kalerkantho


ওয়েলসের কোচ হলেন গিগস

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ জানুয়ারি, ২০১৮ ২১:৫২



ওয়েলসের কোচ হলেন গিগস

ওয়েলস ফুটবল দলের নতুন ম্যানেজার হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সাবেক তারকা রায়ান গিগস। এর মাধ্যমে প্রথমবারের মত কোচের দায়িত্বে স্থায়ীভাবে নিয়োগ পেলেন গিগস।
ওয়েলসে ক্রিস কোলম্যানের স্থলাভিষিক্ত হয়ে গিগস বলেছেন, ইউনাইটেডের কিংবদন্তী কোচ এ্যালেক্স ফার্গুসনের কাছে এ সম্পর্কে তিনি সুস্পষ্ট পরামর্শ পেয়েছেন।
২০১৬ সালে লুইস ফন গালের পরিবর্তে হোসে মরিনহো ওল্ড ট্রাফোর্ডের দায়িত্ব গ্রহনের পর থেকে প্রায় ১৮ মাস কোচিং স্টাফ হিসেবে কোন দায়িত্বে ছিলেন না ৪৪ বছর বয়সী সাবেক এই তারকা উইঙ্গার। কার্ডিফে আনুষ্ঠানিক ভাবে গিগসের আত্মপ্রকাশের পরে এ সম্পর্কে তিনি বলেছেন, ‘ওয়েলসের পরবর্তী ম্যানেজার হতে পেরে আমি সত্যিকার অর্থেই অনেক বেশী গর্বিত। দলের সাথে কাজ করতে আমি মুখিয়ে আছি। এটা আমার জন্য অনেক বড় একটি সুযোগ। দেশের হয়ে ৬৪টি আন্তর্জাতিক ম্যাচে আমি খেলেছি। খেলোয়াড় হিসেবে যতটা সফল ছিলাম আশা করছি ম্যানেজার হিসেবেও একই ধরনের পেশাদারীত্ব বজায় রাখতে পারবো।’
নিজের ক্যারিয়ারের প্রায় পুরোটা সময় যার অধীনে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে কাটিয়েছেন সেই কোচের কাছ থেকে নতুন দায়িত্বের আগে পরামর্শ নিতে ভুল করেননি গিগস। এ সম্পর্কে তিনি বলেন, গতকাল আমি ফার্গুসনের সাথে এ ব্যপারে দীর্ঘ আরেঅচনা করেছি। অবশ্যই এ ব্যপারে তিনি আমাকে দারুন কিছু পরামর্শ দিয়েছেন। আবারো ফুটবলে ফিরে আসতে পারাটা আমার জন্য সত্যিই সৌভাগ্যের।
আগামী ২২ মার্চ চায়না কাপে স্বাগতিক নানিং ক্লাবের বিপক্ষে ওয়েলসের কোচ হিসেবে প্রথম মাঠে নামতে যাচ্ছেন গিগস। গত মাসে ওয়েলসের কোচ হিসেবে নিজের আগ্রহের বিষয়টি প্রকাশ করার পর থেকে এই পদে গিগসই সুস্পষ্ট ফেবারিট ছিলেন। আগামী ২৪ জানুয়ারি সুইজারল্যান্ডে অনুষ্ঠিতব্য ইউয়েফা নেশন্স লীগের ড্রয়ের আগে ওয়েলস এফএ নতুন কোচ নিয়োগের ব্যপারে আগ্রহী ছিল।
২০১৩-১৪ মৌসুমের শেষের দিকে ডেভিড ময়েসের বরখাস্তের পরে ইউনাইটেডের অস্থায়ী কোচ হিসেবে গিগস চারটি ম্যাচে দায়িত্ব পালন করেছেন। খেলোয়াড় হিসেবে ইউনাইটেডের হয়ে রেকর্ড ৯৬৩টি ম্যাচে ১৬৮ গোল করা গিগস ক্যারিয়ারের পুরোটা সময়ই ওল্ড ট্রাফোর্ডে কাটিয়েছেন। ওয়েলসের ম্যানেজার হিসেবে কোলম্যান ছয় বছর কাটিয়েছেন। ওয়েলসের ফুটবল ইতিহাসে অন্যতম সফল কোচ হিসেবে তাকে বিবেচনা করা হয়। কোলম্যানের অধীনে ইউরো ২০১৬’র সেমিফাইনাল নিশ্চিত করার মাধ্যমে ৫৮ বছরের ইতিহাসে প্রথম কোন বড় টুর্নামেন্টের শেষ চারে উঠেছিল ওয়েলস।


মন্তব্য