kalerkantho


আইসিসির সামনে সব ফাঁস করলেন সরফরাজরা!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৬ ডিসেম্বর, ২০১৭ ১৫:০৮



আইসিসির সামনে সব ফাঁস করলেন সরফরাজরা!

পাকিস্তান মানেই যেন সব অপকর্ম আর দুর্নীতির আখড়া। তবে এবার হাওয়া যেন একটু উল্টো দিকে বইল।

ম্যাচ ফিক্সিং রুখতে নতুন দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন পাকিস্তান অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদসহ আরও দুই ক্রিকেট অধিনায়ক।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, এই তিন অধিনায়ক  ইতিমধ্যেই আইসিসিকে জানিয়েছেন সাম্প্রতিক অতীতে কী ভাবে তাদের জুয়াড়িরা ম্যাচ ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব দিয়েছিল। অভিযোগকারী বাকি দুই অধিনায়কের মধ্যে একজন হলেন, জিম্বাবুয়ের গ্রেম ক্রেমার। কিন্তু তৃতীয় অধিনায়ক কোন দেশের তা এখনও জানা যায়নি।

জানা গেছে, এই মুহূর্তে বিশ্ব ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি ম্যাচ ফিক্সিংয়ের অভিযোগে সাতটি আন্তর্জাতিক ম্যাচ নিয়ে তদন্ত চালাচ্ছে। সেই তদন্তের সূত্রে জানা গেছে, গত অক্টোবরে সংযুক্ত আরব আমিরাতে পাকিস্তান-শ্রীলঙ্কা ওয়ানডে সিরিজ চলার সময় এক কুখ্যাত জুয়াড়ি ম্যাচ ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব দিয়েছিল পাক অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদকে।

তবে সেই প্রস্তাব পাওয়ামাত্র আইসিসির দুর্নীতি দমন শাখাকে জানিয়ে দেন সরফরাজ। ওই একই মাসে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচে এক সন্দেহজনক ব্যক্তি তাদের কাছে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব নিয়ে এসেছিলেন বলে আইসিসিকে জানান জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক ক্রেমারও। এর পরেই সংশ্লিষ্ট সাতটি ম্যাচ নিয়ে তদন্তে নামে আইসিসির দুর্নীতি দমন শাখা।

জানা গেছে, ম্যাচ ফিক্সিং করার জন্য ক্রিকেটারদের ৫ হাজার থেকে ১ লাখ ৫০ হাজার মার্কিন ডলার দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিল জুয়াড়িরা। তদন্তে আরও জানা গেছে, শুধু বড়দের ক্রিকেটেই নয়। অনূর্ধ্ব-১৭ এবং অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেটেও ক্রিকেটারদের লোভনীয় অর্থের প্রস্তাব দিয়ে ম্যাচ ফিক্সিং করতে বলেছিল জুয়াড়িরা। হুমকি ধামকির ঘটনাও ঘটেছে। তবে আইসিসি যদি শেষ পর্যন্ত শক্ত পদক্ষেপ নিতে পাএ, তবে পাকিস্তানি জুয়াড়িদের কপালে এবার দুঃখ আছে।


মন্তব্য