kalerkantho


মুমিনুলের সঙ্গে প্রতিযোগিতা ইমরুলের

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ আগস্ট, ২০১৭ ১৮:৫৪



মুমিনুলের সঙ্গে প্রতিযোগিতা ইমরুলের

ফাইল ছবি

২৪ ঘণ্টার নাটকীয়তার পর জাতীয় দলে ফেরানো হয়েছে সবচেয়ে বেশি গড়ের মালিক টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান মুমিনুল হককে। 'টেস্ট স্পেশালিস্ট' হিসেবে পরিচত মুমিনুল চার নম্বরে ব্যাট করে দারুণ সাফল্য পেয়েছেন।

এরপর তাকে উঠিয়ে আনা হলো তিন নম্বরে। সেই পজিশনেই অস্ট্রেলিয়া সিরিজে তার সম্ভাব্য প্রতিদ্বন্দ্বী হতে যাচ্ছেন সাবেক ওপেনার ইমরুল কায়েস। যদিও ইমরুল এই সুস্থ প্রতিযোগিতাকে স্বাগত জানিয়েছেন।

গত ১৭ বছরের টেস্ট ইতিহাসে ২৫টি উদ্বোধনী জুটি দেখেছে বাংলাদেশ। এদের মধ্যে এখন পর্যন্ত ৪৭.৯৩ গড়ে ২ হাজার ২০৫ রান সংগ্রহ করে সবার ওপরে আছেন তামিম-ইমরুল। টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে উদ্বোধনী জুটিতে সর্বোচ্চ রানের বিশ্ব রেকর্ডও এই দুই জনের অধিকারে। কিন্তু তরুণ সৌম্য সরকারের টেস্ট অভিষেকের পরই বদলে যায় জাতীয় দলের ব্যাটিং লাইনআপ। দ্রুতই দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবালের সঙ্গী হিসেবে কোচের প্রথম পছন্দ হয়ে ওঠেন সাতক্ষীরার এই তরুণ।

২০১৪ সালে টেস্ট দলে ফেরার পর ৩ নম্বরে নেমে প্রথম সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন ইমরুল।

পরের তিনটি ইনিংসেও খেলেছিলেন তিন নম্বরেই। ওই বছরের শেষ দিকে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওপেনিংয়ে ফিরে আবারও সেঞ্চুরি হাঁকান। পরের ম্যাচে পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচের চতুর্থ ইনিংসে ১৫০ রানের দারুণ ইনিংস খেলে উদ্বোধনী জুটিতে তামিমের সঙ্গে নিজের জায়গা পাকা করেন। কিন্তু সৌম্য সরকারের ভয়ডরহীন ব্যাটিং আর চোখ ধাঁধানো স্টাইলের কাছে হার মানতে হয়েছে তাকে। অজিদের বিপক্ষে তাকে তিনে নামার জন্য প্রস্তুত থাকতে বলেছেন কোচ হাথুরুসিংহে।

এদিকে চার নম্বরে দারুণ সাফল্য পাওয়া মুমিনুল হক কিছু দিন আগেও ছিলেন তিন নম্বরে বাংলাদেশের প্রথম পছন্দ। শেষ ৬ ইনিংসে একটি অর্ধশতক পাওয়ায় শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে শেষ টেস্টে বাদ পড়েন তিনি। পরে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ঢাকা টেস্টে শুরুতে স্কোয়াডেই ছিলেন না। তুমুল সমালোচনার মুখে এবং মোসাদ্দেক হোসেনের চোটের কারণে পরে দলে ফেরানো হয় এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যানকে। মুমিনুল হক দলে ফেরায় তিন নম্বর পজিশনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে। আর ইমরুল সাফল্য পেলে আপাতত আর তিনে খেলা হচ্ছে না মুমিনুলের।

এই সুস্থ প্রতিযোগিতাকে ইতিবাচকভাবেই দেখছেন ইমরুল, 'এটা ইতিবাচক দিক। দলে প্রতিযোগিতা থাকলে সেটা ভালো। প্রতিযোগিতা বেশি থাকলে ম্যানেজমেন্ট সবচেয়ে ভালো খেলোয়াড়কেই খেলানোর জন্য বেছে নিতে পারে। আমি বলবো এটা একটা ভালো দিক দলের জন্য এবং তারা পারফর্মও করবে। '

শ্রীলঙ্কার কুমার সাঙ্গাকারা, ভারতের রাহুল দ্রাবিড় কিংবা হালের বিরাট কোহলি তিন নম্বরে খেলে দারুণ সফল হয়েছেন। তাদের কাছ থেকেই অনুপ্রেরণা পাচ্ছেন ইমরুল। টেস্টে তিন নম্বরে ইমরুলের জায়গা স্থায়ী হলো কিনা- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি আরও বলেন, 'এমন কিছু বলা হয়নি। এটা নির্ভর করছে আমার পারফরম্যান্সের ওপর। পারফর্ম করলে হয়তো তিনে থাকবো। সেটা না পারলে হয়তো দলেই থাকবো না। '


মন্তব্য