kalerkantho


সাকিবের অল-রাউন্ড নৈপূণ্যে জিতল ঢাকা ডায়নামাইটস

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৬ ডিসেম্বর, ২০১৭ ১৬:২২



সাকিবের অল-রাউন্ড নৈপূণ্যে জিতল ঢাকা ডায়নামাইটস

চলতি বিপিএলের পঞ্চম আসরে এখন পর্যন্ত সর্বাধিক উইকেট শিকারী তিনি। কিন্তু শুধু বোলিং করলেই তো হবে না, অল-রাউন্ডার তকমা ধরে রাখতে হলে ব্যাট হাতেও জ্বলে উঠতে হবে।

অবশেষে দলের মহাবিপদে আজ জ্বলে উঠল সাকিবের ব্যাট। এরপর তার ঘূর্ণিবলে ঘায়েল হলো প্রায় 'বি' টিম নিয়ে মাঠে নামা রংপুর রাইডার্স। ব্যাট হাতে অপরাজিত ৪৭ রানের ঝড়ো ইনিংসের পর বল হাতে নিলেন ৩ উইকেট। তার দল ঢাকা জিতল ৪৩ রানে।

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ১৩৮ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নেমে দলীয় ৭ রানেই ধাক্কা খায় রংপুর। অ্যাডাম লিথকে (৩) লুইসের তালুবন্দি করেন মোসাদ্দেক হোসেন। এরপর অধিনায়ক ম্যাককালামকে (১) বোল্ড করে দেন ঢাকা অধিনায়ক সাকিব। রংপুরের দুর্গে তৃতীয় আঘাত হানেন আবু হায়দার রনি। তার বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন গোটা টুর্নামেন্টে ব্যর্থতার ঘানি টানা শাহরিয়ার নাফীস (৭)।

উইকেটকিপার  ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ মিথুনও কিছু করতে পারেননি। সাকিবের দ্বিতীয় শিকার হওয়ার আগে করেছেন মাত্র ২ রান। নাহিদুল ইসলামকে (১৩) প্যাভিলিয়নে পাঠান সুনিল নারাইন। এরপর মঞ্চে আবির্ভাব মোহাম্মদ আমিরের। তিনি বোল্ড করে দিলেন ৫ রান করা আব্দুর রাজ্জাককে। ম্যাচ থেকে আগেই ছিটকে গিয়েছিল রংপুর। নির্ধারিত ২০ ওভারে তারা থামল ৭ উইকেটে ৯৪ রান তুলে। ৪৩ রানের জয় তুলে নিল ঢাকা ডায়নামাইটস।

এর আগে  আজ বুধবার দিনের প্রথম খেলায় টসে জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১৩৭ রান সংগ্রহ করে সাকিব আল হাসানের দল। ইনিংসের শুরু থেকেই বিপদে ছিল ঢাকা। পেসার রুবেল হোসেনের বলে স্যামুয়েল বদ্রির তালুবন্দি হন তারই স্বদেশী সুনিল নারাইন (৪)। সেই ধাক্কা কাটাতে না কাটাতেই বদ্রির বলে লিথের তালুবন্দি হন জো ড্যানলি (৯)। উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান জহুরুল ইসলামকে (৫) প্যাভিলিয়নে পাঠান পেসার এবাদত হোসেন।

চলতি আসরে ব্যাট হাতে লড়াকু মানসিকতা দেখিয়েছেন তরুণ মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। কিন্তু আজ মাত্র ‌১০ রান করে আব্দুর রাজ্জাকের বলে অ্যাডাম লিথের হাতে ক্যাচ তুলে দিলেন। একপ্রান্ত আগলে রেখে খেলছিলেন ওপেনার এভিন লুইস। কিন্তু আজ তিনি স্বভাববিরুদ্ধ ১৮ বলে ১৪ রানের ইনিংস খেলে নাহিদুল ইসলামের শিকার হন। সেই মুহূর্তে ব্যাট হাতে প্রতিরোধ গড়েন ওঠেন মেহেদী মারুফ এবং অধিনায়ক সাকিব।

২৩ বলে ৩ চার ১ ছক্কায় ৩৩ রান করে রুবেল হোসেনের দ্বিতীয় শিকার হন মেহেদী মারুফ। বিগ হিটার কায়রন পোলার্ড সবে একটা বাউন্ডারি মেরে শুরু করেছিলেন। কিন্তু এবাদত হোসেনকে উড়িয়ে মারতে গিয়ে ক্যাচ তুলে দিলেন। গোটা টুর্নামেন্টে ব্যাটিংয়ে ব্যর্থ সাকিব আজ ৩৩ বলে ৪৭ রানের অপরাজিত এক ইনিংস উপহার দিলেন। দুটি করে চার-ছক্কাও হাঁকালেন। ২০ ওভার শেষে ঢাকার সংগ্রহ দাঁড়াল ৭ উইকেটে ১৩৭ রান।


মন্তব্য