kalerkantho


ড্রেসিংরুমে বিস্কিট নিষিদ্ধ করায় শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটে তুলকালাম!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ আগস্ট, ২০১৭ ১৩:১৩



ড্রেসিংরুমে বিস্কিট নিষিদ্ধ করায় শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটে তুলকালাম!

অদ্ভুত সব ঘটনা ঘটে চলছে শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটাঙ্গনে। জেনারেশন গ্যাপের কবলে পড়া একসময়ের বিশ্বকাপজয়ী দলটি হারতে হারতে খাদের কিনারায় চলে গেছে।

আর ঘটছে নানান অপ্রীতিকর ঘটনা। এবার উপুল থারাঙ্গাদের ড্রেসিংরুমে বিস্কিট নিষিদ্ধ করার ঘটনা ঘটেছে।  দলটির ম্যানেজার আসাঙ্কা গুরুসিনহা জানিয়েছেন ক্রিকেটাররা ড্রেসিংরুমে বিস্কিট খেতে পারবে না।

এদিকে গুজব ছড়িয়েছে যে, ড্রেসিংরুমে বিস্কিট নিষিদ্ধ করায় নাকি ক্রিকেটারদের সঙ্গে ম্যানেজারের হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে! এছাড়া বিস্কিট নিষিদ্ধের প্রতিবাদে ক্রিকেটাররা নাকি ড্রেসিংরুমের আসবাবপত্র ভাঙচুর করেছে।  তবে এই খবরকে স্রেফ গুজব বলে উড়িয়ে দেন গুরুসিনহা।

তিনি বলেন, 'ম্যাচ চলাকালে খাবার নির্বাচনের দায়িত্বে থাকেন আমাদের ফিজিও এবং ট্রেইনাররা। তারাই ড্রেসিংরুমে বিস্কিট নিষিদ্ধ করেছেন। এই ইস্যুতে কোন ক্রিকেটার কিংবা স্টাফদের মধ্যে কোন প্রকার অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। প্রকৃত সত্য হচ্ছে ড্রেসিংরুমে বিস্কিট থাকার কথা ক্রিকেটাররা জানতেনই না।

'

গুরুসিনহা আরো বলেন, 'অন্যান্য দিন ড্রেসিংরুমে বিস্কিট থাকত। এখন যেহেতু আমাদের ট্রেইনাররা এটা চান না, তাই ক্যাটারিং স্টাফদের এগুলো সরিয়ে নিতে বলেছি। ভাঙচুরের গুজবের কথা শুনতে পেয়ে ক্রিকেটাররা আমার সাথে কথা বলেছে এবং আমাকে দুঃশ্চিন্তা করতে নিষেধ করেছে। তারা সবাই জানে যে সংবাদটা সত্যি নয় এবং তারা সবাই আমার পাশে আছে। '

নিজের পদত্যাগ কিংবা বরখাস্ত করা হচ্ছে- এমন গুজবের কথাও অস্বীকার করেন ম্যানেজার। তিনি বলেন, 'আমার পদত্যাগ সংক্রান্ত যে খবর ছড়িয়ে পড়েছে তা সত্য নয়। ' শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে গুরুসিনহার বর্তমান চুক্তির মেয়াদ ২০১৯ সাল পর্যন্ত। আগামীকাল রবিবার থেকে শুরু হচ্ছে ভারতের বিপক্ষে শ্রীলঙ্কার ওয়ানডে সিরিজ। এই সিরিজের ওপর নির্ভর করছে দ্বীপরাষ্ট্রটির সরাসরি বিশ্বকাপ খেলার সুযোগ।


মন্তব্য