kalerkantho


ভারত-পাকিস্তানের গোয়ার্তুমিতে ভেস্তে যাচ্ছে আইসিসির দারুণ এক উদ্যোগ!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১৬:১৯



ভারত-পাকিস্তানের গোয়ার্তুমিতে ভেস্তে যাচ্ছে আইসিসির দারুণ এক উদ্যোগ!

ক্রিকেটের বড় দলগুলোর বিপক্ষে ছোট দলগুলো খেলার সুযোগ পায়না- এই অভিযোগ বহুদিনের। এই সমস্যা সমাধানে একটি নতুন উদ্যোগ গ্রহণ করেছে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি।

উদ্যোগটি হলো লিগভিত্তিক ক্রিকেট টুর্নামেন্ট। মানে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে প্রতিটি দল একে অপরের বিপক্ষে হোম এবং অ্যাওয়ে ম্যাচ খেলবে। কিন্তু শুরু হওয়ার আগেই এই দারুণ চিন্তাটি ভেস্তে যেতে বসেছে! যার পেছনে দায়ী এশিয়ার দুই চিরবৈরী দেশ ভারত-পাকিস্তান।

লিগ ক্রিকেট নিয়ে আইসিসির ভাবনা হলো, টেস্টের শীর্ষ ৯ দল ২ বছর মেয়াদে হোম এবং অ্যাওয়ে সিরিজে একে অপরের বিপক্ষে খেলবে। আর ওয়ানডেতে ২ বছরের লিগে মুখোমুখি হবে ১৩টি দল। এতে করে প্রতি ২ বছরের মধ্যে প্রতিটি দল একবার নিজেদের মাঠে আরেকবার প্রতিপক্ষের মাঠে গিয়ে সিরিজ খেলবে। প্রতিটি দল একে অপরের বিপক্ষে খেলার পর পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থাকা দুটি দল প্লে অফ ম্যাচে মুখোমুখি হবে। ওই ম্যাচেই নির্ধারণ করা হবে টেস্ট চ্যাম্পিয়ন দলকে। ওয়ানডের ক্ষেত্রেও একই নিয়ম।

আইসিসির এই ভাবনা নিঃসন্দেহে ক্রিকেটকে বদলে দেবে। আগামী মাসে অকল্যান্ডে আইসিসির সভায় চূড়ান্ত হওয়ার কথা প্রস্তাবিত এই লিগভিত্তিক ক্রিকেট।  কিন্তু এই চিন্তা বাস্তবায়নে প্রধান বাধা ভারত ও পাকিস্তান। চিরবৈরী এই দুই দেশ একে অপরের মুখ দেখতে চায় না। ভারত পাকিস্তানের বিপক্ষে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ না খেলার সিদ্ধান্তে অনড়। অন্যদিকে ভারতের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় সফরগুলোর ব্যাপারে পরিষ্কার কোনো ব্যাখ্যা না থাকলে এই লিগের চুক্তিতে সই না করা ঘোষণা দিয়েছে পিসিবি।

এই দুই দেশের রেষারেষিতে ভেস্তে যেতে বসেছে আইসসির এই দারুণ উদ্যোগটি। লিগভিত্তিক ক্রিকেটে সুবিধা হলো, সবগুলো দলকে সবার সঙ্গে খেলার সুযোগ পাবে। এতে ক্রিকেটে বৈচিত্র্য আসবে। দুই-তিনটি দল শুধু বেশি বেশি সিরিজ খেলবে আর বাকীরা তীর্থের কাকের মত বসে থাকবে- এমনটা হবে না। ইউরোপ কিংবা স্প্যানিশ ফুটবল লিগগুলোর মত সবসময় জমজমাট থাকবে ক্রিকেটাঙ্গন। এতে খেলা দেখতে স্টেডিয়ামে আসা দর্শকের সংখ্যাও বৃদ্ধি পাবে। তবে শেষ পর্যন্ত ভারত-পাকিস্তান গোয়ার্তুমি বজায় রাখলে এই উদ্যোগের বাস্তবায়ন অনিশ্চিত!


মন্তব্য