় বছর পর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে গত সোমবারের ম্যাচে আবারও সেই পুরনো রূপে দেখা দিলেন দ্য ফিজ।

তার মায়াবী কাটার, একই জায়গায় টানা বল করে যাওয়া, কিংবা বোকা বানিয়ে দেওয়া স্লোয়ার সবই দেখা গেল ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম ম্যাচে। উইকেট নিয়েছেন ২টি। রান দিয়েছেন ২৯। তার চেয়েও মজার ব্যাপার হল, তার করা ১০ ওভারের মধ্যে ছিল ৪২টি ডট বল! মানে ৭ ওভারই ডট! দীর্ঘ ইনজুরির ধকল সামলে এমন জাদুকরী মুস্তাফিজের ফিরে আসার রহস্য কী?

আরও পড়ুন: ৩ বছর কারাদণ্ডের মুখে বেন স্টোকস!

জাতীয় দলের সহকারী কোচ রিচার্ড হ্যালসল জানালেন দ্য ফিজের প্রত্যাবর্তনের রহস্য। সেটা আর কিছুই নয়, পরিশ্রম। নিজেকে ফিরে পেতে অমানুষিক পরিশ্রম করতে হয়েছে মুস্তাফিজকে। সেই পরিশ্রম এখনো তিনি অব্যাহত রেখেছেন। কাঁধের অস্ত্রোপচারের ধরনটির কারণেই নিজের সেরা চেহারায় ফিরতে কিছুটা সময় লাগছে মুস্তাফিজের। তবে হ্যালসলের মতে, মুস্তাফিজ অনেক দ্রুতই ফিরে এসেছেন নিজের রূপে।

টাইগার সহকারী কোচ বলেন, 'বেসবল খেলার দিকে যদি তাকান, তাদের অনেক পিচার (বল ছোড়েন যে) এরকম চোটে ভোগে। ওরা সাধারণত ৯০ মাইল গতিতে বল ছোড়ে। এ ধরনের চোট পেলে সেটি কাটিয়ে আবার ৯০ মাইল গতিতে ফিরতে ওদের ২ বছরও লেগে যায়। মুস্তাফিজের দেড় বছরের মত হয়েছে চোটের পর। ওর গতি আস্তে আস্তে বেড়ে ৮৫ মাইল পর্যন্ত চলে এসেছে।'

আরও পড়ুন: বন্ধুত্বের মর্যাদা এবং ফাঁকা শের-ই-বাংলার গ্যালারি

এর পেছনে পরিশ্রমের কথা উল্লেখ করে হ্যালসল বলেন, 'আমরা তামিম ও মুশফিককে দেখতাম নেটে কতটা খাটে। কিন্তু একজন বোলার প্রতিটি ট্রেনিং সেশনে এভাবে পরিশ্রম করছে, সেটি দেখতে পারাটাও দারুণ। এতে ওর আত্মবিশ্বাস ফিরে আসছে। নিজের স্কিলের প্রতি ওর যা আবেগ ও ভালোবাসা, সবাই সেটি দেখছে। ওর কাটার সবসময়ই দারুণ ছিল। এখন প্রতি সপ্তাহেই সে গতি বাড়িয়ে যাচ্ছে। ও দ্রুতই আরও ভয়ংকর হয়ে উঠবে।'



মন্তব্য