kalerkantho


দিল্লির দুষণে অসুস্থ ভারতীয় ক্রিকেটার; চলছে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৬ ডিসেম্বর, ২০১৭ ১৬:৫৩



দিল্লির দুষণে অসুস্থ ভারতীয় ক্রিকেটার; চলছে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ!

মাঠে অসুস্থ হয়ে পড়া ধনঞ্জয়া ডি-সিলভা। ছবি: এএফপি

এই মুহূর্তে ম্যাচ বাঁচাতে দুর্দান্ত লড়াই করছে শ্রীলঙ্কা। কিন্ত তাদের মূল লড়াইটা করতে হচ্ছে দিল্লির ভয়াবহ দুষণের বিরুদ্ধে।

কিন্তু প্রথম যেদিন এই সমস্যা শুরু হলো, ভারত তা স্বীকারই করতে চাইল না। কিন্তু দিল্লির ডাক্তাররা ঘোষণা দিলেন, এই দুষিত পরিবেশে কোনো খেলাধুলার আয়োজন করা ঠিক নয়। ডাক্তারদের এই বক্তব্যের পর চলছে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ আর বিতর্ক।

দিল্লির ভয়াবহ দূষণের প্রভাব মঙ্গলবার বিকেলে পড়েছিল ভারতীয় দলের ওপর। শ্রীলঙ্কাকে ৪১০ রানের টার্গেট দিয়ে ব্যাট করতে পাঠানোর পরে মহম্মদ শামি নিজের তৃতীয় ওভার করতে এসে হঠাৎ বমি করতে শুরু করেন।  ওই ওভারে উইকেট পেলেও তার পরে তিনি মাঠ ছেড়ে চলে যান। বাকি সময়ে আর ফিরে আসেননি।

সকালে বোলিং করার সময় একই ঘটনা ঘটে সুরঙ্গা লাকমলের সঙ্গেও। তাতে যতটা না প্রতিক্রিয়া হয়, শামি অসুস্থ হয়ে পড়ায় ফের দূষণ বিতর্কের আগুনে যেন ঘি পড়ে।

আগের দিনই শামি সাংবাদিক সম্মেলনে এসে বলেছিলেন, ব্যাপারটা নিয়ে শ্রীলঙ্কা হয়তো বাড়াবাড়ি করছে। সেই শামিই গতকাল মাঠে অসুস্থ হয়ে পড়ায় আগের কথা ফিরিয়ে নিতেই হলো।

সাংবাদিক সম্মেলনে শ্রীলঙ্কার কোচ নিক পোথাস বলেন, 'আপনাদের শামিকেও তো দিনের শেষে অসুস্থ হয়ে পড়তে দেখলাম। আমি তো বলব, আমাদের ছেলেরা এই পরিবেশের সঙ্গে দারুণ ভাবে মানিয়ে নিয়েছে। কাজটা মোটেই সোজা ছিল না। '

দিল্লি ক্রিকেট সংস্থা আবার এ দিন এক স্থানীয় চিকিৎসককে শ্রীলঙ্কা শিবিরে পাঠায় তাদের ক্রিকেটাররা কতটা অসুস্থ, তা পরীক্ষা করে দেখার জন্য। তিনি শ্রীলঙ্কা শিবিরে গিয়ে নিরোশন ডিকাভেলা, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা ও সান্দাকানকে পরীক্ষা করলেও দলের অন্য ক্রিকেটাররা কেউ তার কাছে পরীক্ষা দিতে রাজি হননি।

এইমসের সেই চিকিৎসক ডা. অমর পাল ভাল্লা এ দিন বলেন, 'তিন জনেরই শারীরিক অবস্থা স্বাভাবিক। তবে এই দূষিত পরিবেশে ক্রিকেট খেলা সত্যিই বেশ কঠিন। '

শামির শারিরীক অবস্থা সম্পর্কে শিখর ধাওয়ান বলেন, 'শামি এখন সুস্থই আছে। ডাক্তার কী পরীক্ষা করেছেন আমি জানি না। আমি তো আর ডাক্তার নই। আমার এখানেই জন্ম, এখানেই বড় হয়েছি বলে দিল্লির পরিবেশ সম্পর্কে জানি।  তবে পরিবেশ বোধহয় এতটাও দূষিত নয় যে, ক্রিকেট খেলাই যাবে না। '


মন্তব্য