kalerkantho


মালানের প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরিতে চালকের আসনে ইংল্যান্ড

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ ডিসেম্বর, ২০১৭ ১৮:১৯



মালানের প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরিতে চালকের আসনে ইংল্যান্ড

মালানের সেঞ্চুরি উদযাপন। ছবি: এএফপি

চলতি অ্যাশেজে খুব খারাপ অবস্থায় আছে সফরকারী ইংল্যান্ড। প্রথম দুই টেস্ট হারতে হয়েছে বড় ব্যবধানে। তৃতীয় টেস্টের প্রথম দিনে দেখা গেল তাদের ঘুরে দাঁড়ানোর প্রচেষ্টা। পার্থে পাঁচ নম্বরে ব্যাটইংয়ে নেমে অপরাজিত ১১০ রানের দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরি উপহার দেন ডেভিড মালান। এটি তার ক্যারিয়ারের প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরি। তার ইনিংসে ভর করেই দিনশেষে ৪ উইকেটে ৩০৫ রান তুলেছে সফরকারীরা।

মালানের সেঞ্চুরির সাথে ইংল্যান্ডের হয়ে জোড়া হাফ-সেঞ্চুরি করেছেন ওপেনার মার্ক স্টোনম্যান ও উইকেটরক্ষক জনি বেয়ারস্টো। স্টোনম্যান ৫৬ রানে ফিরলেও ৭৫ রান নিয়ে মালানের সাথে অপরাজিত আছেন বেয়ারস্টো। 

প্রথম দুই টেস্ট হারের স্বাদ নিয়ে এ ম্যাচে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্বান্ত নেয় ইংল্যান্ড। এ ম্যাচ দিয়ে ক্যারিয়ারের ১৫০তম টেস্ট খেলতে নামেন সাবেক অধিনায়ক অ্যালিষ্টার কুক। দেশের হয়ে সর্বোচ্চ টেস্ট খেলা কুক প্রথম ইনিংসে ব্যর্থ। ফিরেন মাত্র ৭ রানে।

দলীয় ২৬ রানে কুকের বিদায়ের পর সামনের দিকে ভালোভাবেই এগোতে থাকে ইংল্যান্ড। ওপেনার স্টোনম্যান ও জেমস ভিন্স প্রতিরোধ গড়ে তুলেন অস্ট্রেলিয়ার বোলারদের সামনে। তবে ২৬তম ওভারে স্টোনম্যান ও ভিন্সের প্রতিরোধ ভাঙেন অজি পেসার জশ হ্যাজেলউড। ২৫ রানে থাকা ভিন্সকে প্যাভিলিয়নে পাঠান তিনি।

এরপর ইংল্যান্ডের অধিনায়ক জো রুটকে দ্রুত তুলে নিয়ে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার চেষ্টা করেন প্যাট কামিন্স। ৪টি বাউন্ডারিতে দুর্দান্তভাবে শুরু করেও ২০ রানের বেশি করতে পারেননি রুট। দলনেতা ফিরে যাবার কিছুক্ষণ থামতে হয় স্টোনম্যানকেও। ১০টি চারে টেস্ট ক্যারিয়ারে তৃতীয় হাফ-সেঞ্চুরি তুলে ৫৬ রানে  বাঁ-হাতি পেসার মিচেল স্টার্কের শিকার হন তিনি।

দলীয় ১৩১ রানে ৪ উইকেট হারানোর পর বেশ চাপে পড়ে যায় ইংল্যান্ড। এ অবস্থায় দলের হাল ধরেন মালান ও বেয়ারস্টো। অসীম ধৈর্য্যের পরিচয় দিয়ে সময় গড়ানোর সাথে সাথে দলকে এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকেন তারা। কঠিন পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে টেস্ট ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি তুলে নেন মালান। ১৭৪ বল অপরাজিত ১১০ রান করতে তিনি হাঁকিয়েছেন ১৫টি চার এবং ১টি ছক্কা।


মন্তব্য