kalerkantho


ডি ভিলিয়ার্সের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা পছন্দ নয় কোহলির

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১ জানুয়ারি, ২০১৮ ১৯:৪৬



ডি ভিলিয়ার্সের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা পছন্দ নয় কোহলির

পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে দক্ষিণ আফ্রিকায় অবস্থান করছে বিরাট কোহলির ভারত। আগামী শুক্রবার থেকে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজে মুখোমুখি হবে ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকা। অনেকের মতে, এই সিরিজে রান মেশিন কোহলির প্রধান প্রতিযোগী হয়ে উঠবেন বিধ্বংসী প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান এবিডি ভিলিয়ার্স। কিন্তু এই প্রতিযোগিতা পছন্দ নয় কোহলির। তার মতে, এই সিরিজে তো আর দুজন ক্রিকেটার খেলবে না। দুই দলে আরও অনেক তারকা ক্রিকেটার আছে। তারাও প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে।

কোহলির ভাষায়, 'আসন্ন সিরিজ নিয়ে আমাকে ও ডি ভিলিয়ার্সকে নিয়ে যা বলা হচ্ছে, তা ঠিক নয়। এবি আমার খুবই ভালো বন্ধু। আমি তার খেলা পছন্দ করি এবং ব্যক্তি হিসেবে তাকে পছন্দ করি। আইপিএলে আমরা অনেকগুলো মৌসুম এক সাথে কাটিয়েছি। তাকে আমি ভালোভাবে চিনি। সে অসাধারণ একজন মানুষ। কিন্তু আমরা যখন মাঠে লড়াইয়ে নামি তখন শুধুমাত্র দলের জন্য খেলতে নামি। এখানে একে অপরকে প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে ভাবি না। তবে এটি ঠিক, এবি যখন ব্যাটিং করে তখন আমি চাই সে দ্রুত আউট হয়ে যাক। আবার আমি যখন ব্যাটিং করতে নামি সে ও এটাই ভাবে।'

আসন্ন টেস্ট সিরিজে দল ভালো করবে বলে জানান কোহলি। সতীর্থরা নিজেদের প্রমাণের জন্য মুখিয়ে আছে বলে জানান তিনি, 'এশিয়ার বাইরে সকল সফরই আমাদের জন্য কঠিন। অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা ও ইংল্যান্ডের কন্ডিশন প্রায় এক। এখানেও খেলাটাও কঠিন ব্যাপার। তবে আশা করছি, আগেরবারের তুলনায় এবার আমরা ভালো পারফর্ম করবো। আগের চেয়ে এবারের দলে পারফর্মার অনেক বেশি। দলের সবাই পারফর্ম করার মুখিয়ে আছে। নিজেদের প্রমাণের জন্য এবং মাঠে খেলতে নামার জন্য উদগ্রীব ক্রিকেটাররা।'

সিরিজ জয় নিয়ে কথা না বললেও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে বড় চ্যালেঞ্জের মুখে পড়বে ভারত বলে জানান কোহলি, 'দেড় বছর ধরে তিন ফরম্যাটেই দুর্দান্ত খেলছি আমরা। তবে এবার ভিন্ন পরীক্ষার মুখে পড়তে হবে। এটিই আমাদের আসল পরীক্ষা। দলের সকলকে বড় চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে হবে। তবে সতীর্থরা যেকোন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার জন্য প্রস্তুত। টেস্ট ক্রিকেটের এক নম্বর দল হিসেবে আমরা এখানে খেলতে নামবো। ভালো ক্রিকেট খেলে নিজেদের অবস্থান ধরে রাখাই আমাদের লক্ষ্য।'

কেপটাউনে আগামী ৫ জানুয়ারি থেকে শুরু হবে ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকার তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ। এরপর ছয় ম্যাচের ওয়ানডে ও তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলবে ক্রিকেটের বর্তমান দুই পরাশক্তি।



মন্তব্য