kalerkantho


বড় সুযোগটি কাজে লাগাতে পারবেন বিজয়?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৭ জানুয়ারি, ২০১৮ ১৭:০১



বড় সুযোগটি কাজে লাগাতে পারবেন বিজয়?

ছবি: বিজয়ের ফেসবুক পেইজ

জাতীয় দলের সার্কিট থেকে প্রায় হারিয়েই গিয়েছিলেন এনামুল হক বিজয়। একটা সময় তার বিরুদ্ধে নানা অভিযোগও উঠত। বলা হত, তিনি দলের সবচেয়ে স্বার্থপর (!) ক্রিকেটার। বিজয় সেই অবস্থান থেকে বের হয়ে এসেছেন কিনা তা এবার পরীক্ষার পালা। তামিমের সম্ভাব্য ওপেনিং সঙ্গী হতে যাচ্ছেন তিনিই। সুযোগ আছে ওয়ানডেতে ১৯তম বাংলাদেশি ক্রিকেটার হিসেবে ১ হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করার।

২০১৫ বিশ্বকাপে সর্বশেষ দলে ছিলেন বিজয়। কিন্তু ইনজুরির কারণে থামতে হয় তাকে। এরপর সৌম্য সরকারের উত্থানের কারণে তিনি চলে যান পর্দার অন্তরালে। এরপর থেকে ঘরোয়া ক্রিকেটে রানের বন্যা বইয়ে দিয়েছেন তিনি। এবার জাতীয় লিগে দুটি ডাবল সেঞ্চুরিতে টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ ৬১৯ রান করেছেন ২৫ বছর বয়সী ব্যাটসম্যান। গত ঢাকা লিগে ৩৭.২৫ গড়ে করেছিলেন ৫৯৬ রান।

মিডিয়ায় অনেক লেখালেখিও হয়েছে বিজয়কে দলে অন্তর্ভূক্ত করার জন্য। কিন্তু চন্দ্রিকা হাথুরুসিংহের গুডবুকে সম্ভবত বিজয়ের নামটি ছিল না। কিংবা দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটের দুরাবস্থা এবং মানের কারণে তার এই পারফর্মেন্স বিবেচনায় আনেননি হাথুরু। হাথুরু উত্তর যুগে নির্বচকমণ্ডলী আরও একবার আস্থা রাখল এই উইকেটকিপার ব্যাটসম্যানের ওপর।

৩০ ওয়ানডে খেলা বিজয়ের রান ৯৫০। গড়টাও মন্দ না ৩৫.১৮। সেঞ্চুরি আর হাফ সেঞ্চুরি আছে ৩টি করে। ৭০ স্ট্রাইকরেট অবশ্য ওয়ানডের উপযোগী নয়। ত্রিদেশীয় সিরিজে বিজয় আবারও সুযোগ পাচ্ছেন নিজের ভুলগুলো শুধরে নেওয়ার। এই পরীক্ষায় পাশ করতে পারলেই জাতীয় দলে জায়গাটি পাকা হয়ে যেতে পারে। বিজয় কি পারবেন এই চ্যালেঞ্জে জিততে…?



মন্তব্য