kalerkantho



বিয়ের পর কপাল খুলল কোহলির, দ্বিগুন হচ্ছে সবার বেতন!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ ডিসেম্বর, ২০১৭ ১৮:৪৭



বিয়ের পর কপাল খুলল কোহলির, দ্বিগুন হচ্ছে সবার বেতন!

বেতন দ্বিগুন হলে যেকোনো মানুষের চক্ষু ছানাবড়া হওয়ারই কথা, যদিও কোহলির এই ছবি বেতন বৃদ্ধি সংশ্লিষ্ট নয়

বিরাটের ছবিটার মতোই হবে সবাইর অবস্থা- চক্ষু ছানাবড়া! ভারতীয় ক্রিকেটাররা এমনিতেই যথেষ্ট বেতন পান। কিন্তু এবার তাদের বেতন বাড়াতে হচ্ছে। তাও যেনতেন বাড়ছে না, রীতিমতো দ্বিগুণ হয়ে যাচ্ছে ক্রিকেটারদের বেতন। এমনিতেই ভারতীয় ক্রিকেট আজ মিলিয়ন মিলিয়ন ডলারের বাণিজ্যে পরিণত হয়েছে। কাজেই ক্রিকেটারদের শতভাগ বেতন বাড়াতে বাজেটে ঘাটতি হওয়ার কথা নয়। বিরাটের বিয়ের পরই এমন সুখবরের হাওয়া বইছে। কাজেই বলা যায়, বিয়ের পর হয়তো কপালটাই খুলে গেলো বিরাটদের। 

কেবল জাতীয় দলের ক্রিকেটারদেরই নয়, স্থানীয় স্তরের সব ক্রিকেটারের বেতন দ্বিগুন করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে এ নিয়ে কাজ শুরু করেছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট নিয়োজিত 'কমিটি অব অ্যাডমিনিস্ট্রেটর্স (সিওএ বা কোয়া)'। বর্তমানে বেতনের জন্যে ধার্য করা ১৮০ কোটি রুপির বাজেট ২০০ কোটিতে উন্নীতকরণের কাজ চলছে। টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানানো হয়। এই প্রস্তাবকে অনুমোদনের জন্য বিসিসিআই এর জেনারেল বডির সামনে রাখা হবে। ক্রিকেটারদের বেতন বৃদ্ধির ব্যাপারে গত মাসেই জোরালো দাবি তুলেছিলেন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও কোচ রবি শাস্ত্রী।

প্রথমে 'কোয়া'র প্রধান বিনোদ রায় সিনিয়র ও জুনিয়র ক্রিকেটারদের বেতন দ্বিগুন করার ফর্মুলা নিয়ে কাজ করেছেন। এটা পরে বিসিসিআই'য়ের কাছে উপস্থাপন করা হবে। বর্তমানে বিসিসিআই'য়ের রেভিনিউয়ের ২৬ শতাংশ তিনভাগে ভাগ করা হয়। আন্তর্জাতিক অঙ্গনে খেলা ক্রিকেটারদের জন্যে ১৩ শতাংশ, ডোমেস্টিক ক্রিকেটারদের জন্যে ১০.৬ শতাংশ এবং নারী ও শিশু ক্রিকেটারদের জন্যে বাকিটা। এবার এই তিন ক্ষেত্রেই বড় ধরনের পরিবর্তন আসছে। 

কোহলি চলতি বছরেই ৪৬টি ম্যাচ থেকে কামিয়েছেন ৫.৫১ কোটি রুপি। বেতন বাড়লে তার বাৎসরিক বেতন আরো ১০ কোটি বেড়ে যাবে। আবার রানজি ট্রফি ক্রিকেটাররা যেখানে বছরে ১২-১৫ লাখ রুপি পকেটে তুলতেন, তারা ৩০ লাখ পাবেন। 

'কোয়া'র এক সূত্র জানায়, সিনিয়র ক্রিকেটারদের বেতন শতভাগ বেড়ে যাবে। এমনকি ডোমেস্টিক ক্রিকেটাররাও একই সুবিধা পাবেন। আসলে এই ক্রিকেটাররাই বিসিসিআই'য়ের আজকের আয়ের মূল উৎস। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড বেতন বাবদ আরো ২০০ কোটি রুপি কেন যোগ করবে না? 

ওই প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, সৌরভ গাঙ্গুলীর মতো সাবে ক্রিকেটারও ডোমেস্টিক খেলোয়ারদের কম বেতনের সমালোচনা করেছিলেন। তাদের আন্তর্জাতিক মানের বানাতে হলে কী করতে হবে তাও বলেছিলেন। 

'কোয়া'র কর্মকর্তারা জানান, বেতন বৃদ্ধি যে কেবল জাতীয় দলের ক্রিকেটারদেরই হবে তা ঠিক নয়। ডোমেস্টিক অঙ্গনেও বাড়ানো উচিত। সেখান থেকেই তো আন্তর্জাতিক মানের ক্রিকেটার গড়ে ওঠে। 
সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া 



মন্তব্য