kalerkantho


মুমিনুলের তাণ্ডবে প্রথম জয় পেল রাজশাহী কিংস

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১১ নভেম্বর, ২০১৭ ১৬:২২



মুমিনুলের তাণ্ডবে প্রথম জয় পেল রাজশাহী কিংস

প্রথম দুই ম্যাচে পরাজিত হওয়া রাজশাহী কিংসের একাদশে আজ ছিলেন না নিয়মিত অধিনায়ক ড্যারেন স্যামি। তার বদলে নেতৃত্ব দিয়ছেন সহ-অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম।

'মি, ডিপেন্ডেবল' এর নেতৃত্বে প্রথম জয়ের দেখা পেল কিংসরা। আজ মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে রংপুর রাইডার্সকে ২০ বল হাতে রেখেই ৮ উইকেটের বড় ব্যবধানে জিতেছে মুশফিকের দল। শতাধিক রানের ওপেনিং জুটিতে দুই ওপেনার করেছেন হাফ সেঞ্চুরি। আর উইকেট দুটি পড়েছে যখন রাজশাহীর জয় বলতে গেলে নিশ্চিত।

রংপুরের দেওয়া ১৩৫  রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে উড়ন্ত সূচনা করে মুশফিকুর রহিমের রাজশাহী কিংস। দুই ওপেনার সিমন্স এবং মুমিনুল হক মিলে ১২২ রানের ওপেনিং জুটি গড়েন। ৫০ বলে ৫৩ রান করে সিমন্স রান-আউট হলে ভাঙে এই জুটি। সিমন্সের পর ওয়ালার (৪) আউট হলেও কোনো সমস্য হয়নি রাজশাহীর। ৪৪ বলে ৪ বাউন্ডারি এবং ৩ ওভার বাউন্ডারিতে ৬৩ রানে অপরাজিত মুমিনুল হক এবং রনি তালুকদার (১০*) মিলে দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যান।

ঢাকা পর্বের প্রথম ম্যাচে আজ শনিবার টসে জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেটে ১৩৪ রান তোলে রংপুর রাইডার্স। দলীয় ৩ রানেই মেহেদী হাসান মিরাজের ঘূর্ণিতে জনসন চার্লস (২) ওয়ালারের তালুবন্দি হন। এরপর মোহাম্মদ মিথুনের সঙ্গে একটা জুটি গড়ার চেষ্টা করেছিলেন অ্যাডাম লিথ। কিন্তু দলীয় ৩২ রানে ফরহাদ রেজার আঘাতে ৪ রান করে ক্যাচ তুলে দেন লিথ।

ফরহাদ রেজার দ্বিতীয় শিকার হন মোহাম্মদ মিথুন। ১৫ বলে ১৮ রান করে এই তরুণ মুমিনুল হকের তালুবন্দি হন। যাকে নিয়ে দলের অনেক প্রত্যাশা ছিল, সেই শাহরিয়ার নাফীসও ২৩ রানের বেশি করতে পারেননি। বল খেলেছেন অনেক বেশি। উইলিয়ামসের বলে ওয়ালারের তালুবন্দি হওয়ার আগে তার সংগ্রহ ৩১ বলে ২৩ রান। ফ্র্যাংকলিনকে উড়িয়ে মারতে গিয়ে মুমিনুল হকের তালুবন্দি হন ৪ রান করা থিসারা পেরেরা।

সবার বিপরীতে দাঁড়িয়ে ৫১ বলে অপরাজিত ৫৪ রান করেন ইংলিশ ব্যাটসম্যান রবি বোপারা। ইনিংসটিতে ৩টি বাউন্ডারি এবং ২টি ওভার বাউন্ডারি ছিল। এছাড়া জিয়াউর রহমান ১১ রানে অপরাজিত ছিলেন।


মন্তব্য