kalerkantho


ক্রিকেট জুয়াড়িরা সাবধান! স্টেডিয়ামে এবার মোবাইল কোর্ট

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৭ জানুয়ারি, ২০১৮ ১৭:২৪



ক্রিকেট জুয়াড়িরা সাবধান! স্টেডিয়ামে এবার মোবাইল কোর্ট

প্রশাসন স্বীকার করুক আর নাই করুক, আইপিএল-বিপিএল কিংবা আন্তর্জাতিক যেকোনো ম্যাচ ঘিরে জুয়ার আড্ডা বসে শহরের অভিজাত ক্লাব থেকে শুরু করে গ্রাম গঞ্জের প্রত্যন্ত জনপদে। বিপিএলের পঞ্চম আসরে মাঠ থেকেই দেশি-বিদেশি ৭২ জুয়াড়িকে আটক করেছিল বিসিবির দুর্নীতি দমন ইউনিট (আকসু)। কিন্তু আইনের সীমাবদ্ধতা থাকায় তাদের শাস্তি দেওয়া যায়নি। এবার জুয়াড়িদের ধরতে আরও কঠোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিসিবি।

আসন্ন ত্রিদেশীয় সিরিজ এবং তারপর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি সিরিজে জুয়াড়ি ঠেকাতে প্রতিটি ভেন্যুতে থাকবে মোবাইল কোর্ট। জুয়াড়িদের হাতেনাতে ধরে জেল, জরিমানা করার ক্ষমতাও থাকবে তাদের ওপর। স্টেডিয়ামে বাজি ধরতে ব্যবহার করা হয় মুঠোফোন। টিভিতে ৪-৫ সেকেন্ড দেরিতে সম্প্রচার হওয়ায় এই সময়টা কাজে লাগিয়ে মাঠে বসে অনলাইনে জুয়া ধরে অনেকে। এই সুযোগটিই আসন্ন সিরিজে থামাতে চায় বিসিবি।

আজ রবিবার মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামের সম্মেলন কক্ষে বিসিবির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজামউদ্দিন চৌধুরী বলেন, 'আসন্ন সিরিজ নিয়ে আমরা ইতিমধ্যে কিছু বাড়তি ব্যবস্থা নিয়েছি। প্রশাসনিক বিষয়গুলো সম্পন্ন করা হয়েছে। একটি আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা হয়েছে। নিরাপত্তা সংক্রান্ত বিষয়গুলোর জন্য যারা দায়িত্বে থাকেন তারা সমন্বয় সভাগুলো করে নিয়েছে। প্রতিটি ভেন্যুতে বিশেষ করে ঢাকা, চট্টগ্রাম ও সিলেটের প্রশাসনকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে। তারা প্রতিটি ভেন্যুতে মেজিস্ট্রেসি ক্ষমতা প্রয়োগ করবেন। তাৎক্ষণিকভাবে মোবাইল কোর্ট বসানোর একটি পরিকল্পনাও সরকারের রয়েছে এবং সে ব্যাপারে একটি নির্দেশনাও দেয়া হয়েছে।'

১৫ জানুয়ারি বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে ম্যাচ দিয়ে মাঠে গড়াবে ত্রিদেশীয় সিরিজ। ফাইনাল ম্যাচ হবে ২৭ জানুয়ারি। মোট ম্যাচের সংখ্যা ৭টি। এরপর ৩১ জানুয়ারি থেকে শুরু হবে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ। ৮ ফেব্রুয়ারি দ্বিতীয় টেস্ট। এরপর ১৫ আর ১৮ ফেব্রুয়ারি দুটি টি-টোয়েন্টি খেলবে দুই দল। শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে। 



মন্তব্য