kalerkantho


মেসিকে যে লোভ দেখিয়েছিল রিয়াল মাদ্রিদ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ জানুয়ারি, ২০১৮ ১৭:৪১



মেসিকে যে লোভ দেখিয়েছিল রিয়াল মাদ্রিদ

ক্যাম্প ন্যু থেকেই শুরু, এখানেই হয়ত শেষ হবে আর্জেন্টাইন ফুটবল জাদুকর লিওনেল মেসির ক্যারিয়ার। কিন্তু তাকে বার্সেলোনা থেকে বিচ্ছিন্ন করার জন্য কম চেষ্টা করেনি ইংলিশ ও স্প্যানিশ জায়ান্ট ক্লাবগুলো। এর মধ্যে রিয়াল মাদ্রিদও আছে। বার্সা সুপারস্টারকে ভাগিয়ে নিতে পাঁচ বছর আগে থেকেই চেষ্টা শুরু করেছিল কাতালানদের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দলটি!

জার্মানির প্রভাবশালী সাপ্তাহিক সাময়িকী ডার স্পিয়েগেল সম্প্রতি এমনই এক রিপোর্ট প্রকাশ করেছে! তাদের দাবি, ২০১৩ সালের জুনে মেসির পারিবারিক আইনজীবী ইনিগো হুয়ারেজের মাধ্যমে তাকে কেনার প্রস্তাব দেয় রিয়াল। মেসির বাবাকেও বলা হয়েছিল, তখনকার রিলিজ ক্লজ ২৫ কোটি ইউরো দিয়েই কিনতে রাজি রিয়াল। প্রস্তাব অনুযায়ী ২০২১ সাল পর্যন্ত মেসিকে তারা বার্ষিক ২ কোটি ৩০ লাখ ইউরো পারিশ্রমিক দিত। এ ছাড়া মেসি বার্সা ছাড়লে তাঁর বাবাকে আরও ১০ লাখ ইউরো উপহার দিত রিয়াল।

কিন্তু রিয়ালের এই প্রস্তাব ফিরিয়ে দিতে দুবার ভাবেননি ক্যাম্প ন্যুয়ের রাজপুত্র। মেসিকে রাজি করাতে শেষ পর্যন্ত ব্যক্তিগত জেট বিমানে আলোচনার প্রস্তাব দিয়েছিল রিয়াল। সেই বিমানে খোদ রিয়াল সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ মেসির সঙ্গে বাতচিত করতে চেয়েছিলেন। এমনকি মেসির বিরুদ্ধে 'কর ফাঁকি'র অভিযোগ তুলে নেওয়ার ব্যাপারে চাপ দেওয়ার প্রস্তাবও দেওয়া হয়েছিল। মেসিকে রাজী করানো সম্ভব হয়নি।

মেসি রিয়ালে যেতে রাজি হলে আজ নেইমার যে ট্রান্সফার রেকর্ড গড়েছেন, সেটা আরও আগেই গড়া হয়ে যেত। বার্সেলোনা ছেড়ে পিএসজিতে যেতে নেইমারের পেছনে খরচ হয়েছে ২২ কোটি ২০ লাখ ইউরো। আর ৫ বছর আগে মেসি যদি রিয়ালে যেতে রাজী হতেন, তবে গ্যালকোটিকোদের খরচ করত হত ২৫ কোটি ইউরো! যার কাছাকাছি থেকেই সন্তুষ্ট হতে হত নেইমারকে।


মন্তব্য