kalerkantho


ক্ষোভে দুঃখে ক্রিকেট দেখাই ছেড়ে দিয়েছেন সেই কিউরেটর!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ ডিসেম্বর, ২০১৭ ১৫:৩২



ক্ষোভে দুঃখে ক্রিকেট দেখাই ছেড়ে দিয়েছেন সেই কিউরেটর!

এক দিনেই আমূল পরিবর্তিত হয়ে গেল তার জীবন। এখন আর সাতসকালে মাঠে পৌঁছানোর তাড়া নেই। পিচ নিয়ে মাথা ঘামানোর প্রয়োজন নেই। মাঠের মালিদের সঙ্গে বৈঠক নেই। বাইশ গজের জীবন থেকেই তিনি নির্বাসিত হয়ে গেছেন! গত ২৫ অক্টোবর থেকে সাবেক পেসার তথা মহারাষ্ট্র ক্রিকেট সংস্থার সাবেক কিউরেটর পাণ্ডুরাঙ্গ সালগাওকর জীবনযাত্রা পাল্টে গেছে।

সেদিন পুনেতে ভারত-নিউজিল্যান্ড ম্যাচের আগে যার বিরুদ্ধে টাকার বিনিময়ে পিচ নিয়ে তথ্য ফাঁস করা এবং উইকেট বিকৃতি ঘটাতে রাজি হয়ে যাওয়ার গুরুতর অভিযোগ উঠেছিল। বোর্ড ও মহারাষ্ট্র ক্রিকেট সংস্থা যৌথভাবে নির্বাসিত করেছিল তাকে। এখনও ব্যাপারটা আইসিসির তদন্তাধীন। আর নির্বাসিত পাণ্ডুরাঙ্গ এখন অনেকটাই নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছেন।

ভারতের একটি পত্রিকায় টেলিফোনে দেওয়া সাক্ষাতকারে অভিযোগের ব্যাপারে তিনি বলেন, 'কী হবে শুনে? ব্যাপারটা আইসিসির তদন্তাধীন। এ নিয়ে কিছু বলব না। আইসিসি তদন্তকারীদের যা বলার বলেছি। সত্যিটা সামনে আসবে বলেই আমার বিশ্বাস।'

আইসিসির দুর্নীতিদমন শাখার অন্যতম কর্তা স্টিভ রিচার্ডসন পুনে এসে সালগাওকরকে জেরা করেছেন। জেরায় নির্বাসিত কিউরেটর বলেছেন, জম্মু ও কাশ্মীর ক্রিকেট সংস্থার কিউরেটর ইশতিয়াক খান তাকে ভুল বুঝিয়ে ফাঁসিয়েছিলেন। যদিও এ ব্যাপারে মুখে কুলুপ সালগাওকরের। তিনি কারও বিরুদ্ধে সংবাদমাধ্যমের সামনে অভিযোগ করতে চান না।

তবে শুধু পাণ্ডুরাঙ্গ নন, অনেকেরই বিশ্বাস ষড়যন্ত্রের শিকার হতে হয়েছে তাকে। এখন স্থানীয় ক্রিকেটাঙ্গণের বন্ধুদের সঙ্গেও এখন খুব একটা যোগাযোগ নেই সালগাওকরের। তিনি এখন ক্রিকেটও দেখেন না। মনে প্রচণ্ড ক্ষোভ, অভিমান। ভারত-শ্রীলঙ্কা সিরিজ দেখছেন কিনা- এমন প্রশ্নের জবাবে যন্ত্রণাবিদ্ধ গলায় তিনি বলেন, 'না। ক্রিকেট এখন দেখি না। পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাই। তাতেই কিছুটা স্বস্তি পাই।'


মন্তব্য